• সোমবার, ০৬ এপ্রিল ২০২০, ২৩ চৈত্র ১৪২৬  |   ২৬ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

জোহার মৃত্যুর সংবাদে গড়াগড়ি দিয়ে কেঁদেছিল সবাই

  রাবি প্রতিনিধি

১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ২০:৫৫
জোহা স্মারক বক্তৃতা
জোহা স্মারক বক্তৃতা প্রদান করছেন রাবির সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক সাইদুর রহমান খান (ছবি : দৈনিক অধিকার)

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক শহীদ ড. শামসুজ্জোহার শাহাদাতের দিনের স্মৃতি তুলে ধরে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক সাইদুর রহমান খান বলেন, তখন আমি মাস্টার্সের শিক্ষার্থী। আন্দোলনের তীব্র মুহূর্তে শিক্ষার্থীরা ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করে মেইন গেটের সামনে মহাসড়কে উঠেছে, শহরের দিকে মিছিল নিয়ে যাবে। 

ড. জোহা স্যার বিষয়টি জানতে পেরে সেখানে উপস্থিত হয়ে শিক্ষার্থীদের বাজারের দিকে যেতে বারণ করেন। ড. জোহা শিক্ষার্থীদের অনুরোধ করে বলেন, তোমরা ওইদিক যেও না। আজকে পাকিস্তানি সেনারা কোনো অঘটন ঘটাতে পারে। ওইদিন ছাত্রদের তিনি রাস্তা থেকে সরাতে পেরেছিলেন।

অধ্যাপক সাইদুর রহমান বলেন, পরে পাকিস্তানি সেনারা এলে জোহা স্যার সেখানে তাদের সঙ্গে কথা বলেন। একপর্যায়ে ড. জোহাকে উত্তেজিত হয়ে কথা বলতে শুনি। তারপর আমরা সেখান থেকে চলে আসি, বিকালে কিছু শিক্ষককে সেনাবাহিনীর গাড়িতে করে শহরে নিয়ে যাওয়া হয়। শিক্ষার্থীরা সকলে উদ্বিগ্ন পাকিস্তানি বাহিনী আমাদের শিক্ষকদের কোথায় নিয়ে গেল? কোনো যোগাযোগ নেই। এখনকার মতো তখন যোগাযোগ এতটা সহজ ছিল না। তখন মোবাইলও ছিল না। 

তিনি আরও বলেন, বিকালের পরে সে সময়ের উপাচার্য শামস-উল-হক স্যারকে মেডিকেল থেকে টেলিফোন করে জানানো হলো সকলের প্রিয় জোহা স্যার আর বেঁচে নেই। তাকে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী অমানুষিক নির্যাতন করে শহীদ করেছে। আমি দেখেছি এই কথা শোনার পর শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা হাউ-মাউ করে কান্না শুরু করেন। অনেকে মাটিতে গড়াগড়ি দিয়েও সে দিন কান্না করেছিল।

মঙ্গলবার রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ সিনেট ভবনে ‘জোহা স্মারক বক্তৃতা’ প্রদানের সময় এসব স্মৃতিচারণ করেন অধ্যাপক সাইদুর রহমান খান। রসায়ন বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক বেলায়েত হোসেন হাওলাদারের সভাপতিত্বে সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন- বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহান, উপউপাচার্য অধ্যাপক আনন্দ কুমার সাহা ও চৌধুরী মো. জাকারিয়া, পদার্থবিজ্ঞানের ইমেরিটাস অধ্যাপক অরুণ কুমার বসাক প্রমুখ।

আরও পড়ুন : বশেমুরবিপ্রবির সমস্যা সমাধানে কমিটি, আন্দোলন চলবে

প্রসঙ্গত ১৯৬৯ সালের আজকের দিনে শহীদ হন রাবির রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক ও প্রক্টর অধ্যাপক ড. সৈয়দ মোহাম্মদ শামসুজ্জোহা। এরপর থেকে দিনটিকে রাবিতে জোহা দিবস ও শিক্ষক দিবস হিসেবে পালিত হয়ে আসছে।

ওডি/জেআই 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড