• মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০১৯, ১১ আষাঢ় ১৪২৬  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন

২০৩০ সালে এ দুই অদ্ভুত ঘটনা ঘটবে ভারতে!

  অধিকার ডেস্ক    ০৭ নভেম্বর ২০১৮, ১২:৩৪

মস্তিষ্ক
ছবি : প্রতীকী

নিজেকে ‘টাইম ট্রাভেলার’ দাবি করছেন ভারতের এক তরুণ। ‘নোয়া’ নামের এই তরুণ জানাচ্ছেন যে ২০৩০ সাল থেকে ঘুরে এসেছেন তিনি। আর তার মতে ১২ বছর পর ভারতে দুটি অদ্ভুত ঘটনা ঘটবে। সম্প্রতি একটি অনলাইন ভিডিওতে ভারতের ভবিষ্যৎ সম্পর্কে এমন অদ্ভুত দাবি করেন তিনি। 

নোয়ার দাবি, তার হাতে রয়েছে একটি চিপ। আর বিশেষ চিপের মাধ্যমে তিনি দেখে এসেছেন ভারতের ভবিষ্যৎ। এ ব্যাপারে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম ‘এক্সপ্রেসে’ একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে। 

প্রতিবেদন অনুযায়ী নোয়ার দাবি, ১২ বছর পর ২০৩০ সালে ভারত একটি চিপ আবিষ্কার করবে যা শরীরের মধ্যে লাগিয়ে দেওয়া যাবে। আর এর মাধ্যমে মস্তিষ্কের সঙ্গে সংযোগ থাকবে ইন্টারনেটের। 

সে সময়ের মানুষের সঙ্গে কথা বলেছেন বলেও দাবি করেন নোয়া। তিনি বলেন, ‘আমি ওদের সঙ্গে কথা বলেছি। এটি প্রায় ভগবানের সঙ্গে কথা বলার মতো ব্যাপার।’

নোয়া জানান, ২০৩০ এ প্রযুক্তিগত দিক থেকে যুক্তরাষ্ট্রের চেয়েও এগিয়ে থাকবে ভারত। এমনকি নিজের হাতে একটি চিপ আছে বলে দাবি এই স্বঘোষিত টাইম ট্রাভেলারের। তার মতে ১২ বছর পর ভারতের সবচেয়ে বড় সমস্যা হবে দেশটির জনসংখ্যা। সে সময় নাকি ভারত বিনা পয়সায় মঙ্গল গ্রহে মানুষকে পাঠিয়ে সে সমস্যার সমাধান করবে। 

অনেকে নোয়ার দাবিকে স্বাগত জানালেও বেশির ভাগ মানুষই তার এই ভবিষ্যৎবাণীকে স্রেফ গল্প বলে উড়িয়ে দিচ্ছেন। কেননা সময় ভ্রমণ করার বিষয়টি এখনও অব্দি সাই ফাই বা কল্পবিজ্ঞানের গল্প/সিনেমায় দেখা গেছে। বিজ্ঞানীরা এ বিষয়ে গবেষণা করলেও বাস্তবে এর অস্তিত্ব এখনও খুঁজে পাওয়া যায়নি। 

আপনার চোখে পড়া অথবা জানা অন্যরকম অথবা ভিন্ন স্বাদের খবরগুলোও আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ। তাই সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড