• সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯, ২৯ আশ্বিন ১৪২৬  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

কুষ্টিয়া জার্নালিস্ট ফোরামের প্রচার উদ্যোগ ও সংসদ সদস্যের আন্তরিকতা

সুবর্ণার পড়ালেখার দায়িত্ব নিলেন এমপি মাহবুব উল আলম হানিফ

  অধিকার ডেস্ক

০৯ অক্টোবর ২০১৯, ১৫:০৩
সুবর্ণা
ছবি : সংগৃহীত

ইচ্ছা থাকলেও অনেক সময় উপায় থাকে না। বাস্তবতার কঠিন পরিহাসে থেমে যায় অনেক স্বপ্ন। অর্থের দুয়ারে এসে থমকে দাঁড়ায় মেধা। সুবর্ণা খাতুন। ২০১৯-২০২০ শিক্ষাবর্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ‘গ’ ইউনিটের মেধা তালিকায় ৯২৭ নম্বরে এসেছিল যার নাম। খুশি হওয়ার কথা থাকলেও সুবর্ণার মাথায় ভর করে রাজ্যের চিন্তা। 

মা তার পেশায় দিনমজুর। জন্মের এক বছর পরই বাবাকে হারানো মেয়েটির পরিবার বলতে কেবল মা। আর তার পক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির জন্য যে ১৩ হাজার টাকা প্রয়োজন তা জোগাড় করাই হয়ে পড়েছিল কষ্টসাধ্য। 

সবকিছু মিলিয়ে কুষ্টিয়া মিলপাড়ার তুলাশ্রমিক মা আরজিনা বেগমের (৪৩) একমাত্র মেয়ে সুবর্ণা খাতুনের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়ার স্বপ্ন নিভে যেতে বসেছিল। এই ব্যাপারটি ‘কুষ্টিয়া জার্নালিস্ট ফোরাম ঢাকা’র নজরে আসে। নিজেদের দায়িত্ববোধ ও মানবিকতার দিক থেকে তারা সুবর্ণার এই বিষয়টিকে গুরত্বের সঙ্গে গ্রহণ করেন। 

ফোরামের সন্মানিত সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকসহ সকল সদস্যদের আন্তরিকতায় ‘দৈনিক অধিকার’সহ বেশ কয়েকটি গণমাধ্যমে গুরুত্বসহকারে সংবাদটি (গত ৩ অক্টোবর) প্রকাশিত হয়। উল্লেখ্য, দেশজুড়ে বিভিন্ন মানবিক আবেদন প্রচারে শুরু থেকে কাজ করে আসছে দৈনিক অধিকার। 

দিনমজুর মায়ের মেধাবী কন্যা সুবর্ণার ভর্তিতে অনিশ্চয়তার এই খবরটি গণমাধ্যমে প্রকাশিত হওয়ার পর ব্যক্তিপর্যায় থেকে শুরু করে ‘কুষ্টিয়া জার্নালিস্ট ফোরাম ঢাকা’, ‘ঢাকা ইউনিভার্সিটি এক্স স্টুডেন্ট ফোরাম কুষ্টিয়া’সহ বিভিন্ন সংগঠন মেয়েটিকে সরাসরি আর্থিক সাহায্যের জন্য তৈরি হচ্ছিলেন। 

এরই মধ্যে পুরো বিষয়টি নজরে আসে কুষ্টিয়া-৩ (সদর) আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফের। একজন মেধাবী ছাত্রীর অনিশ্চিত ভবিষ্যতের খবরটি মানবিকভাবে স্পর্শ করে তাকে। অতঃপর তিনি ফোন করে তার নির্বাচনী এলাকার মেয়েটির খোঁজ নেন এবং তার উচ্চ শিক্ষার দায়িত্ব নিতে আগ্রহ প্রকাশ করেন। 

এই বিষয়ে কথা বলতে গেলে মাহবুব আলম হানিফ জানান, ‘সুবর্ণার মতো আরও অনেক শিক্ষার্থীদের আমি এভাবে সাহায্য করছি বিগত ১৫ বছর ধরে।’

এমন সংবাদ কেন কোনো গণমাধ্যমে আসেনি জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘কোনো ধরনের মিডিয়ার প্রচারণার জন্য অসহায় মেধাবী শিক্ষার্থীদের পাশে দাঁড়াইনি। নিজস্ব দায়িত্ববোধ থেকে আমি সবসময়ই চেষ্টা করে এসেছি গরিব-দুঃখীর পাশে দাঁড়াতে।’ 

মাননীয় সংসদ সদস্যের এমন জনকল্যাণকর সিদ্ধান্তের প্রশংসা করেন ‘কুষ্টিয়া জার্নালিস্ট ফোরাম ঢাকা’। কমিটির সভাপতি ও মাছরাঙা টিভির বার্তাপ্রধান রেজোয়ানুল হক রাজা বলেন, ‘ঢাবির মেধাতালিকায় স্থান পেয়েও অর্থাভাবে ভর্তির অনিশ্চিতায় থাকা কুষ্টিয়ার দিনমজুর মায়ের মেয়ে সুবর্ণার সঙ্গে কথা বলে সমস্যা সমাধানের দায়িত্ব নিয়েছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এমপি মাহবুব উল আলম হানিফ। এই যে, পুরো বিষয়টি নজরে আনা, কথা বলা, এরপর ব্যবস্থা হয়ে যাওয়া— এভাবেই এলাকার জন্য কাজ করে যেতে হবে আমাদের।’ এসময় সংশ্লিষ্ট সবাইকে ধন্যবাদ এবং কৃতজ্ঞতা জানান তিনি।  

কমিটির সাধারণ সম্পাদক ও চ্যানেল আইয়ের বার্তা সম্পাদক আদিত্য শাহীন বলেন, ‘নিঃসন্দেহে এটি একটি ভালো কাজ হয়েছে। দায়িত্ববোধের জায়গা থেকে কুষ্টিয়া জার্নালিস্ট ফোরামের প্রচার উদ্যোগ এবং কুষ্টিয়া-৩ (সদর) আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ খবরটি পড়ে যে আন্তরিকতা প্রদর্শন করলেন সেটি নিঃসন্দেহে প্রসংসার দাবিদার।’

উল্লেখ্য, কুষ্টিয়ার বিভিন্ন জনসমস্যা সমধানে সবসময় কাজ করে আসছে ‘কুষ্টিয়া জার্নালিস্ট ফোরাম ঢাকা’। ভবিষ্যতে এভাবে জনগণের সাহায্যে এগিয়ে আসার আশা ব্যক্ত করেন ফোরামটির সঙ্গে জড়িত সদস্যবৃন্দ। 

ওডি/এনএম 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড