• শুক্রবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১০ ফাল্গুন ১৪২৫  |   ২০ °সে
  • বেটা ভার্সন

যে নারীর মল ব্যবহার করা হয় চিকিৎসায়

  অধিকার ডেস্ক    ২৮ জানুয়ারি ২০১৯, ১০:৩৭

ক্লডিয়া ক্যাম্পেনেলা
ক্লডিয়া ক্যাম্পেনেলা (ছবি : বিবিসি)

যুক্তরাজ্যের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রশাসনিক কাজ করেন ক্লডিয়া ক্যাম্পেনেলা। তবে এ কাজের বাইরে অবসরে তিনি যে কাজ করেন তা শুনলে অবাক হবেন আপনিও। কাজের ফাঁকে ক্লডিয়া নিজের মল দান করেন অন্যদের। 

কারণ, চিকিৎসকরা তার মলে খুঁজে পেয়েছেন এমন উৎকৃষ্ট মানের ব্যাকটেরিয়া যা অন্যের দেহে প্রতিস্থাপনের মাধ্যমে নানা ধরনের পেটের রোগের চিকিৎসা করা সম্ভব। বর্তমানে ৩১ বছর বয়স ক্লডিয়ার। তিনি মল দানের ব্যাপারটিকে রক্তদানের মতোই স্বাভাবিক মনে করেন। 

তার কিছু বন্ধু এই কাজটি উদ্ভট ও জঘন্য মনে করেন। তবে এসব কথা তাকে বিচলিত করে না। ক্লডিয়া বলেন, ‘এটি দান করা বেশ সহজ এবং এর মাধ্যমে চিকিৎসা গবেষণায় অবদান রাখতে পেরে আমি খুশি।’

‘মল প্রতিস্থাপন’ কীভাবে কাজ করে? 

মানুষের পেটের ভেতর নাড়িভুঁড়ি অর্থাৎ অন্ত্রের মধ্যে অসংখ্যরকম অণুজীব বাস করে। বর্তমান সময়ে মানুষ যে অ্যান্টিবায়োটিক খায় তা অনেকসময় শরীরের ভালো ও খারাপ দুই ধরনের ব্যাকটেরিয়াকেই নির্বিচারে মেরে ফেলে। 

দেহের অভ্যন্তরীণ ব্যাকটেরিয়া নির্মূল হয়ে যাওয়ার পর যে পরিবেশ সৃষ্টি হয় তাতে 'ক্লস্ট্রিডিয়াম ডিফিসিল' নামে বিশেষ এক ধরনের ব্যাকটেরিয়া বংশবৃদ্ধি ঘটাতে থাকে। আর এই ব্যাকটেরিয়ার ফলে ডায়েরিয়া, জ্বর, পেট ব্যথার মতো নানা সমস্যা দেখা দেয়। এমনকি অনেকক্ষেত্রে অবস্থা এতই জটিল হয় যে রোগীর মৃত্যুও ঘটতে পারে। 

এমন পরিস্থিতিতে আরও অ্যান্টিবায়োটিক দেওয়ার বিকল্প হিসেবে বেরিয়ে এসেছে ‘মল প্রতিস্থাপন’ চিকিৎসা। এ ক্ষেত্রে একজন সুস্থ ব্যক্তির মল থেকে ভালো ব্যকটেরিয়াগুলো সংগ্রহ করে তা রোগীর মলদ্বারের মাধ্যমে তার দেহে প্রবেশ কারানো হয়।

জানা যায় ক্লডিয়ার মলে এই ভালো ব্যাকটেরিয়া এত বেশি পরিমাণ আছে যা রীতিমতো বিরল। বিজ্ঞানীরা একে বলছেন ‘সুপার পু’ (super poo) - যার মধ্যে ভালো ব্যাকটিরিয়ার চমৎকার সমন্বয় ঘটেছে এবং ক্লডিয়া হচ্ছেন এই মলের একজন ‘সুপার ডোনার’ বা দাতা।

ক্লডিয়া একজন ভেজিটারিয়ান অর্থাৎ নিরামিষভোজী। আর এই নিরামিষভোজীরাই হতে পারেন ভালো মল দাতা। 

সূত্র : বিবিসি বাংলা
 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড