• বৃহস্পতিবার, ০১ অক্টোবর ২০২০, ১৭ আশ্বিন ১৪২৭  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

চতুর্থবারের মতো নর্থ সাউথের চেয়ারম্যান এম এ কাসেম

  ক্যাম্পাস ডেস্ক

৩০ জুন ২০২০, ২১:১৭
নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়
ছবি : সংগৃহীত

চতুর্থবারের মতো নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (এনএসইউ) ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান হলেন এম এ কাসেম। নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতার মাধ্যমে ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন তিনি।

মঙ্গলবার (৩০ জুন) বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এর আগেও তিনি তিনবার বিশ্ববিদ্যালয়টির ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। এছাড়াও তিনি প্রতিষ্ঠার পর থেকে বেশ কয়েকবার এনএসইউ ফাউন্ডেশনের এন্ডোর্সমেন্ট কমিটির চেয়ারম্যান হিসেবে নিয়োজিত ছিলেন।

বিশিষ্ট শিল্পপতি এম এ কাসেম জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় এবং বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে তিন বছর মেয়াদে ২ বার করে উভয় সিন্ডিকেট কমিটির সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি বাংলাদেশের বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় সমিতির প্রাক্তন চেয়ারম্যান হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন।

এম এ কাসেম ফেনীর এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। দেশের শিল্পকারখানা ও ব্যবসায়িক সম্প্রদায়ের শীর্ষ সংগঠন ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের (এফবিসিসিআই) সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

আরও পড়ুন : ঢাবির ৮ অনুষদে ভারপ্রাপ্ত ডিন নিয়োগ

তিনি সাউথ ইস্ট ব্যাংকের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান এবং বর্তমান পরিচালক হিসেবেও দায়িত্ব পালন করছেন।

তার অঞ্চলে সুবিধাবঞ্চিত শিক্ষার্থীদের বৃত্তি ও উপবৃত্তি প্রদানের মাধ্যমে শিক্ষার প্রসারে ভূমিকা রাখতে তিনি “এম কাসেম ট্রাস্টের” প্রতিষ্ঠা করেন।

এম কাসেম ট্রাস্টের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান তিনি। তার নিজ এলাকায় “তারেক মেমেরিয়াল ইব্রাহিম-জেনারেল হাসপাতাল” নামে একটি আধুনিক অলাভজনক হাসপাতাল প্রতিষ্ঠা করেন যা ন্যূনতম ব্যয়ে এই অঞ্চলের জনগণকে, বিশেষত সুবিধা বঞ্চিতদের জন্য সমস্ত ধরনের চিকিৎসা সেবা প্রদান করে চলছে।

jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: +8801721978664

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড