• শুক্রবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬  |   ১৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

অ্যাকাডেমিক সংকট নিরসনে তিতুমীরে ১০ তলার দুই ভবন

  জিটিসি প্রতিনিধি

১৮ নভেম্বর ২০১৯, ২০:৫৪
তিতুমীর কলেজ
নির্মাণাধীন ১০ তলা বিশিষ্ট দুই অ্যাকাডেমিক ভবন (ছবি : দৈনিক অধিকার)

শিক্ষার্থী সংখ্যার দিক থেকে দেশের বৃহত্তম কলেজ রাজধানীর সরকারি তিতুমীর কলেজ। কলেজটিতে ৫৮ হাজার শিক্ষার্থীর প্রত্যহ পদচারণা থাকলেও ক্লাস, পরীক্ষার জন্য নেই তেমন কোনো অ্যাকাডেমিক ভবন। ক্লাস রুমের সংকট প্রকট। তবে খুব শিগগিরই এই সংকট কাটাবে তিতুমীর কলেজ।

কলেজটিতে ১০ তলা বিশিষ্ট দুইটি অ্যাকাডেমিক ভবন নির্মাণের কাজ চলছে। কাজও চলছে দ্রুতগতিতে। সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ভবন দুটির কাজ ৭ তলা ছুঁয়ে একটির ৮ তলা এবং অপরটির ৬ তলা ছুঁয়ে ৭ তলায় কাজে হাত দিয়েছেন শ্রমিকরা। 

কলেজের দ্বিতীয় গেট দিয়ে ঢুকেই বাম পাশে দৃশ্যমান নির্মাণাধীন বিশাল প্রকল্পের এই বিল্ডিং দুটি। নির্মাণকাজ শেষ হলে এই দুটিই হবে তিতুমীর কলেজের সবথেকে বড় ভবন। যার পুরোটা ব্যবহার হবে শিক্ষার্থীদের অ্যাকাডেমিক ভবন হিসেবে। এর ফলে শিক্ষার্থীদের ক্লাস পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার কষ্ট অনেকাংশেই লাঘব হবে।

ভবনটির সাত তলায় কর্মরত শ্রমিকরা দৈনিক অধিকারকে জানান, ‘আমরা অনেক দ্রুতগতিতে কাজ করছি। যা চোখে পড়ার মতো। আপনারা নিজেরাও তো চোখের সামনে দেখেছেন আমরা কীভাবে দিনরাত কাজ করছি।’ 

ভবনের বিভিন্ন তলায় কী কী থাকছে এমন প্রশ্নের জবাবে আকরাম নামে আরেক শ্রমিক জানান, প্রত্যেক তলায় দুইটা বড় রুম, বাথরুমের জায়গা এবং পাশাপাশি লিফটের জন্য একটা স্পেস তারা রেখে দিচ্ছে।

যে ভবনটির কাজ বেশি এগিয়েছে সেটির নিচ তলা এবং ওপরের তলায় অর্থাৎ ভবনটির প্রথম এবং দ্বিতীয় তলায় প্রাথমিক কিছু কাজ করে ‘নতুন ভবন’ নামে ক্লাস পরীক্ষার কার্যক্রমগুলো চালানো হচ্ছে। 

সাথি মজুমদার নামে দ্বিতীয় বর্ষের এক শিক্ষার্থী বলেন, ‘ক্লাস করার সময় দেখি বাইরে আরেকটা ক্লাসের স্টুডেন্ট, টিচার ভেতরের ক্লাস শেষ হওয়ার জন্য অপেক্ষা করেন। এটা আমরা যারা ক্লাস করি তাদের জন্যও যেমন বিরক্তিকর, তেমনি শিক্ষকদের জন্যও বেশ বিব্রতকর। তবে অ্যাকাডেমিক ভবন নির্মাণ দেখে আমরা ভালো কিছুর স্বপ্ন দেখি। এই কষ্ট লাঘব হোক।’

এ বিষয়ে তিতুমীর কলেজের অধ্যক্ষ মো. আশরাফ বলেন, ‘চলমান ১০ তলা বিশিষ্ট ২টি অ্যাকাডেমিক ভবনের নির্মাণ কাজ শেষ হতে কিছুটা সময় লাগবে। তবে আপাতত শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা, ক্লাসের চাপ সামলাতে আমরা নিচের ২ তলা পর্যন্ত ব্যবহার করছি।’ 

তবে কলেজের অন্যান্য ভবনের মতো এই ভবন দুটির নামকরণ নিয়ে কলেজ কর্তৃপক্ষ এখন পর্যন্ত তেমন কিছু ভাবেননি বলেও জানান তিনি।

ওডি/এমএ

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন সজীব 

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড