• শনিবার, ১৫ আগস্ট ২০২০, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৭  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ : ইবির ৭ পেশাজীবী সংগঠনের নিন্দা

  ইবি প্রতিনিধি

০৮ জুলাই ২০২০, ২১:৫৫
ইবি
ছবি : সংগৃহীত

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) বিরাজমান শিক্ষা, উন্নয়ন ও অগ্রগতি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও দৈনিক পত্রিকায় বিভ্রান্তিকর তথ্য প্রচার ও প্রকাশের ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ হচ্ছে এই মর্মে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মরত শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের সাতটি পেশাজীবী সংগঠন।

বুধবার (৮ জুলাই) বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতি, প্রগতিশীল শিক্ষক সংগঠন বঙ্গবন্ধু পরিষদ, শাপলা ফোরাম, অফিসার্স অ্যাসোসিয়েশন, সাধারণ কর্মচারী সমিতি, পরিকল্পনা ও উন্নয়ন বিভাগ এবং সহায়ক কর্মচারী সমিতি' পৃথক পৃথক ভাবে প্রকাশিত সংবাদের নিন্দা জানিয়েছেন।

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. কাজী আখতার হোসেন সাক্ষরিত এক বিবৃতিতে জানা যায়, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি উদ্বেগের সঙ্গে লক্ষ্য করছে যে, সম্প্রতি বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থিতিশীল সুন্দর পরিবেশ নষ্ট করার জন্য নানামুখী তৎপরতা চালানো হচ্ছে। এমনকি শিক্ষক সমিতির মধ্যে বিভাজন আছে বলে কোনো কোনো সংবাদ মাধ্যমে উল্লেখ করা হয়েছে। এ বিষয়ে শিক্ষক সমিতি দ্ব্যর্থহীন ভাবে জানাচ্ছে যে সমিতির মধ্যে কোনো অনৈক্য বা বিভাজন নেই। এই পরিপ্রেক্ষিতে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি বিশ্ববিদ্যালয়ের সুন্দর পরিবেশ অব্যাহত রাখার স্বার্থে বিশ্ববিদ্যালয়ের সংশ্লিষ্ট সকলকে ও মিডিয়া সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গকে দায়িত্বশীল আচরণের জন্য আহ্বান জানাচ্ছে।

প্রগতিশীল শিক্ষক সংগঠন বঙ্গবন্ধু পরিষদের সহসভাপতি অধ্যাপক ড. মো. সাইদুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. আবু হেনা মোস্তফা জামাল সাক্ষরিত এক বার্তায় প্রকাশিত সংবাদের বিবৃতিতে বলেন, বঙ্গবন্ধু পরিষদ গভীর উদ্বেগের ও ক্ষোভের সঙ্গে লক্ষ্য করছে, কিছুদিন যাবত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও প্রিন্ট মিডিয়াতে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিদ্যমান শিক্ষা উন্নয়ন অগ্রগতি নিয়ে বিভ্রান্তিকর কিছু তথ্য প্রকাশিত হচ্ছে যা বিশ্ববিদ্যালয়ের সুনাম ও অর্জনকে মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করছে। ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় বঙ্গবন্ধু পরিষদ এ বিশ্ববিদ্যালয়কে নিয়ে যে কোনো ধরনের চক্রান্তের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানায়।

মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী প্রগতিশীল শাপলা ফোরামের সভাপতি অধ্যাপক ড. মো. রেজওয়ানুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. মাহবুবর রহমান সাক্ষরিত বিবৃতিতে জানা যায়, কিছুদিন যাবত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও প্রিন্ট মিডিয়াতে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিরাজমান শিক্ষা উন্নয়ন অগ্রগতি নিয়ে বিভ্রান্তিকর কিছু তথ্য প্রকাশিত হচ্ছে যা বিশ্ববিদ্যালয়ের সুনাম ও অর্জনকে মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করছে।

বিশ্ববিদ্যালয়কে নিয়ে যে কোনো ধরনের চক্রান্তের তীব্র নিন্দা জানিয়ে নেতৃবৃন্দ বলেন, প্রশাসনিক পদসংক্রান্ত রদবদল ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাক্ট মোতাবেক একটি নিয়মিত প্রক্রিয়া। এ প্রক্রিয়া যেন কোনো ভাবেই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষাসহ সার্বিক পরিবেশের উপর কোনো প্রকার নেতিবাচক প্রভাব ফেলতে না পারে এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের সুন্দর পরিবেশ অব্যাহত রাখার স্বার্থে সংশ্লিষ্ট সকল মহল ও মিডিয়া সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গকে দায়িত্বশীল আচরণের জন্য আহবান জানান তারা।

এদিকে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের অফিসার্স অ্যাসোসিয়েশনের আহ্বায়ক মো. আলমগীর হোসেন খান ও সদস্য সচিব আব্দুল হান্নান এবং সহায়ক কর্মচারী সমিতির সভাপতি আব্রাহাম লিংকন ও সাধারণ কর্মচারী সমিতির সভাপতি আতিউর রহমান সাক্ষরিত বিবৃতিতে জানা যায়, সম্প্রতি বিভিন্ন পত্র পত্রিকা ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বর্তমান প্রশাসন তথা উপাচার্য মহোদয় তার মেয়াদ সুনামের সঙ্গে আগামী ২০ আগস্ট ২০২০ পূর্ণ করতে যাচ্ছেন। ঠিক সেই মুহূর্তে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমূর্তি ও উপাচার্য অধ্যাপক হারুন অর রশিদ আসকারী স্যারের বিরুদ্ধে মিথ্যা হানিকর কিছু বক্তব্যের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

আরও পড়ুন : ঢাকা কলেজের আরেক শিক্ষক করোনায় আক্রান্ত

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় পরিকল্পনা ও উন্নয়ন বিভাগের এক বিবৃতিতে জানা যায়, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়ন (৩য় পর্যায়ে) ১ম সংশোধিত শীর্ষক প্রকল্পের টেন্ডার কাজ নিয়ে হরিলুট চলছে মর্মে সংবাদটি আমাদের দৃষ্টিগোচর হয়েছে। প্রকাশিত সংবাদের আমরা তীব্র নিন্দা প্রকাশ করছি। কারণ বর্তমান প্রশাসনের আমলে সমস্ত টেন্ডার প্রক্রিয়া ইজিপির মাধ্যমে ১০০% স্বচ্ছ ও সততার সঙ্গে হয়েছে এবং টেন্ডার প্রক্রিয়া অদ্যাবধি কোনো অভিযোগ উপস্থাপিত হয়নি এবং প্রকল্পের বড় কাজের টেন্ডার প্রক্রিয়াধীন আছে এবং এখন পর্যন্ত কেউ প্রভাবিত করার চেষ্টা করেনি। তাই এহেন মিথ্যা সংবাদ প্রচার থেকে বিরত থাকার জন্য সবিনয়ে অনুরোধ করছি।

উল্লেখ্য, গত কয়েকদিন যাবত ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় বর্তমান প্রশাসন, বর্তমান শিক্ষা উন্নয়ন ও অগ্রগতি নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে বিভ্রান্তিকর সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে। যার প্রেক্ষিতে প্রতিবাদ জানিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতি, প্রগতিশীল শিক্ষক সংগঠন বঙ্গবন্ধু পরিষদ, শাপলা ফোরাম, অফিসার্স অ্যাসোসিয়েশন, সাধারণ কর্মচারী সমিতি, পরিকল্পনা ও উন্নয়ন বিভাগ ও সহায়ক কর্মচারী সমিতির নেতৃবৃন্দ।

jachai
nite
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
jachai

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড