• সোমবার, ০১ জুন ২০২০, ১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

মানবসেবায় অদম্য 'বর্ণালী বেলকুচি'র গল্প 

  আব্দুল জব্বার

১২ মে ২০২০, ২২:৪২
বর্ণালী বেলকুচি
বর্ণালী বেলকুচি সংগঠনের সদস্যরা

প্রিয় মাতৃভূমির ইতিহাস, ঐতিহ্য, প্রাকৃতিক সৌন্দর্য, সংস্কৃতি, মানুষের জীবন যাত্রার বিচিত্রতা, শিল্প সাহিত্য, মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস, গৌরবময় তাঁত শিল্পের কথা বাংলাদেশ তথা পুরো বিশ্বের কাছে তুলে ধরতে সিরাজগঞ্জ জেলার বেলকুচি থানার অন্তর্গত "বর্ণালী বেলকুচি" নামের একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন প্রতিষ্ঠিত করা হয় ৫ জানুয়ারি ২০১৮ সালে। দেশের বড় বড় অনলাইন ভিত্তিক স্বেচ্ছাসেবী  গ্রুপ দেখে উদ্বুদ্ধ হয়ে মোহাম্মাদ জাকারিয়া ও শাকিল আহমেদ শুভ 'মাটির ঘ্রাণে শেকড়ের টানে' স্লোগানকে সামনে রেখে তাদের পথচলা শুরু করেন।

গত দুই বছরে তাদের কাজের সাফল্যে দেখে স্থানীয় ছাত্র, তরুণ, চাকুরীজীবী স্বতঃস্ফূর্তভাবে এগিয়ে এসেছেন। যুক্ত হচ্ছেন তাদের নানান কর্মসূচিতে। বেলকুচি উপজেলার মানুষের বিপদে আপদে সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিতে সদা প্রস্তুত তারা। যেহেতু তারা স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন সেহেতু তাদের অর্থনৈতিক সীমাবদ্ধতার মধ্যেও প্রতিনিয়ত মানবিক কাজ করে যাচ্ছে। মূলত নিজদের সদস্যদের কাছ থেকে পাওয়া আর্থিক সহায়তায় তাদের কার্যক্রম পরিচালিত হয়। তবে সদস্যের বাইরেও যদি কেউ নিজ থেকে কোন ধরনের সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন তাহলে সেটা তারা গ্রহণ করে থাকে।

 

স্বাস্থ্য বিধি মেনে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করছেন "বর্ণালী বেলকুচি" স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সদস্যরা

 

'বর্ণালী বেলকুচি'র প্রতিষ্ঠাতা সদস্য শাকিল বলেন, দুঃখের বিষয় আমাদের সমাজপতিরা আমাদের তেমন সহায়তা করে না বরং সমালোচনা করে। সমাজের নির্দিষ্ট শ্রেণীর কিছু লোক আছে তারা ভাল কাজে বাহবা তো দেয় না বরং আমাদেরকে পিছুটান দেয়। আমাদের সমাজে মুক্ত চিন্তার বড়ই অভাব। তবে আমরা সকল সমালোচনা পিছনে ফেলে গরিব, অসহায়, সুবিধাবঞ্চিত মানুষের মুখে হাসি ফোটাতে ছুটে চলি।'

সংগঠনটির পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি  সমাজ সেবক হাফিজুর রহমান জানান, সমাজের সফলতার চিত্র তুলে ধরাই আমাদের কাজ। ভবিষ্যতে "বর্ণালী বেলুকচি" কে এমন একটা প্ল্যাটফর্ম হিসেবে দাড় করাতে চাই যেন আমাদের মাধ্যমে উপজেলার প্রত্যেক মানুষ সাহায্য সহযোগিতা পেয়ে থাকে। লুকায়িত প্রতিভা, মানবিক কাজ, উন্নয়নমূলক বিভিন্ন কর্মসূচি আমাদের সংগঠনের মাধ্যমে তুলে ধরতে চাই পুরো পৃথিবীর কাছে। দেশের এ ক্রান্তিলগ্নে সবাইকে যার যার জায়গা থেকে সহযোগিতার হাত বাড়ানোর আহবান জানান তিনি।

বর্তমান করোনা ভাইরাসের কঠিন পরিস্থিতিতে ব্যস্ততার শেষ নেই এ সংগঠনের কর্মীদের। উপজেলার বিভিন্ন গ্রাম, মহল্লায় নানাবিধ কাজে নিজদের উজাড় করে দিচ্ছেন আর্ত মানবতার সেবায়। নিজেদের কার্যক্রমের পাশাপাশি সরকারি বেসরকারি বিভিন্ন সামাজিক কাজে সংগঠনের সদস্যগণ ভলান্টিয়ারের দায়িত্বও পালন করে থাকে।

করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের শুরু থেকেই গরিব, নিন্মবিত্ত  ৩৫০ জন রিক্সা ভ্যান চালক পরিবারের মাঝে হ্যান্ড গ্লোব, সাবান, মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ করেছে। এছাড়াও এলাকার সমেশপুর, রাজাপুর, মকিমপুর, রান্ধুনিবাড়ি, তামাই, কাজীপুরা,  আদাচাকি, মাইঝাইল,সুবর্ণ সাড়া, আগুরিয়া সহ আরও কয়েকটি গ্রামের মসজিদ, মন্দির, কমিউনিটি ক্লিনিক, হাট-বাজারে জীবাণু নাশক স্প্রে করেছে। ইতিমধ্যে প্রায় ৫০০ অসচ্ছল, দরিদ্র ও সুবিধাবঞ্চিত পরিবার কে বাড়ি বাড়ি গিয়ে চাল, ডাল, তেল, লবণ, আলু, সাবান, মাস্ক, সচেতনতা মূলক লিফলেটসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্র বিতরণ করেছে।

 

জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সংগঠনের সদস্যরা অসহায় মানুষদের বাড়িতে গিয়ে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্র দিচ্ছেন 

 

জরুরি  সেবা মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে ইমার্জেন্সি সার্ভিস চালু করা হয়েছে যেখান ভুক্তভোগী ফোন কলের মাধ্যমে জরুরি সহায়তা পাচ্ছেন। সামনে এমন আরও বড় পরিসরের উদ্যোগের পরিকল্পনা রয়েছে বর্ণালী পরিবারের। অনেক সীমাবদ্ধতার মধ্যেও তরুণ প্রজন্মকে সাথে নিয়ে দেশ ও জাতির স্বার্থে দল, মত, ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে সকলের তরে কাজ করে চেতে চায় মানব সেবায় নিয়োজিত স্বেচ্ছাসেবী এ সংগঠনটি। আর এ জন্য সমাজের সর্বস্তরের জনগণকে পাশে থাকার আহবান জানান যমুনা পাড়ের মানবপ্রেমী, অকুতোভয়, সংগ্রামী, এ নবযৌবনার দল।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড