• শনিবার, ০৮ আগস্ট ২০২০, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৭  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ডাকসু ভিপিকে হলে ঢুকতে ছাত্রলীগের বাধা

  ঢাবি প্রতিনিধি

০৩ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৯:৫৮
ঢাবি
ভিপি নুরের সঙ্গে ছাত্রলীগের বাকবিতণ্ডা (ছবি : দৈনিক অধিকার)

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) ভিপি নুরুল হক নুরকে ঢাবির গণরুমে প্রবেশে ছাত্রলীগ কর্তৃক বাধা প্রদানের অভিযোগ উঠেছে।

মঙ্গলবার (৩ ডিসেম্বর) ঢাবির বিজয় একাত্তর হলে এই ঘটনা ঘটে। গণরুমে অবস্থানরত শিক্ষার্থীদের খোঁজ খবর নিতে গেলে তাকে বাধা প্রদান করা হয়।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, ডাকসুর ভিপি নুরুল হক বিজয় একাত্তর হলের ক্যান্টিনে দুপুরে খাবার খেতে আসেন। খাবার গ্রহণ শেষে গণরুমে শিক্ষার্থীদের খোঁজ-খবর নিতে গেলে সেখানে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের দ্বারা হেনস্তার শিকার হয়েছেন। ভিপি নুর গণরুমে ঢুকতে দরজায় আসলে ছাত্রলীগের কয়েকজন কর্মী এসে একটি রুমের দরজা আটকে দেয়।

পরে আরেকটি রুমে ঢুকলে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা ভিপি নুরের সঙ্গে বাকবিতণ্ডায় জড়ায়। একপর্যায়ে ধাক্কাধাক্কি করে নুরের হাত ধরে টানাটানি করে সাদিক নামের এক ছাত্রলীগ কর্মী। এ সময় গণরুম ছাত্রলীগের রুম বলে দাবি করে তারা এবং কেন এসেছে প্রশ্ন করে উচ্চস্বরে কাউকে কাউকে গালাগালি করতে শোনা যায়।

এছাড়া ভিপির সঙ্গে থাকা ডাকসু সমাজসেবা সম্পাদক আখতার হোসেন, সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক মুহাম্মদ রাশেদ খাঁন, ফারুক হোসেনসহ অন্যরাও ধাক্কাধাক্কি এবং হেনস্তার শিকার হয়েছেন।

বিজয় একাত্তর হলের গণরুমে যাওয়া প্রসঙ্গে ভিপি নুরুল হক বলেন, ‘আমরা কয়েকজন বিজয় একাত্তর হলে দুপুরে খেতে গিয়েছিলাম। ১ম বর্ষের কয়েকজন শিক্ষার্থী কথা বলার আগ্রহ প্রকাশ করলে আমরা গণরুমে যাই। সেখানে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলতে চাইলে ছাত্রলীগ পরিচয়ে কয়েকজন উচ্ছৃঙ্খল আচরণ করে। একই সঙ্গে অশ্রাব্য ভাষা ব্যবহার করে। আমি হল প্রাধ্যক্ষকে বিষয়টা অবহিত করেছি তিনি বলেছেন বাইরে আছেন।’

ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের অভিযোগ-অনুমতি নিয়ে না যাওয়া প্রসঙ্গে জানতে চাইলে ডাকসু ভিপি বলেন, ‘একজন শিক্ষার্থী হিসেবে আরেক হলে গেলে অনুমতি নিতে হয় এমন নিয়ম নেই। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী হিসেবে আমি যেতেই পারি।’

নুরুল হক বলেন, ‘ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়, আমরা কাজ করি না, শিক্ষার্থীদের খোঁজ নেই না। মূলত তারা চায় না, শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আমাদের কানেকশন তৈরি হোক। এর আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যান্য ঘটনায় আপনারা সেটা লক্ষ করেছেন। এর মাধ্যমে আবারও তা প্রমাণ হলো।’

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) প্রক্টর ড. এ কে এম গোলাম রব্বানী বলেন, ‘বিজয় একাত্তর হলের ঘটনাটি আমরা শুনেছি। এখন হল প্রশাসনের সঙ্গে যোগাযোগ করে সেখানে কী হয়েছে তা জানার পর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’ তবে ভিপি নুরুল হক বিজয় একাত্তর হল প্রশাসনের কাছ থেকে অনুমতি নিয়ে সেখানে গেছে কি না তাও জানতে হবে বলে মন্তব্য করেন প্রক্টর।

ওডি/এমএ

jachai
nite
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
jachai

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড