• রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৭ আশ্বিন ১৪২৬  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন

১০ পয়সা বিক্রি হলো ১১ কোটিরও বেশি দামে

  ভিন্ন খবর ডেস্ক

২১ আগস্ট ২০১৯, ১৭:৩৩
মুদ্রা
১৮৯৪ সালের এই মুদ্রাটিই উঠেছিল নিলামে। (ছবি : সিএনএন)

মাত্র ১০ সেন্টের একটি মুদ্রা বিক্রি হয়েছে  ১৩ লাখ ২০ হাজার মার্কিন ডলারে। বাংলাদেশি মুদ্রাতে যার মূল্য ১১ কোটি ১৫ লাখ টাকারও বেশি। এমনই ঘটনা ঘটেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের শিকাগো শহরে। গত বৃহস্পতিবার নিলামে ওঠে এটি। ইউটাহ অঙ্গরাজ্যের ডেল লয় হ্যানসেন নামের এক ব্যক্তি কিনে নিয়েছেন এই মুদ্রাটি।

স্টেক বাওয়ারস গ্যালারিস নামের একটি নিলামকারী প্রতিষ্ঠান এই মুদ্রাটি নিলামে তোলে। প্রতিষ্ঠানটি জানায়, মুদ্রাটির এত দাম ওঠার কারণ হলো এটি অনেক পুরনো একটি মুদ্রা। ১৮৯৪ সালের ৯ জুন সান ফ্রান্সিসকোর টাঁকশালে এটি মুদ্রিত হয়েছিল। সারা পৃথিবীতে ১২৫ বছরের পুরোনো এই মুদ্রার মাত্র ৯টি পাওয়া যায়। এটি ১৮৯৪-এস বারবার ডাইম গ্রুপের একটি মুদ্রা। যা যুক্তরাষ্ট্রে মাত্র ২৪টি তৈরি হয়েছিল।

বিখ্যাত নকশাকার চার্লস ই বারবার ছিলেন এই মুদ্রার নকশাকার। মার্কিন টাঁকশালের অনেক মুদ্রারই তিনি নকশা করেছিলেন। এর আগেও ২০১৬ সালে একটি বারবার ডাইম মুদ্রা নিলামে তোলা হয়েছিল। সেই নিলামে সেটি আরও বেশি দামে বিক্রি হয়। সেই মুদ্রাটির দাম ছিল ২০ লাখ ডলার।

এই মুদ্রাটির ক্রেতা হ্যানসেন একজন পাঁড় মুদ্রা সংগ্রহকারী। রিয়াল সল্ট লেক এমএলএস নামক একটি ফুটবল ক্লাবের মালিক তিনি। এই ব্যবসায়ী এমন সব মুদ্রা নিয়ে একটি সংগ্রহশালা তৈরির পরিকল্পনা করছেন। মার্কিন টাঁকশালে তৈরি সব মুদ্রা থাকবে তার সেই সংগ্রহশালায়। আর এই কাজে তাকে সহায়তা করছেন বিরল মুদ্রাবিশেষজ্ঞ প্রতিষ্ঠান ডেভিড লরেন্স রেয়ার কয়েন্সের প্রেসিডেন্ট জন ব্রাশ। তিনি বলেন, "আমি হ্যানসেনকে  শিকাগোর নিলামে এই মুদ্রাটি কিনতে বলেছিলাম। আমি চাই সে তার লক্ষ্যে পৌঁছাক।"

ওডি/এসএম 

আপনার চোখে পড়া অথবা জানা অন্যরকম অথবা ভিন্ন স্বাদের খবরগুলোও আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ। তাই সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড