• সোমবার, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ১ পৌষ ১৪২৬  |   ২৩ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

যেসব অভ্যাসে কমবে কোলেস্টেরল

  স্বাস্থ্য ডেস্ক

১৫ আগস্ট ২০১৯, ২০:৪৬
খাবার
বেশ কিছু খাবার কোলেস্টেরল কমাতে সাহায্য করে। (ছবি : সংগৃহীত)

কোলেস্টেরলের মাত্রা বেড়ে গেলে শরীরে নানা রকম রোগ-বালাই বাসা বেঁধে থাকে। বিশেষ করে বয়স বাড়ার সাথে সাথে কোলেস্টেরলের মাত্রা বাড়তে থাকে মানবদেহে। হাই কোলেস্টেরল সমৃদ্ধ খাবার গ্রহণের ফলেই এমনটা হয়ে থাকে বলে বিশেষজ্ঞদের মত। গবেষণায় বলা হয়েছে ২০ বছরের বেশি বয়সীদের প্রতি ৫ বছর পর পর রক্তে কোলেস্টেরলের মাত্রা পরিমাপ করা উচিত। কোলেস্টেরলের মাত্রা জানা থাকলে এটি কমিয়ে আনতে পারবেন নির্দিষ্ট মাত্রায়। জীবনাচরণ পরিবর্তনের পাশাপাশি কোলেস্টেরল কমানোর ওষুধ সেবন করলে রক্তে কোলেস্টেরলের মাত্রা দ্রুত স্বাভাবিক হয়ে আসে। ওষুধ সেবন ছাড়াও আর যেসব উপায়ে কমিয়ে আনতে পারবেন রক্তে কোলেস্টেরলের মাত্রা চলুন জেনে নেওয়া যাক সেগুলো সম্পর্কে।

ব্যায়াম :

নিয়মিত ব্যায়াম এবং শারীরিক পরিশ্রম করলে রক্তে কোলেস্টেরলের মাত্রা কমে যায়। বিশেষ করে যেসব কোলেস্টেরলে ক্ষতিকারক নানা উপাদান রয়েছে সেগুলো কমিয়ে উপকারী কোলেস্টেরলের মাত্রা বৃদ্ধি করে দেয়। জোরে জোরে হাঁটার অভ্যাস আছে যাদের তারা এই সুফলটি পেয়ে থাকেন। বিশেষজ্ঞদের মতে, রাতের খাবারের পর কমপক্ষে ৪৫ মিনিট জোরে জোরে হাঁটা উচিত। এতে শরীরের কোলেস্টেরল কমার পাশাপাশি অনেক রোগের হাত থেকেও বেঁচে থাকা যায়।

খাবারে সতর্কতা :

যেসব খাবারে বেশি মাত্রায় কোলেস্টেরল রয়েছে সেগুলো পরিহার করে চলতে হবে। বিশেষ করে ডিমের কুসুম, মাখন, চর্বিযুক্ত গরুর মাংস এবং খাসির মাংস খাওয়া বাদ দিতে হবে। এর বদলে সয়াবিন তেল, সূর্যমুখী তেল, সামুদ্রিক মাছ খাওয়া যেতে পারে।

সবজি ও ফলমূল :

বেশিরভাগ সবজি এবং ফলমূল শরীরের কোলেস্টেরলকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে বেশ কাজে দেয়। বিশেষ করে যেসব ফলে আঁশ রয়েছে সেগুলো বেশি উপকার করে থাকে কোলেস্টেরল কমাতে। শিম, বার্লি ও আম এক্ষেত্রে বেশ কার্যকর।

মাছ :

মাছ খেতে অনীহা অনেকেরই। বিশেষ করে মাছের তেল রক্তের কোলেস্টেরল কমাতে কাজে দেয় বেশি। এর মধ্যে ওমেগা-৩ নামক একটি ফ্যাটি এসিড থাকে। যা রক্তকে পরিশুদ্ধ করে ক্ষতিকর চর্বি এবং কোলেস্টেরল কমিয়ে ফেলে। তাই সপ্তাহে অন্তত তিন বেলা মাছ খাওয়ার অভ্যাস করতে হবে।

অ্যালকোহল পরিহার :

অ্যালকোহলযুক্ত পানীয় পান করলে শরীরের নানা রকম ক্ষতি হয়ে থাকে। তাই  অ্যালকোহলযুক্ত পানীয় পরিহার করে চলতে হবে।

ধূমপান :

ধূমপান রক্তে ক্ষতিকর কোলেস্টেরলের মাত্রা যতটা না বৃদ্ধি করে তারচেয়ে বেশি কমিয়ে ফেলে উপকারী কোলেস্টেরলের মাত্রা। তাই কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণে রাখতে গেলে ধূমপান থেকে দূরে থাকতে হবে অবশ্যই।

ওডি/এসএম 

স্বাস্থ্য-ভোগান্তি, নতুন পরিচিত অসুস্থতার কথা জানাতে অথবা চিকিৎসকের কাছ থেকে স্বাস্থ্য সংক্রান্ত পরামর্শ পেতেই-মেইলকরুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব এবং সংশ্লিষ্ট স্বাস্থ্য সমস্যার পরামর্শ দেবার প্রচেষ্টা থাকবে আমাদের।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪, ০১৯০৭৪৮৪৮০০ 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড