• মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর ২০১৯, ২৮ কার্তিক ১৪২৬  |   ২৫ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

মাদ্রাসার ৩ শিক্ষকের বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ

  শিক্ষা ডেস্ক

১৪ অক্টোবর ২০১৯, ১৩:১৫
ছবি : প্রতীকী

ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মোখলেছুর রহমানের সহযোগিতায় বগুড়ার সরকারি মুস্তাফাবিয়া আলিয়া মাদ্রাসার তিন শিক্ষকের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগ তুলেছেন শিক্ষার্থীরা। জেলা প্রশাসকের কাছে লিখিতভাবে এ সব বিষয়ে অভিযোগ করেছেন তারা।

অভিযুক্ত ওই তিন শিক্ষকের মধ্যে রয়েছেন- মাদ্রাসার আরবি ও ইসলাম শিক্ষা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক জি এম শামছুল আলম, একই বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আব্দুল জলিল ও প্রভাষক হোসেন ফেরদৌস।

জানা যায়, মাসিক পরীক্ষার নামে রসিদ ছাড়া টাকা উত্তোলন করে আত্মসাৎ, ক্লাসে অনুপস্থিতির জন্য টাকা আদায়, প্রাইভেট না পড়ার কারণে পরীক্ষায় ফেল করানো, ব্যক্তিগত কোচিংয়ে ভর্তি হতে বাধ্য করে ওই তিন শিক্ষক। এর প্রতিবাদে সম্প্রতি অধ্যক্ষের কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ মিছিল করে শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষার্থীদের অভিযোগে বলা হয়, এই প্রতিষ্ঠানে ছাত্রসংখ্যা ৯ শতাধিক। আলিমের শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে মাসিক পরীক্ষার নামে ২০০ টাকা করে আদায় করা হয়। মাসিক পরীক্ষায় অংশ না নেওয়ায় ২০০ থেকে ৮০০ টাকা পর্যন্ত জরিমানা আদায় করা হয়। ক্লাসে অনুপস্থিতির কারণেও একইভাবে টাকা নেয়া হয়। তাঁদের কাছে প্রাইভেট না পড়লে পরীক্ষায় ফেল করানো হয়।

এ বিষয়ে কয়েকজন শিক্ষার্থী বলেন, ওই তিন শিক্ষকের অত্যাচারে ১৪ জন শিক্ষার্থী মাদ্রাসা থেকে টিসি নেওয়ার আবেদন করেছে। তবে তাদের এখনো টিসি দেওয়া হয়নি।

জানতে চাইলে এ প্রসঙ্গে আরবি ও ইসলাম শিক্ষা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক জি এম শামছুল আলম জানান, কিছু শিক্ষকের ইন্ধনে শিক্ষার্থীরা আমাদের নামে মিথ্যা অভিযোগ তুলেছে।

এ বিষয়ে মাদ্রাসার ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মোখলেছুর রহমান জানান, শিক্ষার্থীদের দেওয়া অভিযোগের ব্যাপারে তিনি কিছু জানেন না। যারা টিসির জন্য আবেদন করেছিল, তাদের বোঝানো হয়েছে। সে জন্য টিসি আর দেওয়া হয়নি।

ওডি/আরএআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড