• বুধবার, ২৭ অক্টোবর ২০২১, ১২ কার্তিক ১৪২৮  |   ৩৩ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

২ ঘণ্টায় ৮০ নম্বরের উত্তর, বিপাকে সাত কলেজের শিক্ষার্থীরা

  রাকিবুল হাসান, ঢাকা কলেজ প্রতিনিধি

০৭ অক্টোবর ২০২১, ১৯:৩১
সাত কলেজ
সাত কলেজ লোগো (ফাইল ছবি)

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত রাজধানীর সরকারি সাত কলেজের স্নাতক শ্রেণীর চূড়ান্ত পরীক্ষায় সময় কমানো হলেও প্রশ্নের সংখ্যা কমানো হয়নি। যার ফলে পরীক্ষা দিতে গিয়ে বেশ ভোগান্তি এবং বিপাকে পড়তে হচ্ছে স্নাতক ১ম ও ৩য় বর্ষের কয়েক হাজার শিক্ষার্থীদের। সময় ও প্রশ্নের মানবণ্টনে সামঞ্জস্যতা না থাকায় উত্তর জানা থাকার পরও খাতায় লিখতে পারছে না শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, করোনা বিবেচনায় পরীক্ষার নির্ধারিত সময় ৪ ঘণ্টা থেকে কমিয়ে ২ ঘণ্টা করা হলেও সেই অনুপাতে প্রশ্নের সংখ্যা কমানো হয়নি। বরং আগের চেয়ে বেশি প্রশ্নের উত্তর খাতায় লিখতে হচ্ছে। যার ফলে, প্রশ্নের উত্তর জানা থাকলেও সময় স্বল্পতার জন্য পূর্ণ নম্বরের উত্তর সম্পূর্ণ দিতে পারছেন না অধিকাংশ শিক্ষার্থী।

সরকারি শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজের রসায়ন বিভাগের ৩য় বর্ষের শিক্ষার্থী আমজাদ হোসাইন বলেন, রসায়নের বিভাগের ৮০ নাম্বারের জন্য ৪টি প্রশ্নের উত্তর দিতে হয়। প্রতিটি প্রশ্নেই আবার a, b পার্ট দেওয়া থাকে। সেক্ষেত্রে দেখা যায় আমাদের মোট৮ টি প্রশ্নের উত্তর দিতে হচ্ছে। তারপর বেশিরভাগ প্রশ্নের উত্তরই গাণিতিক সমীকরণের। সমীকরণ কমিয়ে লিখারও কোনো উপায় নেই। এমন অবস্থায় এত অল্প সময়ে এত বেশি প্রশ্নের উত্তর দেওয়া সম্ভব হচ্ছে না।

সরকারি বাঙলা কলেজের গণিত বিভাগের ৩য় বর্ষের শিক্ষার্থী শাহ আলম বলেন, বিজ্ঞান বিভাগের বেশিরভাগ বিভাগের পরীক্ষার সময় কমানো হয়েছে যা প্রশ্নের মান বণ্টনের সাথে কোনোরকম সামঞ্জস্যতা নেই। গণিত বিভাগে আগে ৩ ঘণ্টায় ৫ সেট প্রশ্নের উত্তর লিখাই কষ্টসাধ্য ছিল, সেখানে এখন করোনার জন্য মাত্র ১.৫ ঘণ্টায় ৩ সেট প্রশ্নের উত্তর দেওয়া লাগছে। আমাদের পূর্বের সময় অনুযায়ী পরীক্ষা নেওয়া হোক অথবা বর্তমান পরীক্ষার সময় বাড়ানো হোক।

এ বিষয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত সরকারি সাত কলেজের প্রধান সমন্বয়ক ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. এএসএম মাকসুদ কামাল বলেন, সাত কলেজের স্নাতক পরীক্ষার সময় অধ্যক্ষদের সঙ্গে বসে আলোচনা করেই নির্ধারণ করা হয়েছে। এ বিষয়ে এখন পর্যন্ত আমরা কোনো অভিযোগ পাইনি। যদি কোনো সমস্যা হয় তবে তা সাত কলেজের অধ্যক্ষদের মাধ্যমে আমাদের কাছে আসতে হবে।

মূলত, গত আগস্ট মাসের ১৮ তারিখ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক এএসএম মাকসুদ কামালের সাথে সাত কলেজের অধ্যক্ষদের বৈঠকে সশরীরে পরীক্ষা গ্রহণের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। যার প্রেক্ষিতে সেপ্টেম্বর মাসের ১ তারিখ থেকে করোনার দীর্ঘ বন্ধের পর সাতটি কলেজে স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব মেনে সশরীরে পরীক্ষা কার্যক্রম শুরু হয়। এরই ধারাবাহিকতায় অক্টোবরের ২ তারিখে সাত কলেজের স্নাতক ১ম বর্ষ ও অক্টোবরের ৪ তারিখে স্নাতক ৩য় বর্ষের পরীক্ষা শুরু হয়েছে।

ওডি/নিমি

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড