• মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর ২০২১, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৮  |   ২৫ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ইভটিজিংকে কেন্দ্র করে মেডিক্যাল ও বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের সংঘর্ষ, আহত ১৫

  ক্যাম্পাস ডেস্ক

২২ নভেম্বর ২০২১, ০৯:৫৭
সংঘর্ষ
পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ৫ রাউন্ড টিয়রসেল নিক্ষেপ করেছে পুলিশ (ছবি : সংগৃহীত)

ইভটিজিংকে কেন্দ্র করে গোপালগঞ্জে সায়েরা খাতুন মেডিক্যাল কলেজ এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) শিক্ষার্থীদের মধ্যে কয়েক দফা সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় ইটের আঘাতে আহত হয়েছেন সদর থানার ওসি মনিরুল ইসলাম, বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর রাজিউর রহমান ও সংবাদকর্মীসহ অন্তত ১৫ জন।

জানা যায়, রবিবার (২১ নভেম্বর) রাত ৯টা থেকে দফায় দফায় এ ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। প্রায় ৩ ঘণ্টা পর রাত পৌনে ১২টার দিকে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়।

এই ঘটনায় মেডিক্যাল কলেজের বিভিন্ন ভবনের কাঁচ ভাঙচুর করা হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ৫ রাউন্ড টিয়রসেল নিক্ষেপ করেছে পুলিশ। আহতদের মধ্যে পাঁচজনকে গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ বিষয়ে শেখ সায়েরা খাতুন মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. জাকির হোসেন বলেন, মেডিক্যাল কলেজের ছাত্রীদের ইভটিজিং করা কেন্দ্র করে এ সংঘর্ষের সূচনা হয়। মেডিক্যাল কলেজের মাঠে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীরা নিয়মিত ক্রিকেট খেলেন। এ সময়ে মাঠের পাশ দিয়ে মেডিক্যাল ছাত্রীরা গেলে তাদের উদ্দেশ্য করে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীরা নানা মন্তব্য করে থাকেন। যে কারণে ওই মাঠে ক্রিকেট খেলতে নিষেধ করেন মেডিক্যাল শিক্ষার্থীরা। এই নিষেধ করাকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা ঘটে।

এ দিকে, ছাত্রীদের ইভটিজিংয়ের ঘটনা অস্বীকার করে পরিবেশ বিজ্ঞান ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিভাগের শিক্ষার্থী বিজয় রঞ্জন বলেন, সন্ধ্যার পর বশেমুরপ্রবির শিক্ষার্থীরা শেখ সায়েরা খাতুন মেডিক্যাল কলেজের মসজিদের পাশে ক্রিকেট খেলেন। কিন্তু মেডিক্যালের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা এটি মেনে নিতে পারেনি। আজ রাতে সেখানে ক্রিকেট খেলছিলেন বশেমুরবিপ্রবি শিক্ষার্থীরা। এ সময় মেডিক্যালের একজন শিক্ষক আমাদের এক শিক্ষার্থীকে ডেকে ধমক দিয়ে কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, এ নিয়ে বাকবিতণ্ডা হলে মেডিক্যালের কয়েকজন শিক্ষার্থী বশেমুরবিপ্রবি অজয় দেবনাথ, পিয়াল, মুরাদ, সায়েমকে মারপিট করে। খবর পেয়ে বশেমুরবিপ্রবি শিক্ষার্থীরা এলে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া হয়।

ওডি/নিমি

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড