• বুধবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৮, ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৫  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন

মধুপুরের ট্রেন স্কুল

  অধিকার ডেস্ক ০২ নভেম্বর ২০১৮, ১৯:১৮

বিদ্যালয়
দিগরবাইদ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় (ছবি : সংগৃহীত)

ঝক ঝক ঝক ট্রেন চলেছে, রাত দুপুরে অই... ট্রেন চলেছে, ট্রেন চলেছে ট্রেনের বাড়ি কই? কবি শামসুর রহমানের কবিতার সুর ধরেই যেন চলছে টাঙ্গাইলের মধুপুর উপজেলার দিগরবাইদ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। ট্রেনের বগির আদলে রঙ্গিন এই স্কুল মূলত জেলার কোমলমতি শিক্ষার্থীদের জন্য। 

নির্ধারিত গন্তব্যে পৌঁছানোর লক্ষ্যে ট্রেনের যাত্রীদের মতোই কোমলমতি এই শিশুরা শিক্ষার আলো অর্জনের পথে যাত্রা শুরু করে। হাতে থাকে বই, খাতা, কলম আর মনে আলোকবর্তিকা হয়ে গড়ে ওঠার প্রত্যয়। আর তাই জেলার এই বিদ্যালয়টি বর্তমানে ‘ট্রেন স্কুল’ নামে পরিচিত। স্লিপ অনুদানের টাকায় এমন শৈল্পিক চিন্তার বাস্তবায়ন করা হয়েছে বলে জানা গেছে। 

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক তারেকুল ইসলাম নিজ হাতে বিদ্যালয়ের দেয়ালের রংকে ট্রেনের বগির সাজে সাজিয়েছেন।

কথা হয় জেলার শিক্ষার্থী, শিক্ষক ও এলাকাবাসীর সাথে। তারা জানান, বিদ্যালয়টিকে ট্রেনের মতো রং করায় পুরো উপজেলা জুড়ে সুনাম ছড়িয়েছে। নজর কেড়েছে সকলের। এখন অনেকেই দিগরবাইদে আসেন শুধুমাত্র এই স্কুলটিকে এক নজর দেখার জন্য। আর ফিরে যান মুগ্ধতা নিয়ে।

ট্রেন স্কুল (ছবি : সংগৃহীত)

স্কুল দেখতে আসা দুইজন জানান, বিদ্যালয়টি দেখে খুবই ভালো লেগেছে এবং এর শৈল্পিক উপস্থাপনে মুগ্ধ হয়েছি। পঞ্চম শ্রেণির ছাত্র মোখছিদুল আলম রাফি বলেন, আমাদের এ ট্রেন স্কুলের অনুভূতি খুব মজা লাগে।

এ বিষয়ে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক তারেকুল ইসলাম জানান, কবি শামসুর রাহমানের বিখ্যাত কবিতা ‘ট্রেন’ এর বাস্তব চিত্র শিক্ষার্থীদের বোঝানোর জন্যই আমি বিদ্যালয়কে ট্রেনের রঙের আদলে সাজিয়েছি। কোমলমতি শিক্ষার্থীরা যাতে করে মজা পেয়ে লেখাপড়ায় মনযোগী হতে পারে সেই চিন্তা থেকেই বিদ্যালয়টি ট্রেনের মতো আকর্ষণীয় করে সাজানো হয়েছে।

আপনার ক্যাম্পাসের নানা ঘটনা, আয়োজন/ অসন্তোষ সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড