• মঙ্গলবার, ০৪ আগস্ট ২০২০, ২০ শ্রাবণ ১৪২৭  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

বশেমুরবিপ্রবির অস্থায়ী কর্মচারীদের ৩ দাবি

  বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধি

০৮ ডিসেম্বর ২০১৯, ২১:৫৯
বশেমুরবিপ্রবি
অস্থায়ী কর্মচারীদের মানববন্ধন (ছবি : দৈনিক অধিকার)

গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বশেমুরবিপ্রবি) দৈনিক মজুরি ভিত্তিক অস্থায়ী কর্মচারীরা ৩ দফা দাবিতে মানববন্ধন করেছে।

রবিবার (৮ ডিসেম্বর) সকাল ১০ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সামনে প্রায় শতাধিক কর্মচারীর উপস্থিতিতে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। তাদের দাবিসমূহ- দৈনিক মজুরি ভিত্তিতে কর্মরতদের স্থায়ী নীতিমালা প্রণয়ন, চাকরি স্থায়ী করণ ও বকেয়া বেতন প্রদান।

দৈনিক মজুরি ভিত্তিক কর্মচারীরা দৈনিক অধিকারকে জানান, ‘আমরা দীর্ঘ ৪ বছর যাবত দৈনিক মজুরি ভিত্তিতে কর্মরত আছি। সাবেক উপাচার্য খোন্দকার নাসিরউদ্দিনের সময়ে বিভিন্ন মাধ্যমে তাদেরকে কোনো নীতি না মেনেই দৈনিক মজুরি ভিত্তিতে কাজের সুযোগ দেওয়া হয়। ইতোমধ্যে বেশিরভাগ লোকের সরকারি চাকরির বয়স সীমা শেষ হয়ে গেছে। বর্তমানে আমাদের ভবিষ্যত অনিশ্চিত ও হুমকি স্বরূপ। বর্তমান বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ আমাদের ব্যাপারে কোনো সিদ্ধান্ত দিচ্ছেনা। আমরা ১৭৬ জন কর্মচারী ৪ মাস যাবত কোনো বেতন-ভাতা পাচ্ছিনা। এমতাবস্থায় আমরা স্ত্রী-সন্তান নিয়ে খুবই দুর্বিষহ জীবন যাপন করছি।’

তারা আরও অভিযোগ করে বলেন, ‘ইউজিসি কর্তৃক তাদের জন্য বাজেট বরাদ্দ থাকা সত্ত্বেও তারা নিজেদের বেতন-ভাতা ঠিকমতো পাচ্ছেন না।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার স্বাক্ষরিত একটি তথ্য উপাত্তে দেখা যায়, ২০১৯-২০ অর্থবছরে ইউজিসি কর্তৃক বিশ্ববিদ্যালয়ের ২৬৪ জন স্থায়ী নিয়োগপ্রাপ্ত কর্মচারীদের জন্য ২ কোটি ৬৫ লাখ টাকা বাজেট দেয়া হয়। এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের দৈনিক মজুরি ভিত্তিতে কর্মরত অস্থায়ী কর্মচারীদের জন্য কোনো বাজেট বরাদ্দ দেয়া হয়নি। ২০১৯ সালের ১২ মার্চ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি) কর্তৃক বেশ কয়েকটি সুপারিশ করা হয়। এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের দৈনিক মজুরি ভিত্তিক কর্মচারীর সংখ্যা কমিয়ে আনার সুপারিশ করা হয় এবং আউটসোর্সিং এর মাধ্যমে লোক নিয়োগের জন্য অনুরোধ করা হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের অডিট অফিসার ফয়সাল আহমেদ নিরীক্ষিত আরেকটি নথিতে মজুরি ভিত্তিতে কর্মরত কর্মচারীদের ২০১৯ সালের মার্চ মাসের বেতন-ভাতা বাবদ ৭ লাখ ৫৯ হাজার ৮৫০ টাকা প্রদান করা হয়েছিল। পরবর্তীতেও এই ধারা অব্যাহত ছিল। তবে আগস্ট মাস থেকে তাদের বেতন ভাতা বন্ধ হয়ে যায়।

এ ব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. শাহজাহান এর সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি ব্যস্ততার কথা বলে কোনো বক্তব্য দিতে রাজি হননি।

ওডি/এমএ

jachai
nite
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
jachai

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড