• রোববার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ২ কার্তিক ১৪২৮  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

প্রাণ ফিরেছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে

  আরিফুল ইসলাম আরিফ, জাবি প্রতিনিধি

১২ অক্টোবর ২০২১, ১৪:৫৯
জাবি
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় হল (ফাইল ছবি)

টানা ৫৭০ দিন বন্ধ থাকার পর খুলেছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় (জাবি) ক্যাম্পাস। এরই মধ্যে শিক্ষার্থীদের পদচারণায় মুখরিত হতে শুরু করেছে ক্যাম্পাস প্রাঙ্গণ। সোমবার (১১ অক্টোবর) সকাল ৯টা থেকে শিক্ষার্থীরা উৎসব মুখর পরিবেশে নিজ নিজ হলে উঠতে শুরু করেন। এ উপলক্ষে লাল গোলাপ দিয়ে শিক্ষার্থীদের বরণ করে নেয় হল প্রশাসন। পাশাপাশি বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৬টি আবাসিক হলে বিশ্ববিদ্যালয়ের লোগো ও স্ব স্ব হলের নাম সম্বলিত মাস্ক, স্যানিটাইজার, কলম ও হালকা নাস্তা প্রদান করা হয়।

দীর্ঘদিন পর ক্যাম্পাস ফেরায় এবং হলগুলো খুলে দেওয়ায় উচ্ছ্বসিত শিক্ষার্থীরা। উৎসবের হাওয়া লেগেছে প্রত্যেকের মনে। আবারও প্রাণের স্পন্দন ফিরে পেয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়।

উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে জার্নালিজম এন্ড মিডিয়া স্টাডিজ বিভাগের শিক্ষার্থী মনির হোসেন বলেন, করোনার কারণে দীর্ঘদিন পর আজকে ক্যাম্পাসে ফিরলাম। অনেক ভালো লাগছে। আজকেই বাসা থেকে ফিরে হলে উঠলাম। মনে হচ্ছে উৎসবের হাওয়া লেগেছে আমার মনে। সত্যিই ঈদ ঈদ লাগছে।'

বেগম খালেদা জিয়া হলের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী মাকদুরা মিতি বলেন, আমরা আজ আনন্দিত। দীর্ঘ ছুটির পর ক্যাম্পাসে এত পরিচিত মুখ দেখতে পারছি তা সত্যিই আনন্দের। আমরা খুশিতে আত্মহারা। আমরা সব সময় এরকম উৎফুল্ল থাকতে চাই।

ইতিহাস বিভাগের স্নাতকোত্তর পর্বের শিক্ষার্থী এনামুল হক বলেন, মাস্টার্সের শিক্ষার্থী হওয়ায় আর অল্প কিছুদিন হলে আছি। তাই হলে ওঠার এ সুযোগ হারাতে চাইনি। আর হল এভাবে আমাদের বরণ করে নেবে তা ভাবিনি। দীর্ঘদিন পরে এভাবে হলে ফিরতে পেরে প্রথম বর্ষের মতো অনুভূতি হচ্ছে।

তবে ৪৯তম ব্যাচের (প্রথম বর্ষ) সব শিক্ষার্থী এখনই হলে উঠতে পারছেন না। যাদের প্রথম বর্ষের পরীক্ষা শেষ হয়েছে এবং করোনাভাইরাসের অন্তত এক ডোজ টিকা নিয়েছে তারা স্ব-স্ব হল প্রাধ্যক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে হলে উঠতে পারবেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাধ্যক্ষ কমিটির সভাপতি মোহাম্মদ মুজিবুর রহমান বলেন, শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষার বিষয়টি মাথায় রেখে আমরা তাদের গণরুমে উঠতে দিচ্ছি না। মাস্টার্সের অনেক শিক্ষার্থীর পরীক্ষা ইতোমধ্যে শেষ হয়েছে, অনেকের শেষ হওয়ার পথে। তাদের পরীক্ষা শেষে হলেই আবাসিক হলে আসন খালি হবে। তখন প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীদের হলে ওঠানো হবে।

তিনি আরও বলেন, মহামারীকালে কীভাবে হলে থাকতে হবে, সেজন্য নির্দেশনাবলি শিক্ষার্থীদের দেওয়া হয়েছে। কোনো শিক্ষার্থীর জ্বর বা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার লক্ষণ দেখা দিলে সেই শিক্ষার্থীকে কোয়ারেন্টাইনে এনে চিকিৎসা সেবা দেওয়া হবে। কোভিড রোগীকে কিভাবে চিকিৎসা দিতে হয় সে ব্যাপারে জানতে চিকিৎসক এনে হল সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের ট্রেনিং করানো হয়েছে।

তবে দীর্ঘদিন পর গতকাল হল খুললেও সশরীরে ক্লাসের জন্য আরও কিছুদিন অপেক্ষা করতে হবে শিক্ষার্থীদের। আগামী ২১ অক্টোবর থেকে ক্লাসে ফিরবেন জাবির শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা।

এ দিকে যেসব শিক্ষার্থী করোনাভাইরাসের টিকা গ্রহণ করেননি তাদের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়াজেদ মিয়া গবেষণা কেন্দ্রে অস্থায়ী টিকা ক্যাম্প চালু করা হয়েছে। ১৩ অক্টোবর পর্যন্ত এখানে টিকা প্রদান করা হবে। গতকাল বেলা সাড়ে ১০টার দিকে এ টিকা ক্যাম্প উদ্বোধন করেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) অধ্যাপক মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা। এই ক্যাম্পে শিক্ষার্থীদের মধ্যে যারা এসএমএস পাননি বা এনআইডি কার্ড না থাকায় টিকা নিতে পারেননি, তাদেরকে টিকার ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

এছাড়া সোমবার থেকে চালু হয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের সবগুলো বাস সার্ভিস। বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবহন অফিসের ভারপ্রাপ্ত শিক্ষক আলী আজম তালুকদার জানান, ১১ অক্টোবর থেকে শিক্ষার্থীদের জন্য ৬টি বাস চলছে। তবে শুক্রবার ও অন্যান্য ছুটির দিন চলবে ৫টি বাস। এছাড়া ২১ তারিখ থেকে শিক্ষার্থীদের জন্য মোট বাস চলবে ১৫টি। এর মধ্যে প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীদের জন্য থাকবে ৯টি বাস। এছাড়া শিক্ষকদের জন্য বর্তমানে চলছে ৬টি বাস তবে ২১ তারিখ থেকে এ সংখ্যা বেড়ে হবে ১৩টি। শিক্ষার্থীদের শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে চলাচল করার কথা বলেন তিনি। শিক্ষার্থীদের জন্য নিরাপত্তা সরঞ্জাম, মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার সরবরাহ করা হবে।

এ দিকে, দীর্ঘদিন পর হল খোলার জন্য হলের ভবনগুলোতে নতুন করে রং করা হয়েছে এবং পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা নিশ্চিত করা হয়েছে। হলে অক্সিজেন সিলিন্ডারের ব্যবস্থা করা হয়েছে। কারো জরুরি ভিত্তিতে অক্সিজেন প্রয়োজন হলে সেবা দিতে হল প্রশাসন প্রস্তত রয়েছে।

ওডি/নিমি

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড