• রোববার, ১৯ মে ২০২৪, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

নিরাপত্তাহীনতায় সাভারের সিটি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা

  সিটি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি

২০ মে ২০২৩, ১৬:৩৭
নিরাপত্তাহীনতায় সাভারের সিটি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা

সাভারের বিরুলিয়া এলাকাকে কেন্দ্র করে গড়ে ওঠে পাঁচটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে অন্যতম সিটি বিশ্ববিদ্যালয়। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি প্রতিষ্ঠার পরপরই স্থায়ী ক্যাম্পাসে নিজেদের শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনার জন্য বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন তাদের স্থায়ী সনদ প্রদান করেছে।

বিশ্ববিদ্যালয়টি এলাকাবাসী কর্তৃক নানা প্রতিকূল পরিবেশ পাওয়া সত্ত্বেও তাদের সাথে সুন্দর ব্যাবহারের মাধ্যমে সুসম্পর্ক বজায় রেখে চলেছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের কিছু শিক্ষার্থী ক্যাম্পাস এরিয়ার বাহিরেও বিভিন্ন ম্যাচ বা বাসায় আবাসিক অথবা অনাবাসিক খাবার গ্রহণ করে থাকেন।

তবে গেল সোমবার (১৫ মে) রাত ৯টা ৩০ মিনিটে সিটি ইউনিভার্সিটির টেক্সটাইল এবং কম্পিউটার সাইন্স ডিপার্টমেন্টের ১ম বর্ষের দুজন শিক্ষার্থী খাগানের কাজল রোডে এ এন ফ্যাশনের পাশে মোজাইদ গেইট সংলগ্ন একটি ম্যাচে রাতের খাবার খাওয়ার জন্য যান।

এদিন খাবার খেতে যাওয়ার সময় হঠাৎ স্থানীয় টিপুর লালিত সন্ত্রাসী ব্রিটিশ নেশাগ্রস্থ অবস্থায় মাত্রাতিরিক্ত গতিতে বাইক চালিয়ে আসেন। এ সময় তিনি তার মোটরসাইকেলের নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সাকিব নামে একজন শিক্ষার্থীর গায়ের উপর গাড়ি তুলে দেন। তখন ওই শিক্ষার্থী প্রচণ্ড ব্যথা পেয়ে শুধু জিজ্ঞেস করেন এভাবে মাত্রাতিরিক্ত গতিতে গাড়ি না চালালে আমি আজকে বিপদের সম্মুখীন হতাম না।

এ কথা বলায়, তাকে ব্রিটিশ অকথ্য ভাষায় গালাগাল দেয়। তখন স্থানীয় প্রভাবশালী টিপুর কাছে এ ব্যাপারে জানানো হলে টিপু উল্টো কলোনির মেইন গেইট আটকে দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের দুজন শিক্ষার্থীকে নির্মমভাবে এলোপাতাড়ি নির্যাতন করেন। পরবর্তীকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের কিছু শিক্ষার্থী এবং হল প্রভোস্টসহ শিক্ষার্থীদের উদ্ধার করতে গেলে তাদের কেও স্থানীয় সন্ত্রাসী বিশিষ্ট মাদক সম্রাট টিপু এবং তার লালিত সন্ত্রাস বাহিনী দেশীয় অস্ত্র দা, চাপাতি, রড এবং লাঠিসোটা নিয়ে ধাওয়া করে। তখন এ দুজন শিক্ষার্থীকে অর্ধমৃত অবস্থায় উদ্ধার করে রাজু জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা ব্যবস্থা করা হয়। চিকিৎসকদের বরাতে জানা যায়, শিক্ষার্থী দুজনের অবস্থা আশংকাজনক।

পরদিন বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল শিক্ষার্থী বিশ্ববিদ্যালয় এবং খাগান এলাকায় শান্তি সমাবেশ করে প্রশাসন, বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ এবং সাংবাদিকদের কাছে দাবি জানান। এছাড়া স্থানীয় সন্ত্রাসী এবং বিশিষ্ট মাদক কারবারি টিপুর সঠিক বিচার করার জন্য দাবি জানিয়েছেন।

শিক্ষার্থীদের দাবি- তারা শান্তিপূর্ণ সুশৃঙ্খলভাবে তাদের শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করতে চায়। স্থানীয় সন্ত্রাসী টিপুসহ তার লালিত সন্ত্রাসীদের বিচার অনতিবিলম্বে করতে হবে।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত টিপু এবং ব্রিটিশের মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তাদের সাথে কোনো যোগাযোগ করা যাইনি। এলাকাবাসীর দাবি, বর্তমানে তারা পলাতক অবস্থায় আছেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রোক্টরের সাথে কথা হলে তিনি বলেন, ছাত্ররা যদি অন্যায় করত তাহলে আমাদের কাছে বলার মাধ্যমে সমাধান করা যেত। কিন্তু তারা সেটা না করে উল্টো ছাত্রদের এভাবে মারার অর্থ দাড়ায় তাদেরেকে হত্যার উদ্দেশ্যে মারার হয়েছ। ইউনিভার্সিটিতে শিক্ষার্থীরা পড়াশোনা করার জন্য আসছে। এভাবে অন্যায়ভাবে ছাত্রদের মারবে এটা কোনোভাবেই মেনে নেওয়া যায় না।

এলাকার চেয়ারম্যানসহ প্রশাসনের সাথে কথা বলা হচ্ছে কিভাবে দ্রুত সমাধান করা যায় তার জন্য আমরা জোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।

অন্য দিকে অভিযুক্ত টিপু এবং ব্রিটিশের মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তাদের সাথে কোনো যোগাযোগ করা যাইনি। এলাকাবাসীর মতে- বর্তমানে তারা পলাতক অবস্থায় আছে।

আপনার ক্যাম্পাসের নানা ঘটনা, আয়োজন/ অসন্তোষ সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড