• শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০  |   ২৬ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

উপাচার্য-রেজিস্ট্রারের স্বাক্ষর জালিয়াতি, শিক্ষার্থীর নামে মামলা

  জবি প্রতিনিধি

২৪ মে ২০২৩, ১৬:৪৫
উপাচার্য-রেজিস্ট্রারের স্বাক্ষর জালিয়াতি, শিক্ষার্থীর নামে মামলা

বিভাগ পরিবর্তনের জন্য উপাচার্য, রেজিস্ট্রার, বিভাগের চেয়ারম্যানের স্বাক্ষর ও সিল নকল করার অভিযোগ উঠেছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের সবুজ আহমেদ নামে এক শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে। এ বিষয়ে কোতোয়ালি থানায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ থেকে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

জানা যায়, সবুজ আহমেদ নামের এই শিক্ষার্থী বিভাগ পরিবর্তন করার জন্য নিজেকে হিন্দু শিক্ষার্থী দাবী করে বিভাগীয় চেয়ারম্যান, রেজিস্ট্রার, উপাচার্য, বরাবর আবেদন লিখে তাদের স্বাক্ষর নকল করে কলা অনুষদ ডীন অফিসে আবেদন করেন।

আজ বুধবার বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা অনুষদের ডীন রইছ উদ্দীন আহমেদ এই শিক্ষার্থীর আবেদন যাচাই করতে গেলে জাল স্বাক্ষরের বিষয়টি সামনে আসে।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর বলেন, ঘটনা সামনে আসার পর এই শিক্ষার্থীকে প্রক্টর অফিসে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। সে শাহবাগ থেকে উপাচার্য, রেজিস্ট্রার, চেয়ারম্যানের সিল বানিয়ে স্বাক্ষর করে বিভাগ পরিবর্তনের জন্য ডীন বরাবর আবেদন করেছে।

প্রক্টর আরও বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। এরপর বহিষ্কারের বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

এ বিষয়ে কলা অনুষদের ডীন ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের অধ্যাপক রইছ উদ্দীন বলেন, বিভাগ পরিবর্তনের জন্য রেজাল্ট প্রকাশ করার সময় বিষয়টি আমার সামনে আসে। ডেপুটি রেজিস্ট্রারের কাছে আবেদন গেলে তিনি সন্দেহ হলে আমাকে জানান। এরপর তার সকল কাগজপত্র চেক করে দেখা যায়, সকল কাগজপত্রে জাল সাক্ষর ও সিল দেওয়া।

আপনার ক্যাম্পাসের নানা ঘটনা, আয়োজন/ অসন্তোষ সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড