• সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯, ২৯ আশ্বিন ১৪২৬  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

৫০ বছর পর যে দেশে পানি থাকবে না

  ভিন্ন খবর ডেস্ক

১০ অক্টোবর ২০১৯, ১৬:০৫
পানি
পানির কল (ছবি : সংগৃহীত)

বিশুদ্ধ পানির অপর নাম জীবন। মানুষ অনেক কিছু না খেয়ে বাঁচতে পারে, কিন্তু পানি ছাড়া প্রাণে বেঁচে থাকা মোটেই সম্ভব না। গোটা বিশ্বজুড়ে জলবায়ুর পরিবর্তনের কারণে মধ্যপাচ্যের দেশগুলোতে বেড়েই চলছে গরমের তীব্রতা। একইসঙ্গে কমছে বৃষ্টিপাত। জলবায়ুর পরিবর্তনের ফলে মধ্যপ্রাচ্যের দেশ জর্ডানে পরিবেশের বিরূপ প্রভাব লক্ষ করা যাচ্ছে। জানা গেছে, জর্ডানে ক্রমেই ফুরিয়ে যাচ্ছে পানি। আগামী ৫০ বছরে দেশটিতে পানি ফুরিয়ে যাবে!

বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, জর্ডানে প্রতি বছর ডেড সিতে পানির স্তর এক মিটার করে কমছে। জর্ডান নদীর স্রোতধারা নেই বললেই চলে। নদীটির পানি শুকিয়ে যাচ্ছে বলা যায়।

তাপমাত্রা বৃদ্ধির কারণে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত দেশটির গ্রামাঞ্চল। কৃষিকাজে পানির সেচ দিতে পারছেন না কৃষকরা। গ্রামগুলোর পরিস্থিতি আরও খারাপ অবস্থার দিকে যাচ্ছে। অনেক বাড়িতে সপ্তাহে মাত্র কয়েক ঘণ্টা করে পানি থাকে। পানি সঙ্কটের কারণে অসংখ্য মানুষ গ্রাম ছেড়ে শহরে চলে যাচ্ছেন বলে জানা গেছে।

দেশটির সরকার পানি সঙ্কট মেটাতে ভূগর্ভের (মাটির নিচ) পানি তুলছে। তবুও অবস্থা মোকাবিলায় হিমশিম খাচ্ছে তারা। পানির স্বল্পতা পূরণে সাগরের পানিকে লবণমুক্ত করার কথা ভাবছে দেশটি। 

বিজ্ঞানীরা বলছেন, ভূগর্ভের পানি দিয়ে খুব বড় জোর হলেও ৫০ বছর চলবে। জলবায়ুর পরিবর্তনের কারণে মধ্যপ্রাচ্যের কিছু অংশ ২০৫০ সালের পর জনবসতিহীন হয়ে যেতে পারে। 

তাদের ধারণা, আগামী ৫০ বছরে দেশটিতে পানি এত ফুরিয়ে যাবে যে তা আগের মতো পাওয়া যাবে না।

ওডি/টিএএফ

আপনার চোখে পড়া অথবা জানা অন্যরকম অথবা ভিন্ন স্বাদের খবরগুলোও আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ। তাই সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড