• মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০, ৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৭  |   ২৬ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

স্তন ক্যানসার প্রতিরোধে এ কাজগুলো করছেন তো?

  স্বাস্থ্য ডেস্ক

০২ আগস্ট ২০১৯, ১২:৪৩
স্তন ক্যানসার সেল
স্তন ক্যানসার সেল; (ছবি- ইন্টারনেট)

বর্তমান সময়ের একটি অতি পরিচিত স্বাস্থ্য সমস্যা ‘স্তন ক্যানসার’। শরীরের প্রতি উদাসীনতা, সঠিক সময়ে চিকিৎসার অভাব ইত্যাদি কারণে এ রোগের রোগীর সংখ্যা বেড়েই চলছে। গবেষণার তথ্য অনুসারে, কেবল ৫-১০ শতাংশ স্তন ক্যানসারের পেছনে বংশগত বা জিনগত কারণ দায়ী। বাদবাকি ক্ষেত্রে দায়ী জীবনযাপনের ধরন, খাদ্যাভ্যাস ও নিত্যদিনের অভ্যাস সমূহ।

স্তন ক্যানসার প্রতিরোধের জন্য সঠিক কিছু নিয়ম মেনে চলা খুবই প্রয়োজন। কী কী কাজ করলে স্তন ক্যানসার থেকে দূরে থাকা যায়? চলুন জেনে নিই-

ওজন রাখুন নিয়ন্ত্রণে-

অতিরিক্ত ওজন শরীরের জন্য ক্ষতিকর। ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ থেকে শুরু করে ক্যানসারের মতো কঠিন রোগও হতে পারে এই বাড়তি ওজনের কারণে। বিশেষ করে নারীদের বাড়তি ওজন থাকলে মেনোপজ পরবর্তী সময়ে ব্রেস্ট ক্যানসারের ঝুঁকি বেড়ে যায়।

নিয়মিত করুন শরীরচর্চা-

সুস্থ থাকতে নিয়মিত শারীরিক চর্চার বিকল্প নেই। নিয়ম করে শারীরিক চর্চা করা না হলেও এমন কিছু করুন যা দেহে ঘাম তৈরি করবে। প্রতিদিন অন্তত আধা ঘণ্টা ব্যায়াম করার অভ্যাস থাকলে স্তন ক্যানসার প্রতিরোধ করা যায়।

ফল ও সবজি খাওয়া-

স্তন ক্যানসার প্রতিরোধ ও সুস্বাস্থ্যের অধিকারী হতে চাইলে প্রচুর সবজি ও ফল খাওয়ার অভ্যাস করুন। গাজর, বিট, বক্রলি, অ্যাপেল, কমলা, স্ট্রবেরি, ড্রাগনফুট ইত্যাদি সবজি ও ফল শারীরিক সুস্থতা প্রদানে সহায়ক।

ডার্ক চকলেট-

দারুণ মজার ও সুস্বাদু এই খাবারটি স্তন ক্যানসার প্রতিরোধে দারুণ কাজ করে। গবেষণা অনুযায়ী, ডার্ক চকলেটে ক্যানসারের বিপক্ষে কাজ করার মতো উপাদান রয়েছে। নিয়মিত ডার্ক চকলেট না খেলেও প্রতি সপ্তাহে ১০০ গ্রাম পরিমাণ ডার্ক চকলেট খেতে পারেন। এতে উপকার মিলবে।

ঘুম থেকে দ্রুত ওঠার অভ্যাস-

কষ্ট হলে সকাল সকাল বিছানা ছাড়ার অভ্যাস করুন। এই অভ্যাসটি স্তন ক্যানসারের সম্ভাবনা কমিয়ে দেবে অনেকখানি। তবে ৭/৮ ঘণ্টার কম ঘুমানোও উচিত নয়। তাই, রাতে দ্রুত ঘুমিয়ে পড়ুন আর ভোরে ভোরে ঘুম থেকে উঠে পড়ুন।

নিয়মিত স্তন পরীক্ষা করা-

খুব সহজেই স্তন পরীক্ষা করা যায়। আর তা করতে পারেন ঘরে বসেই। গোসলের সময় স্তন ভালোভাবে পরীক্ষা করে নিন। বগলের নিচের অংশ থেকে শুরু করে স্তন ও স্তনের আশেপাশের অংশে শক্ত চাকা, ছোট গুটির মতো দলা, স্তনের বোটার চারপাশের ত্বকে গুঁড়ি গুঁড়ি অংশ, স্তনে ব্যথাভাব, চুলকানির প্রাদুর্ভাব, বোটার রং আকস্মিকভাবে পরিবর্তন হওয়া, বোটা থেকে সাদা তরল অথবা রক্ত নিঃসৃত হওয়ার মতো লক্ষণগুলো দেখা দিলেই স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞের দ্বারস্থ হতে হবে।

এসবের পাশাপাশি মায়েরা সন্তানদের স্তন পান করাবেন। এতে স্তন ক্যানসারের ঝুঁকি কমে যায় অনেকখানি।

ওডি/এনএম

স্বাস্থ্য-ভোগান্তি, নতুন পরিচিত অসুস্থতার কথা জানাতে অথবা চিকিৎসকের কাছ থেকে স্বাস্থ্য সংক্রান্ত পরামর্শ পেতেই-মেইলকরুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব এবং সংশ্লিষ্ট স্বাস্থ্য সমস্যার পরামর্শ দেবার প্রচেষ্টা থাকবে আমাদের।
jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: +8801703790747, +8801721978664, 02-9110584 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড