• শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৫ আশ্বিন ১৪২৬  |   ৩২ °সে
  • বেটা ভার্সন

নারী থাকুন নারীর পাশে

  সাদিয়া ইসলাম বৃষ্টি

১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৩:৫৬
নারী
ছবি : প্রতীকী

প্রচলিত ধারণা সবার মধ্যেই রয়েছে যে, একজন নারী আরেকজন নারীর বন্ধু হয়ে, সঙ্গী হয়ে তার খারাপ সময়ে পাশে থাকতে পারেন না। নারী মানেই নারীর শত্রু। এর সবটাই কিন্তু মানুষের মস্তিষ্কপ্রসূত ভ্রান্ত ধারণা। নারী হয়ে অন্য একজন নারীকে আপনিই ভালো বুঝতে পারবেন। আপনাদের অনুভূতি ক্ষমতা প্রবল বিধায় প্রয়োজনের সময়ে ঠিক কীভাবে পাশে থাকা যায় সেটাও আপনার চাইতে ভালো কেউ বুঝতে পারবে না। মানসিক বন্ধন ভেঙে দিয়ে সামনে এগিয়ে আসুন। নারীর হয়ে অন্য নারীর পাশে থাকুন-

উৎসাহ জুগিয়ে- 

কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়ার সময়, নতুন কিছু করার সময় মানুষের উৎসাহ দেওয়ার মতো কাউকে প্রয়োজন হয়। এমন কোনো সময়ে যদি কোনো নারী আপনার কাছে মতামত জানতে চায়, তাহলে তাকে ভয় না দেখিয়ে উৎসাহ দিন। আপনি কীভাবে তাকে তার সিদ্ধান্ত বাস্তবে কাজে লাগাতে সাহায্য করতে পারবেন সেটা জানান। 

কথা শুনে- 

অনেক সময় কারো জন্য অনেক বেশি ভালোলাগার ও উপকারী কোনো কাজ করা যায় তার কথা মন দিয়ে শুনে। না, গল্প করার কথা বলা হচ্ছে না। আপনার মনে হয়তো অনেক কথা জমে আছে। পাশের মানুষটির কথা শুনে হয়তো অনেক কথা বলতে ইচ্ছে করছে আপনারও। ইচ্ছেকে দমিয়ে সামনের মানুষটির কথা মন দিয়ে শুনুন। আর কিছু নয়, কেউ আপনার কথা শুনছে- এটাই মানসিক শান্তি প্রদান করে অনেক বেশি।

সাহায্য করে- 

মনে করুন, আপনার অফিসে নতুন একজন সহকর্মী যোগ দিয়েছেন। আপনি ভালো জানেন আপনার অফিসের পরিবেশ সম্পর্কে, কাজ সম্পর্কে। নতুন এই নারী কর্মীকে আপনার জানা তথ্যগুলোর মাধ্যমে সাহায্য করুন। 

সময় দিয়ে-

আপনার পরিচিত নারী যদি তার জীবন নিয়ে অসুখী থাকেন, তাহলে একটু সময় দিন তাকে। পরিকল্পনা করুন। ঘুরতে যান। তাকে তার ভালোলাগার দিনগুলো ফিরিয়ে দিন। দেখবেন, আপনি এবং আর পাশের নারী বন্ধু- দুজনেরই এতে ভালো লাগছে।

প্রশংসা করে-

মনে করুন, আপনার মন অসম্ভব খারাপ। এই সময় কেউ যদি আপনাকে আজ অনেক সুন্দর দেখাচ্ছে বললে আপনি কি আরও বেশি মন খারাপ করবেন? উঁহু! আপনার মন এতে করে একটু হলেও ভালো হয়ে যাবে। ঠিক একই কাজটি আপনার পাশের নারীর জন্য করুন। একটু তাকে পর্যবেক্ষণ করুন। তার ভালো কোনো দিক নিয়ে দুটো কথা বলুন এবং সেই কথাগুলো হালকাভাবে নয়, সম্মানের সাথে বলুন। এই সাহায্যটিও কিন্তু কম কিছু নয়!

বন্ধুত্ব তৈরি করে-

নারীরা অনেকেই জীবনে সত্যিকারের নারী বন্ধু খুঁজে পান না। বন্ধু তো বন্ধুই। তার আবার সত্যি আর মিথ্যে কী! নারীদের সাথে বন্ধুত্ব গড়ে তুলুন। হয়তো আপনারা প্রতিযোগিতা করছেন একে অন্যের বিরুদ্ধে। তবে বন্ধুত্বটা অটুট রাখুন। এতে করে সফলতা আরো সহজেই ধরা দেবে। প্রয়োজনে নিজেদের জন্য কোনো গ্রুপ খুলে ফেলতে পারেন। এতে করে মানসিকভাবে আপনি শান্তিতে থাকবেন, ভালো থাকবেন। সাহায্যটাও পাবেন পুরোদমে। পৃথিবীর পথে চলাটা খুব একটা সহজ কাজ নয়। এমন কিছু বন্ধু আর সাহায্য পাওয়া এক্ষেত্রে অবশ্যই অনেক বড় একটি ব্যাপার।

অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে-

কোনো ইভেন্টে অংশ নিচ্ছেন? অন্য নারীদের সে কথা জানান। তাদেরও অংশ নিতে বলুন। এতে করে বন্ধুত্ব, ভালোবাসা- এর সবটাই আরো বাড়বে। আপনার পাশের নারীটি আপনাকে ভরসা করতে পারবেন। মানসিকভাবে সুস্থ থাকবেন আরও বেশি। 

তাহলে, শুরুটা হোক পরিবার থেকেই। অন্য নারীদের পাশে থাকার আগে নিজের পরিবারের নারীদের পাশে থাকুন। মা, নানী বা দাদি- সম্পর্ক যেটাই হোক, তাকে লক্ষ্য করুন। তার ভালোলাগার ব্যাপারগুলো সামনে ধরুন। একবার জিজ্ঞেস করুন, তার কি কোনো প্রয়োজন রয়েছে? তাকে সময় দিন। 

একজন নারী হয়ে আপনার চাইতে আরও ভালো করে কেউ অন্য নারীকে বুঝতে পারবে না। এই বিশ্বাসটুকু রেখে সামনে পথ চলুন। 

সূত্র- ব্রাইটসাইড

ওডি/এনএম 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড