• বুধবার, ১৭ আগস্ট ২০২২, ২ ভাদ্র ১৪২৯  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ইবিতে ভর্তি সাক্ষাৎকারে উপস্থিত ১৯ শতাংশ

  ইবি প্রতিনিধি

০৬ জানুয়ারি ২০২২, ০৯:৩৬
ইবি
ইসলামিক বিশ্ববিদ্যালয় ( ফাইল ছবি)

গুচ্ছ পদ্ধতিতে স্নাতক (সম্মান) ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) ভর্তি কার্যক্রমের মেধা তালিকায় স্থানপ্রাপ্তদের মধ্যে সাক্ষাৎকারে ১৯ দশমিক ৫৭ শতাংশ শিক্ষার্থী উপস্থিত হয়েছেন। ৩৪টি বিভাগের মোট ২ হাজার ৯৫ সিটের বিপরীতে তিনটি ইউনিটে ৪১০ জন শিক্ষার্থী সাক্ষাৎকারে উপস্থিত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

বুধবার (৫ জানুয়ারি) ইউনিট সমন্বয়কারীরা এটি নিশ্চিত করেছেন।

গত ৪ জানুয়ারি এবং ৫ জানুয়ারি সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত দুই দিনব্যাপী মেধাতালিকা থেকে এ, বি ও সি ইউনিটের পৃথক পৃথক সাক্ষাৎকার অনুষ্ঠিত হয়।

এ বছর গুচ্ছ ভর্তি পদ্ধতিতে বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত 'এ' ইউনিটে মেধাতালিকা হতে স্থান প্রাপ্ত ৯৭৫ জনের মধ্যে ৬১জন, কলা ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত 'বি' ইউনিটে ৬৪৭ জনের মধ্যে ২৫২ জন এবং ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদভুক্ত 'সি' ইউনিটে ৪৪৩ জন মেধাতালিকায় স্থানপ্রাপ্তদের মধ্যে ৯৭ জন সাক্ষাৎকারে উপস্থিত হয়েছেন বলে জানা যায়।

মেধাতালিকায় স্থান প্রাপ্তদের মধ্যে এতো কম সংখ্যক শিক্ষার্থী সাক্ষাৎকারে অংশ নেওয়ার কারণ জানতে চাইলে 'এ' ইউনিট সমন্বয়কারী অধ্যাপক ড. আব্দুস সামাদ বলেন, মেধাতালিকায় যারা এখানে প্রথম দিকে রয়েছে তারা মেডিক্যাল, ইঞ্জিনিয়ারিং বা অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়েও সচরাচর মেধাতালিকায় থাকেন। যার কারণে হয়তো তারা অন্যান্য প্রতিষ্ঠানে ভর্তি হয়ে থাকতে পারে আর এজন্য মেধাতালিকা থেকে সাক্ষাৎকারে কম সংখ্যক শিক্ষার্থী অংশ নিয়েছে বলে মনে হচ্ছে।

'বি' ইউনিট সমন্বয়কারী অধ্যাপক ড. দেবাশীষ শর্মা জানান, শিক্ষার্থীদের মেরিট লিস্ট অনুযায়ী ভর্তির হার গতবারের থেকে কম। করোনার কারণে দেরিতে পরীক্ষা হওয়ায় অনেক শিক্ষার্থী বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়ে গেছে। এছাড়া জিএসটির আওতায় অনেক বিশ্ববিদ্যালয়ে সাবজেক্ট আশায় ভর্তির হার কম।

'সি' ইউনিট সমন্বয়কারী অধ্যাপক ড. মো. রুহুল আমীন জানান, মেধাতালিকা থেকে যারা সাক্ষাৎকার দিয়েছে সে সংখ্যাটা কম হলেও আগামী ১১ জানুয়ারি পর্যন্ত প্রথম পর্যায়ের ভর্তি কার্যক্রম চলবে এবং ৯ জানুয়ারি এই মেধাতালিকায় স্থানপ্রাপ্তদের আরও একটি সাক্ষাৎকারের নোটিশ করা হয়েছে। এরপরেও ভর্তি হতে ইচ্ছুক এমন কেউ যদি ভর্তি হতে চায় তাদের জন্য ১১ জানুয়ারি পর্যন্ত সুযোগ থাকবে। এরপর আর কোনো সুযোগ দেওয়া হবে না। আশা করি, এর মধ্যে অনেকে ভর্তি হয়ে যাবে তারপর সিট খালি থাকা সাপেক্ষে অপেক্ষমাণ তালিকা প্রকাশ করা হবে।

ওডি/নিমি

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো. তাজবীর হোসাইন  

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড