• রবিবার, ২৫ আগস্ট ২০১৯, ১০ ভাদ্র ১৪২৬  |   ৩৩ °সে
  • বেটা ভার্সন

পাশ্চাত্য দেশগুলো সম্পর্কে যে তথ্যগুলো অবাক করবে আপনাকে!

  ফিচার ডেস্ক

০২ আগস্ট ২০১৯, ০৯:৫৪
আমেরিকা
সবচেয়ে বেশি গাছ রয়েছে রাশিয়ায়; (ছবি- ইন্টারনেট)

দ্বিজেন্দ্রলাল রায় রচিত গানের ভাষায় বলা হয়, ‘ধনধান্যে পুষ্পে ভরা আমাদের এই বসুন্ধরা।’ সত্যিই তাই। কত অজানায় ঠাসা আমাদের এই ধরণি। কোনো দেশ অবাক করে প্রাকৃতিক সৌন্দর্য দিয়ে, কেউবা অবাক করে নিয়ম দিয়ে। একেক দেশের একেক বিষয় সম্পর্কে আমরা জানি আর অবাক হয়ে বলি, ‘এমনও হয়!’

পৃথিবীতে অগণিত অবাক করার মতো বিষয় রয়েছে। প্রতিনিয়ত নতুন নতুন কিছু জমাও হচ্ছে। আবার এমন অনেক বিষয় রয়েছে যা দারুণ উপভোগ্য। আমেরিকার নাম তো শুনেছেনই। আমেরিকাসহ পাশ্চাত্য দেশগুলো সম্পর্কে এমন কিছু মজাদার ও অবাক করা তথ্যই আজ আমরা জানব- 

গাছের সংখ্যা- 

গাছ আমাদের পরম বন্ধু। পৃথিবীকে বাঁচাতে গাছের বিকল্প নেই। তাইতো সভা সেমিনার করেও বলা হয়, ‘গাছ লাগান, পরিবেশ বাঁচান’। পৃথিবীতে গাছের সংখ্যা কত জানেন? প্রায় তিন দশমিক শূন্য চার ট্রিলিয়ন। অর্থাৎ, তিন লক্ষ চার হাজার কোটি। সবচেয়ে বেশি গাছ রয়েছে রাশিয়াতে। এই তালিকায় পর্যায়ক্রমে রয়েছে কানাডা, ব্রাজিল ও আমেরিকার নাম। 

তবে এর চেয়েও মজার একটি তথ্য জানাই আপনাদের। সম্প্রতি এক টুইট বার্তায় বলা হয়েছে, একটি মিল্কি ওয়েতে যত তারা রয়েছে তার চেয়েও বেশি গাছ রয়েছে পৃথিবীতে এবং তারা পৃথিবীর জন্য দারুণভাবে কাজ করছে। এই টুইট থেকে বোঝা যায়, পৃথিবীতে থাকা গাছের পরিমাণ এখনো আশঙ্কাজনক নয়। 

সেরা নাম যা- 

সম্প্রতি এক গবেষণায় দেখা গেছে আমেরিকাসহ পাশ্চাত্য দেশগুলোতে ছেলেদের জন্য সর্বোচ্চ নির্ধারিত নাম ‘জেমস’ আর মেয়েদের জন্য সর্বোচ্চ নির্ধারিত নাম ‘ম্যারি’। পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত এক শতাব্দিতে প্রায় সাড়ে তিন মিলিয়ন মেয়ে শিশুর নাম রাখা হয়েছে ‘ম্যারি’। আর কতগুলো ছেলের নাম জেমস জানেন? প্রায় পাঁচ লাখ! ‘দ্য ইউনাইটেড স্টেটস সোশ্যাল সিকিউরিটি অ্যাডমিনিস্ট্রেশন’ ১৯১৭ থেকে ২০১৬ সালের নিবন্ধিত নামগুলো নিয়ে এই পরিসংখ্যান করেন। 

এত স্বর্ণ! 

গবেষণা অনুযায়ী আমেরিকায় অবস্থিত সেন্ট্রাল ব্যাংকে সঞ্চিত স্বর্ণের পরিমাণ কত জানেন? ৮১৩৩ দশমিক ৫ মেট্রিক টন। অর্থাৎ, ২০১৭ সালে করা হিসাব অনুযায়ী সবচেয়ে বেশি পরিমাণ স্বর্ণ মজুদ রয়েছে আমেরিকায়। তবে এই তালিকায় খুব দ্রুত উপরে উঠছে চীন। ২০১৭ সালে দেশটি ষষ্ঠ অবস্থানে থাকলেও খুব তাড়াতাড়ি প্রথম স্থান দখল করবে। এমনটাই মনে করেন বিশেষজ্ঞরা। 

বাড়ছে জনসংখ্যা- 

পৃথিবীর জনসংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলেছে। ‘ইউনাইটেড ন্যাশন’-এর মানব সংখ্যা নিয়ে করা এক পরিসংখ্যান অনুযায়ী বর্তমানে পৃথিবীর জনসংখ্যা ৭ দশমিক ৫ বিলিয়ন। ২০৩০ সালে যা হবে ৮ দশমিক ৫ বিলিয়ন আর ২১০০ সালে তা গিয়ে দাঁড়াবে ১১ দশমিক ২ বিলিয়নে। আর এভাবে প্রতিনিয়ত তা বাড়তেই থাকবে। 

টেলিভিশন না রেডিও?

পাশ্চাত্য দেশগুলোতে প্রতিদিন টেলিভিশন দেখা হয় প্রায় ৫ ঘণ্টা। বয়স বাড়ার সাথে এই টিভি দেখার সময় বাড়তে থাকে। অর্থাৎ, ৬৫ বা তার চেয়ে বেশি বছর বয়সীদের ক্ষেত্রে প্রতিদিন টিভি দেখার সময় হয় প্রায় ৭ ঘণ্টা। তবে অবাক করা বিষয় হলো টেলিভিশনের চাইতেও সেখানে বেশি জনপ্রিয় হলো রেডিও। ২০১৬ সালের হিসাব অনুযায়ী, সেখানে রেডিও শ্রোতার সংখ্যা বছরে ২৪০ মিলিয়ন। দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা টেলিভিশনের দর্শক প্রায় ২২৬ মিলিয়ন। 

সম্পদের পাহাড়! 

ফরচুন ডট কমের এক পরিসংখ্যান অনুযায়ী প্রতিদিন প্রায় ১৭০০ আমেরিকান মিলিয়নারের খাতায় নাম লেখাচ্ছেন। আপনি হয়তো শুনে অবাক হবেন, ২০১৭ সালের পরিসংখ্যান অনুযায়ী প্রায় ৮ বিলিয়ন আমেরিকানের ১ মিলিয়নের বেশি অর্থ সম্পত্তি রয়েছে। অর্থাৎ, পৃথিবীর অন্যান্য দেশের তুলনায় আমেরিকানদের একটু বেশি বিত্তবান বলা চলে। 

আমেরিকাসহ পাশ্চাত্য দেশগুলো সম্পর্কে এ তথ্যগুলো কি আগে জানা ছিল আপনার? 

সূত্র- বেন্টার। 

ওডি/এনএম

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড