• মঙ্গলবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

পর্দা নামল মানারাত ইউনিভার্সিটির ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সপ্তাহের

  বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি

১২ নভেম্বর ২০১৯, ১৭:১৮
মানারাত ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি
মানারাত ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি (ছবি : সংগৃহীত)

রাজধানীর বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় মানারাত ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে (এমআইইউ) ‘ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সপ্তাহ-২০১৯’ এর পর্দা নামল আজ।

মঙ্গলবার (১২ নভেম্বর) আশুলিয়ায় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থায়ী ক্যাম্পাসের খেলার মাঠে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে দুই দিনব্যাপী এবারের আসর শেষ হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ ও ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য হাফিজুল ইসলাম মিয়া।

ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সপ্তাহ উপলক্ষে রঙ-বেরঙের পতাকা ও বেলুনে সাজানো হয় বিশ্ববিদ্যালয়ের খেলার মাঠ।

পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মাঝে উপস্থিত ছিলেন- স্কুল অব ইঞ্জিনিয়ারিং সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজির ডিন অধ্যাপক ড. এম. কোরবান আলী, জার্নালিজম অ্যান্ড মিডিয়া স্টাডিস বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ড. এম. জাহাঙ্গীর কবির, ফার্মেসি বিভাগের প্রধান ও সহযোগী অধ্যাপক ড. নার্গিস সুলতানা চৌধুরী, আইন বিভাগের প্রধান জিয়াউর রহমান মুন্সি, স্থায়ী ক্যাম্পাসের স্পোর্টস ক্লাবের মডারেটর ও (ইইই) বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সাঈদ ইসলাম, আইন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ও স্পোর্টস ক্লাবের মডারেটর আবদুল্লাহ হিল গনি, ডেপুটি রেজিস্ট্রার (ইনচার্জ) আলমগীর হোসেইন, আইন বিভাগের লেকচারার ও সহকারী মডারেটর হোসনে আরা, ইইই বিভাগের লেকচারার ও কালচারাল ক্লাবের সহকারী মডারেটর রফিকুল ইসলাম, জার্নালিজম অ্যান্ড মিডিয়া স্টাডিজ বিভাগের লেকচারার এবং কালচারাল ও স্পোর্টস ক্লাবের সহকারী মডারেটর রেহানা সুলতানা, স্পোর্টস ক্লাবের সহকারী মডারেটর ও জার্নালিজম অ্যান্ড মিডিয়া স্টাডিজ বিভাগের লেকচারার মো. বোরহান উদ্দীন প্রমুখ।

পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য হাফিজুল ইসলাম মিয়া প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়া শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে বলেন, ‘পড়াশোনার পাশাপাশি মানারাত ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি শিক্ষার্থীদের মেধা বিকাশে এক্সট্রা কারিকুলার অ্যাক্টিভিটিসের প্রতি সবসময় গুরুত্ব দিয়ে আসছে। এরই অংশ হিসেবে ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সপ্তাহ-২০১৯ আয়োজন করা হয়েছে।’

এবারের ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সপ্তাহ-২০১৯ উপলক্ষে শিক্ষার্থী ও কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জন্য বিভিন্ন খেলাধুলার আয়োজন করা হয়। এসব খেলার মধ্যে ছিল- ছাত্রদের জন্য ফুটবল টুর্নামেন্ট, মোরগ লড়াই, বেলুন ফুটানো, বল নিক্ষেপ প্রতিযোগিতা। ছাত্রীদের জন্য আয়োজন করা হয়- কেরাম খেলা, বেলুন ফুটানো, বালিশ পাসিং, হাড়ি ভাঙ্গা, বল বাস্কেটিং ও চেয়ারে বসা প্রতিযোগিতা।

ছাত্রদের নিয়ে আয়োজন করা ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনালে টেসলা ফিউশনকে ২-০ গোলে হারিয়ে শিরোপা জিতে নেয় এলএফসি দল।

এছাড়া শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের নিয়ে আয়োজন করা হয় প্রীতি ফুটবল ম্যাচ, বাস্কেটিং, বেলুন ফুটানো ইত্যাদি প্রতিযোগিতা।

ওডি/এসএসকে

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন সজীব 

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড