• শনিবার, ১৫ আগস্ট ২০২০, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৭  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

মাহিরের মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে শাবি শিক্ষার্থীদের পৃথক বিবৃতি

  শাবিপ্রবি প্রতিনিধি

১৭ জুন ২০২০, ২২:০৩
শাবিপ্রবি
ছবি : সংগৃহীত

সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সদ্য প্রয়াত নেতা মোহাম্মদ নাসিমকে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কটূক্তি করে স্ট্যাটাস দেওয়ার অভিযোগ এনে বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষার্থী মাহির চৌধুরীর বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (শাবিপ্রবি) প্রশাসন।

দায়েরকৃত মামলাকে হয়রানিমূলক ও অযৌক্তিক দাবি করে নিন্দা ও অবিলম্বে মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান ও সাবেক শিক্ষার্থীরা।

বুধবার (১৭ জুন) বিশ্ববিদ্যালয়ের ২৮৬ জন সাবেক ও ১১২০ জন বর্তমান শিক্ষার্থীর স্বাক্ষর সম্বলিত পৃথক দুইটি সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানো হয়।

বর্তমান শিক্ষার্থীরা তাদের বিবৃতিতে বলেন, মাহির চৌধুরীর দেওয়া ফেসবুক স্ট্যাটাসকে কেন্দ্র করে তাকে হুমকি ও হেনস্থা করা হলে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন তাকে রক্ষা না করে বরং তার বিরুদ্ধেই মামলা দায়ের করেছে। যা শিক্ষার্থীদের সঙ্গে প্রশাসনের সম্পর্ক নিপীড়ন ও দমনমূলক এবং তাদের অধীনে শিক্ষার্থী নিরাপদ নয় সেটা প্রমাণ করছে।

বিবৃতিতে শিক্ষার্থীরা এই হয়রানিমূলক মামলা প্রত্যাহার করে সব শিক্ষার্থীর কাছে প্রাতিষ্ঠানিকভাবে ক্ষমা চাওয়া দাবি জানান। একই সঙ্গে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ২০১৮ কে ‘নিপীড়নমূলক আইন’ হিসেবে অভিহিত করে তা বাতিলেরও দাবি জানান।

অন্যদিকে সাবেক শিক্ষার্থীরা তাদের পৃথক বিজ্ঞপ্তিতে বলেন, আইন অনুযায়ী বিশ্ববিদ্যালয় মামলা করতে পারে যদি বিশ্ববিদ্যালয়ের অভ্যন্তরে জানমালের কেউ ক্ষতি সাধন করে এবং নিরাপত্তাকর্মীরা তা নিয়ন্ত্রণ করতে না পারেন। কিন্তু মাহির চৌধুরীর ফেসবুক পোস্টে এমন কোনো আলামত ছিল না যার কারণে বিশ্ববিদ্যালয়ের অভ্যন্তরে কোনো ক্ষতি হতে পারে।’

বিবৃতিতে তারা আরও বলেন, মাহিরের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ ও মামলা দায়ের স্বাধীন ও মুক্ত ক্যাম্পাস এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল চেতনাবিরোধী। শিক্ষক বা শিক্ষার্থী কারোরই কোনো ‘অসৌজন্যমূলক’ লেখার কারণে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনের মামলা করার এখতিয়ার নেই।

বিবৃতিতে বলা হয়, শিক্ষক বা শিক্ষার্থীদের নাগরিক অধিকার হরণ ও বাকস্বাধীনতাকে রুদ্ধ করে কোনো বিশ্ববিদ্যালয়ের মান-সম্মান বৃদ্ধি পায় না বরং এভাবে জিঘাংসামূলক নিষ্ঠুর আচরণ করে কখনো জ্ঞানচর্চা অব্যাহত রাখা যায় না।

বিবৃতিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের গণতান্ত্রিক পরিবেশ নষ্ট হওয়া এবং চলমান শিক্ষার্থীর চলাচল ও মতপ্রকাশের স্বাধীনতা ক্ষুণ্ণ হওয়ায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশের পাশাপাশি সাবেক শিক্ষার্থীরা বিবৃতিতে চারদফা দাবি জানিয়েছেন।

আরও পড়ুন : গণস্বাস্থ্য মেডিকেলে ইন্টার্নদের কর্মবিরতির আজ তৃতীয় দিন

দাবিসমূহ হলো- অবিলম্বে মাহির চৌধুরীর বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মামলা প্রত্যাহার করতে হবে, বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ সকলের বাক-স্বাধীনতা ও মত প্রকাশের স্বাধীনতা নিশ্চিত করতে হবে, ক্যাম্পাসের যে কোনো ভিন্নমতাবলম্বী শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের যাবতীয় হুমকি থেকে হেফাজত নিশ্চিত করতে হবে, অন্যের দ্বারা প্ররোচিত হয়ে, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে সর্বাবস্থায় অভিভাবকসুলভ, নিরপেক্ষ ভূমিকা পালন করতে হবে এবং ক্যাম্পাসে সর্বাত্মক গণতান্ত্রিক পরিস্থিতি নিশ্চিত করতে হবে।

উল্লেখ্য, সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ নেতা মোহাম্মদ নাসিমের মৃত্যুতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সমালোচনামূলক পোস্ট দেওয়ায় শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের চতুর্থ বর্ষের (২০১৬-১৭ ব্যাচ) শিক্ষার্থী মাহির চৌধুরীর বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। তবে স্ট্যাটাসটি দেওয়ার কিছুক্ষণ পরই ওই শিক্ষার্থী তার ফেসবুক ওয়াল থেকে পোস্টটি মুছে ফেলেন। পাশাপাশি পোস্টটির জন্য ক্ষমা প্রার্থনা ও দুঃখ প্রকাশ করেন।

jachai
nite
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
jachai

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড