• মঙ্গলবার, ০৪ আগস্ট ২০২০, ২০ শ্রাবণ ১৪২৭  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

উচ্চ মাধ্যমিকে শিক্ষার্থীদের শাখা নির্ধারিত হবে

  শিক্ষা ডেস্ক

১৬ জানুয়ারি ২০২০, ০৮:৩৩
শিক্ষা মন্ত্রণালয়
শিক্ষা মন্ত্রণালয় (ছবি : দৈনিক অধিকার)

প্রাক-প্রাথমিক থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পর্যন্ত শিক্ষা ব্যবস্থায় বড় ধরনের পরিবর্তনের পরিকল্পনা বাস্তবায়ন শুরু করেছে সরকার। উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ে দুটো পাবলিক পরীক্ষা নেওয়ার পরিকল্পনাও করছে। শিক্ষার্থীরা বিজ্ঞান, মানবিক নাকি বাণিজ্য শাখায় পড়বে তা ঠিক হবে উচ্চ মাধ্যমিক শ্রেণিতে।

মূলত শিক্ষার্থীদের ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণি পর্যন্ত অভিন্ন দশটি বিষয় পড়তে হবে। এই পরিকল্পনার অংশ হিসেবে ২০২৫ সাল থেকে উচ্চ মাধ্যমিকে দুটো পাবলিক পরীক্ষা নেবে।

জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডের এক সদস্য গণমাধ্যমকে জানান, এ পরিকল্পনা পাস হলে ২০২৫ সাল থেকে একাদশ শ্রেণিতে গিয়ে একজন শিক্ষার্থী কোন শাখায় পড়বে তা ঠিক হবে। তখন উচ্চ মাধ্যমিকের ছয়টি বিষয়ে ১২টি পত্র থাকবে। এর মধ্যে বাংলা, ইংরেজি এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি এ তিন বিষয় সবার জন্য বাধ্যতামূলক হবে। এর সঙ্গে একজন শিক্ষার্থী তার পছন্দের তিনটি বিষয় নেবে, যার প্রতিটির জন্য তিনটি পত্র থাকবে।

উচ্চ মাধ্যমিকে দুটো পরীক্ষা হলেও বাস্তবে শিক্ষার্থীদের ওপর চাপ কমবে। এখন উচ্চ মাধ্যমিকে যে কয়টি বিষয়ের পরীক্ষা একসঙ্গে হয় সেগুলোই একাদশ ও দ্বাদশে ভাগ করে হবে বলেও জানান তিনি।

বোর্ড সূত্রে জানা যায়, এসএসসি পরীক্ষা হবে শুধু দশম শ্রেণির পাঠ্যসূচির ভিত্তিতে। একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণিতে দুটি পাবলিক পরীক্ষা হবে, যার ভিত্তিতে এইচএসসির ফল প্রকাশ করা হবে।

আরও পড়ুন : উপাচার্যের বক্তব্যে জবিসাসের প্রতিবাদ ও নিন্দা

এনসিটিবির কর্মকর্তারা বলেন, ‘সব বিষয় চূড়ান্ত হয়নি। কিছু পরিকল্পনার মধ্যে আছে। আগামী মার্চের মধ্যে শিক্ষাক্রম চূড়ান্ত করে পর্যায়ক্রমে ২০২৫ সালে গিয়ে উচ্চ মাধ্যমিক পর্যন্ত পুরোপুরি শিক্ষাক্রম বাস্তবায়িত হবে।’

ওডি/এসজেএ

jachai
nite
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
jachai

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড