• শনিবার, ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ৪ ফাল্গুন ১৪২৫  |   ২৩ °সে
  • বেটা ভার্সন

অ্যান্টিবায়োটিকের কারণেই হতে পারে মৃত্যু!

  অধিকার ডেস্ক    ১০ নভেম্বর ২০১৮, ১২:২৩

অ্যান্টিবায়োটিক
মাত্রাতিরিক্ত অ্যান্টিবায়োটিক সেবনে হতে পারে ক্ষতি

অসুস্থতা থেকে রক্ষা পেতে ওষুধ খাবেন এটাই স্বাভাবিক। তবে তার মাত্রা বেশি হয়ে যাচ্ছে না তো? বেশি পরিমাণ ওষুধ খাওয়ার ফলে শরীরে ঘটতে পারে ভয়ঙ্কর বিপদ। নতুন এক গবেষণায় এমন চাঞ্চল্যকর তথ্যই জানা যাচ্ছে। 

বেশি অ্যান্টিবায়োটিক খাওয়ার ফলে মানুষের দেহে সৃষ্টি হচ্ছে এক অদ্ভুত অবস্থা। ইউরোপিয়ান সেন্টার ফর ডিজিজ প্রিভেনশন অ্যান্ড কন্ট্রোল (ইসিডিসি)-এর গবেষকরা এর নাম দিয়েছেন ‘সুপারবাগ’। এই সুপারবাগের আক্রমণে প্রতি বছর কেবল ইউরোপীয় মহাদেশেই মারা যাচ্ছেন ৩৩ হাজার মানুষ। 

প্রয়োজনের অতিরিক্ত অ্যান্টিবায়োটিক খাওয়ার ফলে দেহের ৭০ শতাংশ ব্যাকটেরিয়া মারতে আর কাজ করছে না ওষুধ। অথচ, ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণ থেকে রক্ষা পেতেই অ্যান্টিবায়োটিক ওষুধ দেওয়া হয়। 

ব্যাকটেরিয়া না মরার ফলে তা সংক্রমণ ছড়াচ্ছে দেহে। এই সংক্রমণ যক্ষা, ফ্লু এমনকি এইডসের মতো ভয়ানক সংক্রমণের সমান। সম্প্রতি ল্যান্সেট ইনফেকশস ডিজিজেস নামে একটি রিপোর্ট প্রকাশ করেছে ইসিডিসি। সেখানে এ তথ্য প্রকাশ করা হয়। কেবল ইউরোপ নয়, পুরো বিশ্বের জন্যই এটি ভয়ানক বিপদ ডেকে আনছে বলে মনে করছেন রিপোর্টের গবেষকরা। 

অ্যান্টিবায়োটিক থেকে নিজেদের বাচানো এসব ব্যাকটেরিয়া মূলত পাঁচ ধরনের সংক্রমণ ছড়াচ্ছে বলে দাবি করছেন গবেষকরা। এদের তিন চতুর্থাংশ রোগীই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় এই ব্যাকটেরিয়ায় আক্রান্ত হচ্ছেন। 

সঠিক সময়ে চিকিৎসা গ্রহণ করা হলে রোগীকে বাঁচানো সম্ভব বলে জানিয়েছেন গবেষক দল। তবে যেই অ্যান্টিবায়োটিক জীবন রক্ষা করে সেটিই যখন জীবন নাশের কারণ হতে পারে, তখন একটু সাবধানেই ওষুধ খেতে হবে। 

স্বাস্থ্য-ভোগান্তি, নতুন পরিচিত অসুস্থতার কথা জানাতে অথবা চিকিৎসকের কাছ থেকে স্বাস্থ্য সংক্রান্ত পরামর্শ পেতেই-মেইলকরুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব এবং সংশ্লিষ্ট স্বাস্থ্য সমস্যার পরামর্শ দেবার প্রচেষ্টা থাকবে আমাদের।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড