• শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

চুল হারানোর দায় কি তেলাপোকার?

  স্বাস্থ্য কথা ডেস্ক

০৭ মে ২০১৮, ১২:৫৯

সকালে ঘুম থেকে উঠে প্রতিদিনের অভ্যাসমত আয়নার সামনে দাঁড়ালো সুমন। তাকিয়েই থ! মাথায় বেশ কিছু জায়গা থেকে হারিয়ে গেছে চুল। এমন অদ্ভুত কান্ড ঘটলো কী করে? বাড়ির অন্যদের জিজ্ঞাস করায় উত্তর মিললো- তেলাপোকা চুল খেয়ে ফেলেছে।

হঠাৎ চুল উধাও হয়ে যাওয়া সম্পর্কে এই ধারণাটিই প্রচলিত। সমস্যা কিন্তু হতে পারে অন্য জায়গায়। এ জাতীয় টাক শুধু মাথার চুলেই হয় না; দাড়ি, গোঁফ, ভ্রু ইত্যাদি জায়গায়ও হয়ে থাকে। প্রাথমিক পর্যায়ে সাধারণত এক-দুটি এবং কয়েক দিনের ভেতর পাঁচ-দশটি জায়গায় হঠাৎ গোলাকার অথবা ডিম্বাকৃতির টাক পড়ে। টাক পড়া জায়গায় কখনও কখনও এক-দুটি চুল বিদ্যমান থাকলেও সাধারণত কোনো চুলের গোড়াও দেখা যায় না।

মাঝে মাঝে ত্বক একটু ঢালু বা দাবানো থাকতে পারে আবার না-ও থাকতে পারে। ঠিক একই ধরনের গোলাকার টাক ছত্রাকের আক্রমণেও হতে পারে। তবে ছত্রাকের আক্রমণ প্রাপ্তবয়স্কদের হয়না বললেই চলে। অল্প বয়সীদেরই হয়ে থাকে।

এলোপেসিয়া এরিয়েটা বা হঠাৎ টাক হওয়া এ সমস্যা যে কোনো বয়সেই হতে পারে, বরং প্রাপ্তবয়স্কদের বেশি হয়। ছত্রাকের কারণে যে টাক পড়ে তাতে চুলের গোড়া দেখা যায়, কিন্তু এলোপেসিয়া এরিয়েটাতে চুলের গোড়া দেখা যায় না। এলোপেসিয়া এরিয়েটা ধারণা করা হয়, বংশগত কারণে হয়ে থাকে এবং মানসিক চাপের কারণে এ জাতীয় সমস্যা দেখা দিতে পারে। তেলাপোকা ঘুমের মধ্যে চুল কেটে নিয়েছে- এটা ১০০ ভাগ ভুল ধারণা।

চিকিৎসা :

কম বয়সে এমন সমস্যা হলে তা বয়স বাড়ার সাথে সাথে এমনিই ভালো হয়ে যায়। তবে মাঝে মাঝে ভালো না হয়ে আরোও বড় আকার ধারণ করে। এমনকি আকারে ও পরিধিতে বেড়ে গিয়ে মাথার সমস্যা চুল, ভ্রু, দাড়ি, গোঁফ ইত্যাদি ধরে যেতে পারে।

প্রাথমিক পর্যায়ে ছোট ছোট টাক পড়া জায়গা অর্থাৎ আক্রান্ত স্থানে স্টেরয়েড জাতীয় ইনজেকশন দেয়া যেতে পারে। ত্বকের নিচে তিন-চার সপ্তাহ পরপর এ ইনজেকশন দিয়ে রোগের বিস্তার রোধ করা সম্ভব।

এ ইনজেকশন দেয়ার ফলে আক্রান্ত স্থানে নতুন করে চুল গজাবে। তবে চিকিৎসা চলাকালীন সময়ে নতুন জায়গা আক্রান্ত হতে পারে। সে ক্ষেত্রে সেখানেও এই ইনজেকশন দিতে হবে। এভাবে নিয়মিত চিকিৎসা করলে ধীরে ধীরে মুক্তি মিলবে এ সমস্যা থেকে। তথ্য সহায়তা : ডা. ওয়ানাইজ,সহযোগী অধ্যাপক, ফার্মাকোলজি বিভাগ, ঢাকা ন্যাশনাল মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল

স্বাস্থ্য-ভোগান্তি, নতুন পরিচিত অসুস্থতার কথা জানাতে অথবা চিকিৎসকের কাছ থেকে স্বাস্থ্য সংক্রান্ত পরামর্শ পেতেই-মেইলকরুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব এবং সংশ্লিষ্ট স্বাস্থ্য সমস্যার পরামর্শ দেবার প্রচেষ্টা থাকবে আমাদের।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড