• শনিবার, ২৩ মার্চ ২০১৯, ৯ চৈত্র ১৪২৫  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন

অস্টিওআর্থারাইটিস সংক্রান্ত যে ধারণাগুলো একেবারেই ভুল!

  সাদিয়া ইসলাম বৃষ্টি ১১ মার্চ ২০১৯, ১৪:০০

অস্টিওআর্থারাইটিস
ছবি : সম্পাদিত

আমাদের শরীরে হাড়ের প্রোটেক্টিভ কার্টিলেজ বা তরুণাস্থি ধীরে ধীরে ভেঙে যাওয়ার কারণে অস্টিওআর্থারাইটিজ নামক সমস্যাটি জন্ম নেয়। বেশিরভাগ মানুষ একটা নির্দিষ্ট বয়সে গিয়ে এই সমস্যাটিতে ভুগে থাকেন। অত্যন্ত পরিচিত একটি সমস্যা হওয়ায় অস্টিওআর্থারাইটিজ সংক্রান্ত নানারকম ভুল ধারণা জন্ম নিয়েছে। যেগুলোর কয়েকটিকে সাধারণ মানুষ তো বটেই, অনেক চিকিৎসকও সত্যি বলে মনে করে থাকেন। চলুন, অস্টিওআর্থারাইটিজ নিয়ে এমন বহুল প্রচলিত ৫ টি ভুল ধারণা সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক।

গ্লুকোস্যামাইন সাপ্লিমেন্ট অস্টিওআর্থারাইটিজের প্রতিষেধক- 

একটি সুস্থ ও স্বাভাবিক তরুণাস্থিতে কন্ড্রোইটিন এবং গ্লুকোস্যামাইন উপস্থিত থাকে এবং নিজ থেকে উৎপাদিত হয়। তাই এ ক্ষেত্রে কোনো সমস্যা দেখা দিলে তার প্রতিষেধকের ভেতরে যে নির্দিষ্ট এই উপাদানগুলো মিশ্রিত থাকবে সেটা স্বাভাবিক। 

কিছু পরীক্ষার মাধ্যমে জানা যায় যে, গ্লুকোস্যামাইন সাপ্লিমেন্ট হাড়ের সমস্যায় ব্যথার কিছুটা উপশম করতে পারে। তবে অস্টিওআর্থারাইটিজ সারিয়ে তোলার পেছনে এটি কোনো ভূমিকা রাখতে পারে না। যদিও অনেকেই এই সাপ্লিমেন্টগুলো ব্যবহারের পর ভালো বোধ করতে পারেন।

সে ক্ষেত্রে, চিকিৎসকেরা রোগীদের এমন কোনো শারীরিক উন্নতি নিজেদের মধ্যে দেখলে নিয়মিত সাপ্লিমেন্ট গ্রহণ করার পরামর্শ দিয়ে থাকেন। 

ধূমপায়ীদের অস্টিওআর্থারাইটিজ হয় না- 

এটা সত্যি যে, কিছু পরীক্ষায় দেখা গিয়েছে যে, অধূমপায়ীদের মধ্যে অস্টিওআর্থারাইটিজের পরিমাণ ধূমপায়ীদের চাইতে কম দেখা যায়। এ ক্ষেত্রে গবেষকেরা কারণ হিসেবে সিগারেটের মধ্যে থাকা নিকোটিনকে দায়ী করেছেন। 

তবে অ্যানালস অব দ্যা রিউমেটিক ডিজিজেজ এন্ড রিউম্যাটোলজিতে ২০০৭ ও ২০০৯ সালে প্রকাশিত দুটি গবেষণায় দেখা যায় যে, যেসব ধূমপায়ীরা অনেক বেশি সিগারেট গ্রহণ করেন, তাদের কার্টিলেজ কমে আসার পরিমাণ দুইগুণ বেড়ে যায়। আর হ্যাঁ, সিগারেট যদি আপনাকে অস্টিওআর্থারাইটিজের হাত থেকে একটু হলেও বাঁচিয়ে থাকে, একইসাথে এটি আপনার শরীরে আরও অনেক নেতিবাচক প্রভাবও রাখে!

দৌড়ালে অস্টিওআর্থারাইটিজের সমস্যা আরও বেড়ে যায়- 

অনেকেই ভেবে থাকেন, অস্টিওআর্থারাইটিজে আক্রান্তরা দৌড়ালে বা খুব বেশি চাপ হাড়ের ওপরে দিলে, তাতে করে সমস্যা আরও বেড়ে যায়। ব্যাপারটি মোটেও এমন নয়। চিকিৎসকদের মতে, হাড়ের কোনো সমস্যায় অনেক বেশি সক্রিয় থাকা প্রয়োজন। এতে করে হাড় ভালো থাকে। কথাটি অস্টিওআর্থারাইটিজের ভুক্তভোগীদের জন্যও সত্যি। 

তবে আপনার সমস্যা যদি খুব বেশি হয়ে থাকে, সে ক্ষেত্রে অতিরিক্ত চাপ না দিয়ে স্বাভাবিক কার্যক্রমগুলো বজায় রাখুন।

আঙুল ফুটালে অস্টিওআর্থারাইটিজ হয়- 

আমরা অনেকেই আঙুলের গাঁট ফুটিয়ে থাকি। ব্যাপারটি অনেকের জন্য বিরক্তিকর মনে হতে পারে। তবে তার মানে এই নয় যে, এটি অস্টিওআর্থারাইটিজের জন্ম দেয়। আমরা আঙ্গুল ফুটানোর সময় যে শব্দ শোনা যায় সেটি আঙুলের গাঁটের সাইনোভিয়াল ফ্লুইডের আবদ্ধ নাইট্রোজেন গ্যাসের কারণে হয়। 

এর কোনো প্রভাব হাড়ের ওপরে এতটা মারাত্মকভাবে পড়ে না। তবে হ্যাঁ, আপনার আঙুলের গাঁটে চাপ প্রয়োগ করলে যদি ব্যথা বোধ করেন, সে ক্ষেত্রে চিকিৎসকের সাথে কথা বলুন। 

বয়স বাড়লে অস্টিওআর্থারাইটি​​​​​​​জকে প্রতিরোধ করা সম্ভব নয়- 

বয়স বাড়ার সাথে সাথে আমাদের হাড়ের উপরে নেতিবাচক প্রভাব পড়ে। নানারকম সমস্যা তৈরি হয়। এই সবগুলো কথাই সত্যি। তবে তার মানে এই নয় যে, ডিজেনারেটিভ অসুখগুলো, যেমন অস্টিওআর্থারাইটিজ বয়সের কারণে হয়ে থাকে। 

বয়স এক্ষেত্রে প্রভাব রাখে না। আগে পাওয়া কোনো আঘাত, স্থূলতা ইত্যাদি আরো নানারকম কারণ নিহিত থাকতে পারে অস্টিওআর্থারাইটিজের পেছনে। তাই, বয়স বাড়লে হাল ছেড়ে দেওয়ার কিছু নেই। আপনার বয়স হয়ে গেলেও অস্টিওআর্থারাইটিজকে প্রতিরোধ করা সম্ভব।

আপনার বয়স এখন যতই হোক না কেন, সতর্কতা অবলম্বন করুন। হাড়ের সুরক্ষায় পদক্ষেপ নিন। তাতে করে শুধু অস্টিওআর্থারাইটিজ নয়, হাড়ের আরও নানারকম সমস্যা থেকেও দূরে থাকতে পারবেন আপনি। 

মূল লেখক- ডক্টর তান সুক চুয়েন, মাউন্ট এলিজাবেথ হসপিটাল। 

স্বাস্থ্য-ভোগান্তি, নতুন পরিচিত অসুস্থতার কথা জানাতে অথবা চিকিৎসকের কাছ থেকে স্বাস্থ্য সংক্রান্ত পরামর্শ পেতেই-মেইলকরুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব এবং সংশ্লিষ্ট স্বাস্থ্য সমস্যার পরামর্শ দেবার প্রচেষ্টা থাকবে আমাদের।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড