• রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ৪ কার্তিক ১৪২৬  |   ৩২ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

মানববন্ধনে চুয়েট শিক্ষার্থীরা

‘আসামিদের যথাযথ বিচার হলে এমন ঘটনার পুনরাবৃত্তি হবেনা’

  চুয়েট প্রতিনিধি

০৯ অক্টোবর ২০১৯, ২০:০৪
চুয়েট
মানববন্ধনে চুয়েট শিক্ষার্থীরা (ছবি : দৈনিক অধিকার)

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ১৭ ব্যাচের শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে নৃশংসভাবে পিটিয়ে হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (চুয়েট) সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

বুধবার (৯ অক্টোবর) বিকালে নগরীর জামালখান মোড়ে প্রেসক্লাবের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। বৃষ্টি বাদলকে উপেক্ষা করে মানববন্ধনে চুয়েটের বিভিন্ন ব্যাচের শিক্ষার্থীরা উপস্থিত হন। অভিযুক্ত খুনি আসামিদের বিচার চেয়ে বিভিন্ন পোস্টারে শিক্ষার্থীরা তাদের দাবিদাওয়া তুলে ধরেন।

চুয়েটের সাধারণ শিক্ষার্থীদের ব্যানারে আয়োজিত মানববন্ধন চলাকালীন সমাবেশে বক্তব্য রাখেন- চুয়েটের সাবেক ছাত্র স্বপ্নীল মিত্র, ফাহেল বিন নুর, তাওহিদুর রহমান জিহাদ, বিজয় মল্লিক। 

এছাড়া বর্তমান শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন- অভিষেক অভি, আশফাক তানজিম, সাইফুল ইসলাম, ওয়াসিফ রাশেদ, সুমাইয়া সোমা, সৌম্য স্বরাজ, সাগরময় আচার্য্য, ইসরাত জাহান ফারিহা, মুজাহিদুল আরেফিন, আতাউল্লাহ জয়, ঋত্মিক মুরাল। এছাড়া বুয়েট ১৭ ব্যাচের দুইজন শিক্ষার্থী অভিষেক দাশ, প্রতনু ব্যানার্জি তাদের সহপাঠী হারানো আর্তি মানববন্ধনে তুলে ধরেন।

চুয়েটের চতুর্থ বর্ষের সাইফুল ইসলাম মানববন্ধনে বলেন, ‘বুয়েটের মতো স্বনামধন্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে রুম থেকে ডেকে নিয়ে গিয়ে পিটিয়ে আরেকজনকে হত্যা যেটি খুব দুঃখজনক এবং ভাষায় প্রকাশহীন একটা ঘটনা। অভিযুক্ত আসামিদের যথাযথ আইনের আওতায় এনে শাস্তি প্রদান করতে হবে। যাতে ভবিষ্যতে এরকম ঘটনার পুনরাবৃত্তি করার সাহস কেউ না পায়। পাশাপাশি দেশের প্রতিটি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র বান্ধব হিসেবে গড়ে তুলতে হবে, যেনো শিক্ষার্থীরা তাদের মত প্রকাশের পূর্ণ বাক স্বাধীনতা পায়।’ 

তিনি আরও বলেন, ‘মাঝেমধ্যে এর চেয়ে ছোটখাটো বিভিন্ন ঘটনা প্রতিটি বিশ্ববিদ্যালয়ে ঘটে, তখন আমরা ব্যক্তিগত স্বার্থ ও নিজের নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে সেসব ঘটনায় কর্ণপাত করি না। তাই নিজেদের সচেতন হয়ে এরকম ঘটনাকে প্রতিহত ও সঠিক প্রতিবাদ করার জন্য শিক্ষার্থীদের প্রতি আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।’

কান্নাভরা কন্ঠে আবরারের একই বিভাগের বন্ধু অভিষেক দাশ মানববন্ধনে বলেন, ‘আবরার কখনো মুখ তুলে কারো সাথে বেয়াদবি করেনি, চলার পথে সিনিয়রদের সঙ্গে দেখা হলে সবসময় সালাম বিনিময় করতো। সোশ্যাল মিডিয়ায় তার একটা ব্যক্তিগত মতামতের জন্য এভাবে রাজনৈতিক ছত্রছায়ার অনুসারীরা এসে তাকে পিটিয়ে মেরে ফেলবে যেটা বুয়েটের মতো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে কোনোভাবেই কাম্য না। যে ছাত্র রাজনীতির কারণে আমার সহপাঠী বন্ধুর মৃত্যু ডেকে এনেছে, আমি অবিলম্বে এই নোংরা ছাত্ররাজনীতি বন্ধ করার জোর দাবি জানাচ্ছি। পাশাপাশি খুনিদের যতদিন না পর্যন্ত শাস্তি এবং বুয়েট থেকে স্থায়ী বহিষ্কার করা হচ্ছে না ততদিন পর্যন্ত আন্দোলন বেগবান থাকবে বলে জানান তিনি।’ 

মানববন্ধনে বক্তব্য প্রদান কালে অন্যান্য শিক্ষার্থীরাও দলমতকে ঊর্ধ্বে রেখে অবিলম্বে আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ডের বিচার এবং অপরাধীদের দ্রুত আইনের আওতায় এনে যথাযোগ্য শাস্তির দাবি জানান। এছাড়া আগামীতে এ ধরনের ঘটনা বন্ধে যথাযথ পদক্ষেপ নিতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানায়।

উল্লেখ্য, গত ৬ অক্টোবর (রবিবার) গভীর রাতে বুয়েটের শেরেবাংলা হলে তড়িৎ কৌশল বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়।

ওডি/এমএ

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড