• শুক্রবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৫ ফাল্গুন ১৪২৬  |   ২৩ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

বেরোবি উপাচার্যকে অধিকার সুরক্ষা পরিষদের স্মারকলিপি

  বেরোবি প্রতিনিধি

১২ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৪:২০
বেরোবি
অধিকার সুরক্ষা পরিষদের স্মারকলিপি (ছবি : সংগৃহীত)

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি) শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের সার্বিক স্বার্থ তথা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বার্থ সংরক্ষণে উপাচার্য বরাবর স্মারকলিপি দিয়েছে ‘অধিকার সুরক্ষা পরিষদ’।

মঙ্গলবার (১১ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে উপাচার্যের সঙ্গে সরাসরি দেখা না হওয়ায় তার অফিস কক্ষের দরজায় এ স্মারকলিপি ঝুলিয়ে দেয় অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ। 

এতে মোট ২১টি দাবি জানানো হয়েছে। দাবিগুলো হলো- মহামান্য চ্যান্সেলর কর্তৃক প্রদত্ত নিয়োগ শর্ত অনুযায়ী সার্বক্ষণিক বিশ্ববিদ্যালয়ে অবস্থান, ২০১৯-২০২০ শিক্ষাবর্ষে বি-ইউনিটের অভিযুক্ত ভর্তি জালিয়াতির প্রকৃত রহস্য উদঘাটন এবং অপরাধী ব্যক্তিদের শাস্তি প্রদান, বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট, নিয়োগ বোর্ড, অর্থ কমিটির সভাসহ সকল প্রকার সভা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে অনুষ্ঠান, অনুষদে উপস্থিত বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় আইন ২০০৯ অনুযায়ী যোগ্য শিক্ষককে ডিন ও বিভাগে উপস্থিত যোগ্য শিক্ষককে বিভাগীয় প্রধানের দায়িত্ব প্রদান, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় আইন ২০০৯ ব্যত্যয় করে যে সকল বিভাগে বিভাগীয় প্রধান নিযুক্ত করা হয়েছে সে সকল ক্ষেত্রে নিয়োগপত্র সংশোধন, এবং আইন অনুযায়ী উক্ত পদে পুনর্নিয়োগ প্রদান, অর্থ কমিটির ২৫তম সভার ১৪ নং সিদ্ধান্ত বাতিল করে স্মারক নম্বর বেরোবি/ রেজি/ অআ/১০/২০১৮/৭৯৯৪ অফিস আদেশ মোতাবেক ড. মো. জাকির হোসেনের বেতন-ভাতাদির সমন্বয় এবং ক্ষতি পূরণ হিসেবে অর্জিত তারিখ হতে তাঁর আপগ্রেডেশনের ব্যবস্থাকরণ, অস্থায়ী পদে/ শিক্ষা ছুটির বিপরীতে কর্মরত মহুয়া শবনম, প্রভাষক, ভূগোল ও পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগ; সুকান্ত দাস, প্রভাষক, পরিসংখ্যান বিভাগ; মো. রাকিবুল হাফিজ খাঁন রাকিব, প্রভাষক, মার্কেটিং বিভাগ এবং মোছাম্মত আইরিন আক্তার, প্রভাষক, গণিত বিভাগের পরবর্তী পদে আপগ্রেডেশনের অর্জিত তারিখ অতিক্রান্ত হয়ে গেছে, তাদেরকে আগামী ১৫ (পনেরো) কার্যদিবসের মধ্যে স্থায়ী পদে পদায়নপূর্বক আপগ্রেডেশনের ব্যবস্থাকরণ, প্রদীপ কুমার সরকার, সহকারী অধ্যাপক, কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের পে-প্রোটেকশন দিতে হবে, যে কোনো প্রকার লবিং-গ্রুপিং ব্যতিরেকে প্রযোজ্য ক্ষেত্রে জরুরি সিন্ডিকেট আহ্বান করে হলেও ইংরেজি বিভাগের প্রভাষক জনাব মৌটুসি রায় এবং লোকপ্রশাসন বিভাগের প্রভাষক সামান্তা তামরিনের আপগ্রেডেশনসহ সকল প্রকার আপগ্রেডেশন/প্রমোশন ১৫ (পনেরো) কার্যদিবসের মধ্যে সম্পন্ন করণ, সকল বিভাগে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় আইন ২০০৯ অনুযায়ী বিভাগীয় প্ল্যানিং কমিটি গঠন এবং যে সকল বিভাগে আইনের ব্যত্যয় ঘটানো হয়েছে তা সংশোধন করে প্ল্যানিং কমিটির পুনর্গঠন।

এছাড়া অস্বচ্ছ নিয়োগ প্রক্রিয়া বন্ধ করতে হবে এবং আইন অনুযায়ী গ্রহণযোগ্য নিয়োগ বোর্ড গঠন, নিয়োগ প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে লিখিত পরীক্ষা নিয়োগ বোর্ডের সকল সদস্যের অংশগ্রহণের মাধ্যমে গ্রহণযোগ্য পদ্ধতিতে সম্পন্নকরণ, অননুমোদিত অনিয়মতান্ত্রিক বুনিয়াদি প্রশিক্ষণ বন্ধ করতে হবে, বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রারকে সার্বক্ষণিক বিশ্ববিদ্যালয়ে অবস্থান করতে হবে, অন্যথায় তার নিয়োগ চুক্তি বাতিল করে নতুন রেজিস্ট্রার নিয়োগ দিতে হবে, উপাচার্য হিসেবে আপনার ব্যক্তিগত সচিব মো. আমিনুর রহমান ও ব্যক্তিগত সহকারী মো. আবুল কালাম আজাদকে ব্যক্তিগত সচিব ও ব্যক্তিগত সহকারী পদ থেকে অপসারণ করতে হবে, শিক্ষাছুটিরত পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক জনাব খন্দকার শারমিন আশরাফীর শিক্ষাছুটিজনিত জটিলতা সমাধান করতে হবে।

আরও পড়ুন : জুনিয়রের হেনস্তায় সিনিয়রের আত্মহত্যা চেষ্টা!

একই সঙ্গে, বিশ্ববিদ্যালয়ের উচ্চশিক্ষা ও গবেষণারত শিক্ষকবৃন্দের স্ববেতনে ৫ বছরসহ মোট শিক্ষা ছুটি ৭ বছর নির্ধারণের লক্ষ্যে শিক্ষা ছুটি নীতিমালা প্রণয়নে কমিটি গঠন করতে হবে এবং উচ্চশিক্ষা লাভে বিদেশগামী শিক্ষকবৃন্দের শিক্ষা ছুটি অনুমোদনে সচিবালয়ের আমলাতান্ত্রিকতা বন্ধ করতে হবে, বিশ্ববিদ্যালয়ের চাকরি বিধিমালা প্রণয়নে কমিটি গঠন করতে হবে, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের জন্য শিক্ষা বৃত্তি চালু করতে হবে, শেখ হাসিনা হল ও ড. ওয়াজেদ মিয়া রিসার্চ ইনস্টিটিউটের নির্মাণ কাজ দ্রুত সম্পন্ন করতে হবে, আবাসিক হলসমূহে ভর্তুকি দিতে হবে এবং অতি দ্রুত সময়ের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটক, খেলার মাঠ, অডিটোরিয়ামসহ উচ্চ আসন ধারণ সম্পন্ন ছাত্র হল স্থাপনের ব্যবস্থা করতে হবে, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের দমন-নিপীড়ন বন্ধ করে সকল ন্যায্য দাবি মানতে হবে, এই মুজিব বর্ষের মধ্যে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও মহীয়সী নারী রোকেয়া সাখাওয়াত হোসেনের প্রতিকৃতি স্থাপন করতে হবে, যথাযথ প্রক্রিয়া অনুসরণ করে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ব্যাংকের শাখা স্থাপন করতে হবে।

ইতোপূর্বে অবৈধভাবে অনুমোদিত ব্যাংকের কার্যক্রম বাতিল করতে হবে, জার্নাল প্রকাশে অনিয়ম এবং জার্নাল প্রকাশনা ও বিক্রয়ে বাণিজ্য বন্ধ করতে হবে।

ওডি/এমএ

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড