• সোমবার, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ১ পৌষ ১৪২৬  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ফার্মেসিতে গিয়ে ওষুধ নিল হনুমান!

  ভিন্ন খবর ডেস্ক

১৭ নভেম্বর ২০১৯, ১৫:৪২
হনুমান
ফার্মেসিতে হনুমান (ছবি : সংগৃহীত)

একটি হনুমানের সঙ্গে লড়াই করে জখম অবস্থায় রক্তাক্ত অন্য আরেকটি হনুমান ওষুধের ফার্মেসিতে গিয়ে চিকিৎসা নিয়ে সবাইকে রীতিমতো অবাক করেছে।

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মল্লারপর স্টেশন চত্ত্বরে দুটি হনুমানের মধ্যে মারামারির এ ঘটনাটি ঘটেছে।

পরে মল্লারপর স্টেশন থেকে কিছু দূরে পঞ্চায়েত ভবনে গিয়ে ক্ষতস্থান থেকে রক্ত ঝরতে থাকা হনুমানটি ফার্মেসিতে বসে ওষুধ নেয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, আহত হওয়ার পর হঠাৎ একটি গাড়িতে চড়ে বসে জখম হনুমানটি। অসহায় দৃষ্টিতে গাড়ির যাত্রীদের গায়ে হাত দিয়ে হনুমানটি বোঝানোর চেষ্টা করে সে কাউকে আক্রমণ করবে না।

ওষুধের দোকানের মালিক আনাজুল আজিম বলেন, আহত হনুমানটি দোকানের সামনে বেঞ্চে বসে অপেক্ষা করছিল। দোকানের ভিড় একটু কমতেই লাফ দিয়ে কাউন্টারে উঠে বসে কোমরের নীচে ও শরীরের অন্য অংশে ক্ষতস্থানগুলো দেখাতে থাকে। আমার হাত ধরে এমন ভাব করে যেন চিকিৎসা চাইছে হনুমানটি।

শক্তিপদ মিস্ত্রি নামে এক যুবক ওই ফার্মেসিতে ওষুধ নিতে এসেছিলেন। তিনিও আহত হনুমানের ক্ষতস্থানে মলম ও ব্যান্ডেজ করায় সাহায্য করেন। ওষুধ লাগিয়ে ব্যান্ডেজ করে দেওয়ার পরেও ক্ষতস্থান গুলো বার বার দেখাতে থাকায় ওষুধ দোকানদার আনাজুল আজিমের মনে হয় ব্যথার জন্য এ রকম করছে হনুমানটি। পরে একটি কাপে পানি নিয়ে ব্যথা কমার ওষুধ খাওয়ানো হয় হনুমানটিকে। এছাড়াও চারটি কলা খাওয়ানো হয় তাকে।

এরপর কিছুক্ষণ বসে থেকে আনাজুল আজিমের কাঁধে হাত রেখে দোকানের কাউন্টার থেকে রাস্তায় গিয়ে আবারও একটি স্টেশনগামী গাড়িতে চড়ে বসে ওই হনুমানটি!

ওডি/টিএএফ

আপনার চোখে পড়া অথবা জানা অন্যরকম অথবা ভিন্ন স্বাদের খবরগুলোও আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ। তাই সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- inbox[email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪, ০১৯০৭৪৮৪৮০০ 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড