• শুক্রবার, ২২ মার্চ ২০১৯, ৮ চৈত্র ১৪২৫  |   ২৫ °সে
  • বেটা ভার্সন

মায়ের বুকের দুধ, নাকি ফর্মুলা মিল্ক- কোনটি ভালো?

  সাদিয়া ইসলাম বৃষ্টি ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১২:৪২

মা ও শিশু
ছবি : সম্পাদিত

মা সবসময়ই সন্তানের জন্য সেরাটাই দিতে চান। নিজের সন্তান ভালো থাকুক সেটা কে না চায়? আপনি নিশ্চয় আপনার শিশুর ভালো থাকার জন্য যেটা করা দরকার তার সবটাই করার চেষ্টা করছেন? 

আচ্ছা, আপনার শিশু কোন দুধ পান করছে? আপনার বুকের দুধ, নাকি ফর্মুলা দুধ? মায়ের বুকের দুধ আর ফর্মুলা দুধের মধ্যে পার্থক্যটা কোথায়? কোনটা বেশি ভালো? চলুন, আজ জেনে নেওয়া যাক এই সব প্রশ্নের উত্তর- 

মায়ের বুকের দুধ, নাকি ফর্মুলা দুধ : কোনটি ভালো?

মাউন্ট এলিজাবেথ হসপিটালের প্রধান ডায়েটিশিয়ান নাটালি গোহ-এর মতে মায়ের বুকের দুধ একজন শিশুর জন্য সবচাইতে সেরা ও পুষ্টিকর খাবার। মায়ের বুকের দুধে সেই সব উপাদান রয়েছে যেগুলো একটি শিশুর সুস্থ থাকার জন্য প্রয়োজন। 

মজার ব্যাপার হলো এই যে, বুকের দুধের এই পুষ্টিগুণ সময়ের সাথে সাথে শিশুর চাহিদার সাথে তাল মিলিয়ে বদলে যায়। শিশুর শরীরকে রোগ প্রতিরোধক করে তুলতে, সংক্রামক রোগ থেকে তাকে দূরে রাখতে এবং নানারকম প্রদাহকে দূর করতে মায়ের বুকের দুধ সাহায্য করে। এই দুধ খুব তাড়াতাড়ি ও সহজে হজমও করা সম্ভব। 

এই দুধ শিশু ও মায়ের মধ্যকার সম্পর্ককে আর ভালো গড়ে তোলে। এতে কোনো খরচ হয় না এবং এটি সহজলভ্য। সবদিক দিয়ে তাই মায়ের বুকের দুধই সবচাইতে সেরা। তবে আপনার শিশুর ক্ষেত্রে কোনো সমস্যা দেখা দিলে বা আপনি যদি শিশুকে দুধ পান না করাতে পারেন, সেক্ষেত্রে প্রয়োজন হয় ফর্মুলা মিল্কের। এই দুধে একটি শিশুর দরকারি সব পুষ্টি উপাদান মজুদ থাকে। তবে এটি মায়ের দুধের মতো হয় না। 

কতদিন পর্যন্ত মায়ের বুকের দুধ শিশুকে খাওয়ানো উচিত?

সাধারণত অন্তত ৬ মাস পর্যন্ত শিশুকে মায়ের বুকের দুধ পান করানো প্রয়োজন। এর বেশি যদি সম্ভব হয় তাহলে সেটাই করা উচিত। কিন্তু কোনো কারণে মায়ের বুকের দুধ শিশু না পেলে সেক্ষেত্রে চিকিৎসকের সাথে কথা বলুন। চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে তারপর অন্য উপায় খুঁজুন। 

এক্ষেত্রে আপনাকে সাহায্য করতে পারে ল্যাক্টেশিয়ান কনসাল্টেন্ট। একজন ল্যাক্টেশিয়ান কনসাল্টেন্ট মা, শিশু, শিশুকে দুধ পান করানো- এই ব্যাপারে অভিজ্ঞ হয়ে থাকেন। তিনি আপনাকে শিশুকে দুধ পান করানো সম্পর্কিত কোনো সমস্যা হলে তার সমাধান দিতে পারেন। একইসাথে, আপনি শিশুকে কখন, কীভাবে, কতবার দুধ পান করাবেন- এই সব তথ্যই জানতে পারবেন ল্যাক্টেশিয়ান কনসাল্টেন্টের কাছ থেকে। 

ফর্মুলা দুধ কি ভিন্ন ভিন্ন উপাদান দিয়ে তৈরি হয়?

সাধারণত, বেশিরভাগ ফর্মুলা মিল্কের ক্ষেত্রেই প্রায় একইরকম উপাদান ব্যবহার করা হয়ে থাকে। কোথাও কোনো উপাদান বেশি ব্যবহার করা হয়, কোথাও কম। তবে খুব বড় পরিবর্তন কোনোটাতেই থাকে না। তবে আপনার শিশুর জন্য ফর্মুলা মিল্ক চাইলে চেষ্টা করুন সেরা ব্র্যান্ডেরটাই কিনতে। 

ফর্মুলা মিল্কের ধরণ কি বদলানো যায়?

ফর্মুলা মিল্ক যেহেতু অনেক ব্র্যান্ডের হয়ে থাকে, তাই আপনি ইচ্ছে করলেই একটি ব্র্যান্ড থেকে অন্য ব্র্যান্ডে চলে যেতে পারেন। তবে আপনার শিশু নতুন দুধের সাথে মিশ খাইয়ে নিতে পারবে কিনা তা নির্ভর করবে তার শরীরের প্রতিরোধ ক্ষমতার উপরে।

ফর্মুলা মিল্ক আর গরুর দুধ কি একইরকম?

সাধারণত, ফর্মুলা মিল্কে শিশুর শরীরের জন্য যে পুষ্টি প্রয়োজন সেটা থাকে। অন্যদিকে, গরুর দুধে শিশু সহজে হজম করতে পারবে না এমন উপাদানও থাকে। তাই, শিশুর বয়স এক বছর বা তার বেশি হওয়ার আগে তাকে গরুর দুধ না দেওয়াই ভালো। 

সাধারণত, শিশুরা মায়ের বুকের দুধই পান করে থাকে। তবে কোনো কারণে সেটা সম্ভব না হলে তাকে ফর্মুলা দুধ পান করান। বয়সের সাথে সাথে এই উপাদান পরিবর্তিত হবে। তাই ফর্মুলা দুধেও উপাদানের পরিবর্তন আনুন। 

তবে যে উপায়টিই বেছে নিন না কেন, চেষ্টা করুন আপনার শিশুর জন্য যেটা সবচাইতে সেরা সেটিই নেওয়ার!
 

স্বাস্থ্য-ভোগান্তি, নতুন পরিচিত অসুস্থতার কথা জানাতে অথবা চিকিৎসকের কাছ থেকে স্বাস্থ্য সংক্রান্ত পরামর্শ পেতেই-মেইলকরুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব এবং সংশ্লিষ্ট স্বাস্থ্য সমস্যার পরামর্শ দেবার প্রচেষ্টা থাকবে আমাদের।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড