• রবিবার, ১৮ আগস্ট ২০১৯, ৩ ভাদ্র ১৪২৬  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন

সর্বশেষ :

জিয়ার পরিচয় তিনি বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারী : রেলমন্ত্রী||কলকাতায় চিকিৎসা করাতে যাওয়া ২ বাংলাদেশিকে পিষে মারল জাগুয়ার||ছাত্রদলের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক পদের ফরম বিক্রি শুরু ||ইহুদিবাদী ইসরায়েলের প্রস্তাব নাকচ করে দিল মার্কিন সাংসদ||ভারতকে অবিলম্বে কাশ্মীরের কারফিউ তুলতে বলেছে ওআইসি||‘তদন্ত করতে হবে কেন এসব অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটছে’||ইউক্রেনের হোটেলে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ৮ জনের প্রাণহানি||‘অগ্নিকাণ্ডে কেউ চাপা পড়েছে কিনা তল্লাশি চলছে’ ||মুক্তিপ্রাপ্ত ইরানের সুপার ট্যাঙ্কারটি আটকে এবার যুক্তরাষ্ট্রের ওয়ারেন্ট জারি||অবৈধ অভিবাসন ইস্যুতে ঢাকায় আসছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী  
eid

হলে সিটের দাবিতে জাবি ছাত্রীদের মানববন্ধন

  জাবি প্রতিনিধি

০৯ জুলাই ২০১৯, ১৩:৩৩
জাবি
মানববন্ধন কর্মসূচি (ছবি : দৈনিক অধিকার)

আবাসিক হলে সিটের দাবিতে মানববন্ধন করেছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হলের ৪৭তম ব্যাচের (দ্বিতীয় বর্ষ) প্রায় ৭০ জন ছাত্রী। মঙ্গলবার (৯ জুলাই) সকাল ১০টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের পুরাতন প্রশাসনিক ভবনের সামনে মানববন্ধনটি শুরু হয়।

মানববন্ধনে আইন ও বিচার বিভাগের ৪৭তম ব্যাচের শিক্ষার্থী জান্নাতুল নাইম আনিকা বলেন, হলে সিট সঙ্কটের জন্য পুরোপুরি প্রশাসন দায়ী। কারণ, তারা দেখেনি আদৌ এই হলে সিট খালি আছে কি-না। তারা না দেখেই কেন হলে অ্যালটমেন্ট দিল? শেখ হাসিনা হলে ৪৮তম ব্যাচের শিক্ষার্থীরা রুম পাওয়া শুরু করেছে। বেগম খালেদা জিয়া হলে ওঠার ৬ মাসের মধ্যে ৪৮ রুম পেয়ে গেছে। তাহলে কেন আমাদের এই দিন দেখতে হচ্ছে। আমাদের পড়াশোনার ক্ষতি হচ্ছে এবং আমরা নানা রোগ ব্যাধিতে আক্রান্ত হচ্ছি।

নৃবিজ্ঞান বিভাগ ৪৭তম ব্যাচের খাদিজাতুল কোবরা সেপু বলেন, আমরা আমাদের হলে একটি সিট চাই। আমরা প্রায় ১৭ মাস ধরে হলের গণরুমে আছি। যেখানে আমাদের অন্যান্য হলের বন্ধুবান্ধব প্রায় সকলেই সিট পেয়ে গেছে। একটি ছোট গণরুমে ১১৪ জন একসঙ্গে থাকা আর সম্ভব হচ্ছে না।

আইন ও বিচার বিভাগ ৪৭তম ব্যাচের শিক্ষার্থী আফসিন সুলতানা এ্যামি বলেন, আমাদেরকে বারবার মিথ্যা আশ্বাস দেওয়া হয়েছে। বলা হয়েছে ঈদের পর সিট দেওয়া হবে, ছুটির পরে কয়েকজন করে সিট দেওয়া হবে, কিন্তু এখনো পর্যন্ত কোনো উদ্যোগ নেওয়া হয়নি। আমাদের একজনও সিট পায়নি। আমরা প্রভোস্ট ও উপাচার্য বরাবর আবেদন দিয়েছিলাম, কিন্তু কোনো জবাব পাইনি। যে কারণে আমরা মানববন্ধন করতে বাধ্য হয়েছি।

এ বিষয়ে বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক মোহা. মুজিবুর রহমানকে একাধিকবার ফোন দেওয়া হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

ওডি/আরএআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড