• সোমবার, ৩০ মার্চ ২০২০, ১৬ চৈত্র ১৪২৬  |   ৩৫ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

আলঝেইমার্স প্রতিরোধে হলুদ : কতটা কার্যকরী?

২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১২:৩৯
হলুদ
ছবি : প্রতীকী

আমাদের চারপাশের পরিবেশের কারণে হোক, কিংবা খাদ্যাভ্যাসের কারণে- মানুষের স্মৃতিশক্তিজনিত সমস্যাগুলো একটু একটু করে যেন বেড়েই চলেছে। বিশেষ করে, আলঝেইমার্স ডিজিজে ভোগার সম্ভাবনাটাও বাড়ছে তুমুল গতিতে। এই মানসিক সমস্যা দূর করতে চিকিৎসক রয়েছেন। আছে নানারকম ওষুধ আর শরীরচর্চাও। 

কিন্তু আজ এমন এক উপাদানের কথা বলব যেটি আলঝেইমার্সকে প্রতিরোধ করতে অনেক বেশি কার্যকরী হতে পারে বলে ধারণা করছেন চিকিৎসকেরা। আর সেটি হলো হলুদ।

খাবারে আমরা হলুদ মোটামুটি সবাই ব্যবহার করি। বিশেষ করে, খাবারে রঙ আনতে এবং স্বাদকে বাড়িয়ে দিতে হলুদ নামের মশলাটির জুড়ি নেই। কিন্তু এই হলুদ কি আসলেই আলঝেইমার্স নামের মানসিক রোগটিকে সারিয়ে তুলতে পারে? 

আলঝেইমার্স কী?

আলঝেইমার্স সম্পর্কে সবাই কিছুটা হলেও ধারণা রাখেন। এটি হলো স্মৃতিশক্তিজনিত এমন এক সমস্যা যার মূলে রয়েছে স্নায়ুবৈকল্য। স্নায়ুসংক্রান্ত সমস্যার কারণে এক্ষেত্রে একজন মানুষ দ্বিধায় ভোগেন এবং ভুলে যান। যদিও আলঝেইমার্স কেন হয় তা নিয়ে নিশ্চিত জানা যায় না। তবে ধারণা করা হয় যে, মস্তিষ্কে যখন প্রোটিন অ্যামিলয়েড-বেটা জমতে শুরু করে তখন এটি স্নায়ুর নানারকম স্বাভাবিক কাজকে বাধা দিতে থাকে। এর ফলে মস্তিষ্ক সঠিকভাবে কাজ করতে পারে না। 

আলঝেইমার্স প্রতিরোধে কোনো একটি নির্দিষ্ট উপায় নেই। কারণ জানা না থাকায় চিকিৎসকেরা এই সমস্যাটি যেন বেড়ে না যায় এজন্য রোগীকে নানাবিধ ওষুধ এবং পথ্য দিয়ে থাকেন। তবে গবেষকদের মতে, কারকিউমিন নামক একটি উপাদান মানুষের মস্তিষ্কে তৈরি হওয়া আলঝেইমার্স ডিজিজকে প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে। 

একদল বয়স্ক মানুষের শরীরে কারকিউমিন ব্যবহার করে তারপর এই সিদ্ধান্তে পৌঁছেছেন তারা। এছাড়া, এই কারকিউমিনের নেতিবাচক কোনো প্রতিক্রিয়াও নেই। আর এই কারকিউমিনের বড় একটি উৎস হলো আমাদের খুব পরিচিত মশলা হলুদ। 

হলুদ কীভাবে তৈরি হয়?

হলুদকে নিশ্চয় প্যাকেটে বা কৌটোয় দেখেই অভ্যস্ত আপনি। কিন্তু, হলুদের রয়েছে রোগ প্রতিরোধক ক্ষমতাও। হলুদ মূলত জিঞ্জার গোত্রের একটি গাছ। শ্বাসকষ্ট, ব্যথা, আর্থ্রাইটিসের মতো সমস্যা দূরীকরণে সবসময় হলুদ ব্যবহার করা হয়েছে। বিশেষ করে, এশিয়া ও মধ্য আমেরিকায় হলুদ বহুল ব্যবহৃত একটি উপাদান। ত্বকের নানারকম সমস্যার সমাধানে হলুদ ব্যবহার করা হয়েছে অনেকসময়। তবে আলঝেইমার্স প্রতিরোধেও যে এটি কার্যকরী হতে পারে সেটা মানুষের কাছে একেবারেই নতুন একটি ব্যাপার। 

মস্তিষ্কের যে কোনো সমস্যায় হলুদ কীভাবে কার্যকরী ভূমিকা রাখবে?

ইতোমধ্যেই জেনে গিয়েছেন যে, হলুদে কিউকারমিন রয়েছে। আর এখন পর্যন্ত গবেষকদের পাওয়া তথ্যানুসারে, এটি যে কোনো প্রদাহ দূর করতে সাহায্য করে। আর আলঝেইমার্স বা মস্তিষ্কের এ সংক্রান্ত সমস্যাগুলোর মূল কারণ না বুঝতে পারলেও গবেষকেরা নিশ্চিত যে, এর পেছনে প্রদাহজনিত সমস্যা রয়েছে। আর মস্তিষ্কের স্মৃতিহীনতাকে হলুদ এবং এর ভেতরে থাকা কিউকারমিন সহজেই প্রতিরোধ করতে পারে। 

২০১৮ সালে আমেরিকান জার্নাল অব গেরিয়াট্রিক সাইকিয়াট্রিতে প্রকাশিত একটি পরীক্ষা অনুসারে, ৫১ থেকে ৮১ বছর বয়স্ক যেসব আলঝেইমার্সহীন ব্যক্তিকে ৯০ মিলিগ্রামের থেরাকারমিনযুক্ত সাপ্লিমেন্ট দেওয়া হয়েছে তাদের প্রত্যেকেরই মানসিক ক্ষমতা বেড়ে গিয়েছে। 

টিউমেরিক ট্যাবলেট : জেনে নিন দরকারী তথ্য

খাবারে আপনি হলুদ ব্যবহার করতেই পারেন। তবে সেটা যদি না করতে চান, তবে আপনি টিউমেরিক ট্যাবলেট খেতে পারেন। সেক্ষেত্রে মনে রাখবেন যে-

১। এটি ক্যাপসুল, ট্যাবলেট ইত্যাদি শুষ্ক প্রক্রিয়ায় গ্রহণ করা হয়।
২। হলুদ শরীরের জন্য নিরাপদ হলেও নির্দিষ্ট মাত্রার বেশি গ্রহণ না করার চেষ্টা করুন।
৪। সবার শরীরের সঙ্গে হলুদ স্বাভাবিকভাবে যায় না। তাই, চিকিৎসকের সঙ্গে পরামর্শ করে এই সাপ্লিমেন্ট নিন।

আরও পড়ুন : হলুদে বিষ!

আর অবশ্যই সাপ্লিমেন্ট বা হলুদ নিয়মিত গ্রহণের নির্দিষ্ট সময় পর চিকিৎসকের সঙ্গে দেখা করে আদৌ আপনার মস্তিষ্কের কার্যক্রমে কোনো পরিবর্তন এসেছে কিনা তা নিশ্চিত করুন। এতে করে আপনার মানসিক স্বাস্থ্য যেমন ভালো থাকবে, তেমনি প্রাত্যহিক জীবনযাপন করাও অনেক বেশি সহজ হয়ে পড়বে।

সূত্র- এভরিডেহেলথ

ওডি/এনএম

স্বাস্থ্য-ভোগান্তি, নতুন পরিচিত অসুস্থতার কথা জানাতে অথবা চিকিৎসকের কাছ থেকে স্বাস্থ্য সংক্রান্ত পরামর্শ পেতেই-মেইলকরুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব এবং সংশ্লিষ্ট স্বাস্থ্য সমস্যার পরামর্শ দেবার প্রচেষ্টা থাকবে আমাদের।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড