• রবিবার, ২১ জুলাই ২০১৯, ৬ শ্রাবণ ১৪২৬  |   ৩১ °সে
  • বেটা ভার্সন

দীর্ঘ ৭ বছর আইনি লড়াই করে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক হলেন ইউসুফ

  ক্যাম্পাস ডেস্ক

১২ জুলাই ২০১৯, ২১:২৪
মো. ইউসুফ
নিয়োগ পাওয়া শিক্ষক মো. ইউসুফ (ছবি : সংগৃহীত)

দীর্ঘ ৭ বছরের আইনি লড়াই শেষে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি) ইতিহাস ও প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের শিক্ষক হিসেবে মো. ইউসুফকে নিয়োগ দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। 

বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) ঢাকার লিয়াজো অফিসে অনুষ্ঠিত ৬২তম সিন্ডিকেট সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য মো. ইউসুফকে শিক্ষক পদে নিয়োগ দেন। এর আগে গত ৭ জুলাই মো. ইউসুফকে আগামী ৩০ দিনের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষক পদে নিয়োগ দেয়ার নির্দেশ দেন হাইকোর্ট।

এ বিষয়ে শিক্ষক পদে নিয়োগ বঞ্চিত মো. ইউসুফ বলেন, ‘১ম স্থান অধিকার করার পরেও সাবেক এক উপাচার্যের আমলে বাছাই বোর্ডের সুপারিশ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের নির্ধারিত আইন অমান্য করে আমাকে নিয়োগ দেয়া হয়নি। সাত বছর আইনি প্রক্রিয়ার পর আমি ন্যায় বিচার পেলাম। বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান উপাচার্য আমার বিষয়টি দ্রুত বিবেচনা করায় কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।’ 

মামলার নথি অনুসারে, ২০১১ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি বেরোবির ইতিহাস ও প্রত্নতত্ত্ব বিভাগ তিনজন শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে। বিজ্ঞপ্তির প্রেক্ষিতে সাক্ষাৎকারের জন্য সাতজন আবেদনকারী বাছাই বোর্ডের সম্মুখীন হয়। তাদের মধ্য থেকে তিনজনকে নিয়োগের জন্য চূড়ান্তভাবে সুপারিশ করে বাছাই বোর্ড। কিন্তু মেধা ক্রমের ১ম জনকে বাদ দিয়ে তালিকায় থাকা ২য় ও ৩য় জনকে নিয়োগ দেয় বিশ্ববিদ্যালয় সিন্ডিকেট।

এ ঘটনায় মেধা তালিকার প্রথম স্থানে থাকা মো. ইউসুফ হাইকোর্টে রিট পিটিশন দায়ের করেন। রিটের প্রেক্ষিতে কেন তাকে নিয়োগ দেয়া হবে না- তা জানতে চেয়ে রুল জারি করে এবং ওই বিভাগে একটি ‘প্রভাষক’ পদ সংরক্ষণের নির্দেশ দেন হাইকোর্ট।

ওডি/এমএ

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
SELECT id,hl2,parent_cat_id,entry_time,tmp_photo FROM news WHERE ((spc_tags REGEXP '.*"location";s:[0-9]+:"বেরোবি".*')) AND id<>74704 ORDER BY id DESC LIMIT 0,5

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড