• বুধবার, ১৯ জুন ২০১৯, ৫ আষাঢ় ১৪২৬  |   ৩২ °সে
  • বেটা ভার্সন

কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি

বিতর্কিতদের আটজন নির্দোষ, বাকিদের ব্যবস্থা সোমবার

  ক্যাম্পাস ডেস্ক ১৮ মে ২০১৯, ২২:২২

গোলাম রাব্বানী
ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী (ছবি : সম্পাদিত)

১১ মে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হয়। এরপর কমিটিকে কেন্দ্র করে পদ বঞ্চিতদের ওপর পদ ধারীদের হামলার ঘটনার পর অভিযোগ আসে কেন্দ্রীয় কমিটির অনেকেই নিয়ম বহির্ভূতভাবে পদ পেয়েছে।

এই অভিযোগের ভিত্তিতে ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটির ১৫ সদস্যের বিরুদ্ধে বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হয়। যাদের মধ্যে আটজন নিজেদের নির্দোষ প্রমাণ করতে পেরেছেন বলে জানিয়েছেন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী। এছাড়াও বাকিদের বিরুদ্ধে কি ধরণের সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে তা নির্ধারণে আগামী সোমবার (২০ মে) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে কথা বলা হবে বলেও জানান তিনি। 

শনিবার (১৮ মে) সন্ধ্যায় গণমাধ্যমকে তিনি এ কথা জানান। সাধারণ সম্পাদক বলেন, পদপ্রাপ্ত ১৫ নেতার মধ্যে আটজন ইতোমধ্যে নিজেদের পক্ষে তথ্যপ্রমাণ উপস্থাপন করেছেন। তবে অভিযোগকারীরা (পদ বঞ্চিতরা) সংগঠনের কাছে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কোনো যথার্থ প্রমাণ উপস্থাপন করতে পারে নি। তাই তার ধারনা এসব অভিযোগ মিথ্যা ও বানোয়াট। 

এর আগে কেন্দ্রীয় কমিটির ব্যাপারে নিজেদের অবস্থান পরিষ্কার করতে গত বুধবার (১৫ মে) রাতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশ অনুযায়ী পদপ্রাপ্ত বিতর্কিত ১৫ জনের তালিকা গণমাধ্যমে প্রকাশ করেন সংগঠনটির সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন এবং সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী। যদিও মৌখিকভাবে তারা তালিকায় ১৭ জনের নাম থাকার কথা উল্লেখ করেছিলেন। অভিযোগের সত্যতা যাচাই-বাছাই করতে ২৪ ঘণ্টা সময় নেন তারা। 

কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানীর দাবি, এই কমিটিকে বিতর্কিত করতে গোপনে কেউ অপচেষ্টা চালাচ্ছে। যারা অভিযোগ করেছেন তাদের নিজেদের বিরুদ্ধেও হাজার হাজার অভিযোগ রয়েছে বলেও তিনি পাল্টা দাবি করেন।

তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে অভিযুক্ত ১৫ জনের নাম আমরা গণমাধ্যমে প্রকাশ করেছিলাম। কিন্তু তাদের বিরুদ্ধে কেউ আমাদের কাছে লিখিতভাবে কোনো অভিযোগ দেয়নি। ইতোমধ্যে যে ১৫ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছিল তাদের মধ্যে আটজন অভিযোগ খণ্ডাতে আমাদের কাছে তথ্য প্রমাণ দিয়েছেন। তারা যে নির্দোষ তা তারা প্রমাণ করতে পেরেছেন। আগামীকাল রবিবার (১৯ মে) আমরা আপাকে (শেখ হাসিনা) এই তথ্য প্রমাণ দেখাবো।’

অভিযোগকারীদের ব্যাপারে তিনি বলেন, ‘তারা কেউই আমাদের কাছে লিখিত কোনো অভিযোগ করেননি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এবং সাংবাদিকদের মাধ্যমে অভিযোগ করলে তো হবে না। দিস ইজ নট দ্য রাইট ওয়ে। যারা পদ পেয়েছেন তাদের বিরুদ্ধে যদি কোনো অভিযোগ থাকে তাহলে তা সাংগঠনিক ভাবে আমাদের জানাতে হবে।’

অভিযুক্ত ১৭ জনের মধ্যে এই আটজন ছাড়া বাকিরা যদি নির্ধারিত সময়ে তথ্য প্রমাণ উপস্থাপনে ব্যর্থ হয়, তাহলে তাদের বিরুদ্ধে কবে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘আগামীকাল (সোমবার) আপার সঙ্গে কথা বলে তারপর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তবে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আগামী সোমবার ব্যবস্থা নেওয়া হতে পারে।’

ওডি/এমএ

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড