• মঙ্গলবার, ২১ মে ২০১৯, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬  |   ৩৩ °সে
  • বেটা ভার্সন

২৩ ঘণ্টা ৫ মিনিট রোজা থাকেন যারা

  লাইফস্টাইল ডেস্ক ১৪ মে ২০১৯, ২০:৪৫

ইফতার
দীর্ঘসময় রোজা পালন করেন শীতপ্রধান ফিনল্যান্ডের মুসলিমরা। (ছবি : দি আটলান্টিক)

চলছে পবিত্র রমজান মাস। সারা বিশ্বেই এ মাসে মুসলমানরা সিয়াম বা রোজা পালন করে থাকেন। ভোর রাত থেকে সূর্যাস্ত নাগাদ পানাহার থেকে বিরত থাকা রোজা রাখার প্রধান শর্তগুলোর একটি। আমাদের দেশে এ বছর গ্রীষ্মকালে রোজা হওয়ায় ১৪ থেকে ১৫ ঘণ্টা পানাহার থেকে বিরত থাকতে হচ্ছে। অনেকের জন্যই যা বেশ কষ্টসাধ্য। তবে জানলে অবাক হবেন বিশ্বের একটি দেশের মুসলমানরা রোজা থাকেন ২৩ ঘণ্টা ৫ মিনিট। ঠিকই পড়েছেন! ফিনল্যান্ডে রাত আসে মাত্র ৫৫ মিনিটের জন্য।

তবে এলাকা ভেদে রোজা রাখার সময় একটু এ দিক সে দিক হয়। তাও সর্বোচ্চ ঘণ্টাখানিক। ফিনল্যান্ডে এ বছর সবচেয়ে কম সময় রোজা থাকতে হচ্ছে যাদের তারাও ২২ ঘণ্টা ১২ মিনিট রোজা রাখছেন। রাজধানী শহর থেকে উত্তর দিকে গেলেই ধীরে ধীরে বেড়ে যায় রোজার সময়। বিশেষ করে ফিনল্যান্ডের উত্তরাঞ্চলের বৃহত্তম শহর উলুতে রোজা থাকতে হয় ২৩ ঘণ্টার চেয়ে মিনিট সাতেক কম। এক ঘণ্টার কম সময়ের মধ্যে রোজাদারদের ইফতার, মাগরিব, এশা, তারাবিহ পড়ে সেহেরি খেয়ে ফজরের নামাজ পড়তে হয়।

এত দীর্ঘ সময় রোজা থাকাটা অনেক মানুষের জন্যই বেশ কষ্টসাধ্য। এ বিষয়টি বিবেচনা করে সে দেশের অনেক মুসলমান পাশের দেশের রোজার সময়সূচি পালন করছেন। প্রতি বছরই ১৮ ঘণ্টার বেশি রোজা হলে ফিনল্যান্ডের অধিকাংশ মুসলমান পার্শ্ববর্তী দেশগুলোর রোজার সময় মেনে রোজা রাখতে শুরু করেন।

ফিনল্যান্ডের সর্ব উত্তরের শহর ল্যাপল্যান্ড। সেখানে বাস করা মুসলিমরা পাশের দেশ তুরষ্কের সঙ্গে মিল রেখে রমজানের সময় নির্ধারণ করেন। সেখানকার ইসলামী পণ্ডিতরা গত বছর থেকে মক্কা বা নিকটতম কোনো মুসলিম দেশের সময়সূচি অনুসরণ করার পরামর্শ দিয়েছেন ফিনল্যান্ডবাসীদের। তবে সবাই এই পরামর্শ মানছেন না। অনেকেই নিজেদের সময়েই রোজা পালন করছেন। আলেমদের মধ্যেও এ নিয়ে মত পার্থক্য রয়েছে।

উল্লেখ্য, ফিনল্যান্ডে দীর্ঘদিন ধরে সব রকম ইসলামী আচার অনুষ্ঠান নিষিদ্ধ ছিল। তবে ১৯২৫ সালে দেশটিতে আবার মুসলমানরা তাদের অধিকার ফিরে পায়। এখন এই দেশে ধীরে ধীরে মুসলমানদের সংখ্যা বাড়ছে সে নব্বই এর দশক থেকেই। শীত প্রধান এই দেশটির মোট জনসংখ্যা ৫০ লক্ষ। এর মধ্যে এক লক্ষের বেশী মানুষ ইসলাম ধর্ম পালন করে থাকেন।

ওডি/এসএম

আপনার চোখে পড়া অথবা জানা অন্যরকম অথবা ভিন্ন স্বাদের খবরগুলোও আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ। তাই সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড