• বুধবার, ০৮ জুলাই ২০২০, ২৪ আষাঢ় ১৪২৭  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

নর্থ সাউথের চার কর্মকর্তার জালিয়াতি-অনিয়ম তদন্তে কমিটি

  ক্যাম্পাস ডেস্ক

০৩ জুন ২০২০, ২৩:২২
নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়
ছবি : সংগৃহীত

রাজধানীর অন্যতম বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটির (এনএসইউ) চার শিক্ষক-কর্মকর্তার জঙ্গিবাদে সম্পৃক্ততা, গবেষণায় অনিয়ম, প্রশাসনিক ও আর্থিক দুর্নীতিসহ নানা অভিযোগ তদন্তে দুটি কমিটি করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। সম্প্রতি শিক্ষা মন্ত্রণালয় প্রেরিত নির্দেশনার পরিপ্রেক্ষিতে এ দুটি কমিটি গঠন করা হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আতিকুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

যে চারজনের বিরুদ্ধে তদন্ত চলছে তারা হলেন- বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপ-উপাচার্য ও স্বাস্থ্য-জীবন বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক জিইউ আহসান, প্রক্টর অধ্যাপক নাজমুল আহসান খান, পরিচালক (প্রশাসন) মোহাম্মাদ সাবের ও চিফ সিকিউরিটি অফিসার এম ইমরান।

প্রথম দুজনের বিরুদ্ধে গবেষণায় অনিয়মের অভিযোগের তদন্ত চলছে। তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ, দুজন মিলে প্রধানমন্ত্রীর স্বাক্ষর জালিয়াতির হোতা ছাত্রলীগ নেতা (বহিষ্কৃত) তরিকুল ইসলামকেএকটি বিদেশি গবেষণায় সিনিয়র লেখক হিসেবে দেখিয়েছেন। প্রথমে তার নাম এবং পরে জিইউ আহসান ও নাজমুল আহসানের নাম পাঠানো হয় সেই গবেষণার আবেদনে। অথচ তরিকুল ইসলাম তখন নর্থ সাউথের ছাত্রই ছিলেন না। তাছাড়া ওই গবেষণায় তার কোনো অবদানও ছিল না। এ অভিযোগটি তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচালক (গবেষণা) নরম্যান সোয়াজকে।

আরও পড়ুন : শ্বাসকষ্টে ভিকারুননিসার শিক্ষকের মৃত্যু

অপরদিকে সাবের ও ইমরানের বিরুদ্ধে প্রশাসনিক ও আর্থিক অনিয়ম-দুর্নীতিসহ আরও কয়েকটি অভিযোগ উঠেছে। এসব অভিযোগ তদন্তে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ইসমাঈল হোসাইন এবং পরিচালক জাফর ইকবাল রাসেলকে সদস্য সচিব করে কমিটি করা হয়েছে। এতে সিনিয়র অধ্যাপক মোস্তফা কামাল খান এবং সংশ্লিষ্ট তিনটি অনুষদের তিনজন ডিনকে সদস্য করা হয়েছে।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আতিকুল ইসলাম বলেন, ‘তিন কর্মকর্তা ও একজন শিক্ষকের বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে তদন্ত কমিটি করা হয়েছে। তদন্ত চলাকালে চারজনকে সব ধরনের দায়িত্ব থেকে সাময়িকভাবে অব্যাহতি দেও য়া হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল কার্যক্রমে তাদের প্রবেশাধিকারে নিষেধাজ্ঞাও দেওয়া হয়েছে। অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেলে তাদের চাকরিচ্যুত করাসহ আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড