• শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০  |   ২৫ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ছাত্রী নির্যাতন

কারিগরি ত্রুটির কারণে ইবির সিসিটিভি ফুটেজ সরবরাহ করা যায়নি

  ইবি প্রতিনিধি

১৯ মার্চ ২০২৩, ১৩:০৮
কারিগরি ত্রুটির কারণে ইবির সিসিটিভি ফুটেজ সরবরাহ করা যায়নি
ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) (ছবি : অধিকার)

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) দেশরত্ন শেখ হাসিনা হলে ছাত্রী নির্যাতনের ঘটনায় হাইকোর্টের রিট পিটিশনের নির্দেশনার আলোকে ওই রাতের সিসিটিভি ফুটেজ দিতে ব্যর্থ হয় হল প্রশাসন।

এ ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের আইসিটি সেলের পরিচালক অধ্যাপক ড. আহসান-উল-আম্বিয়াকে আহবায়ক করে এক সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক শেখ আবদুস সালাম। কমিটিকে ৭ কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়ার নির্দেশনা দেওয়া হয়।

শনিবার (১৮ মার্চ) কমিটির প্রতিবেদন হাইকোর্ট বিভাগের ডেপুটি অ্যার্টর্নি জেনারেল তুষার কান্তি রায় বরাবর পাঠানো হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার কার্যালয়ের সূত্র ধরে এ তথ্য জানা গেছে।

এর আগে গত ৭ মার্চ ফুটেজ সরবরাহে ব্যর্থ হওয়ার বিষয়টি খতিয়ে দেখার জন্য এবং কিভাবে ক্যামেরা সিস্টেম আরও কার্যকর ভাবে পরিচালনা করা যায় সে বিষয়ে এ কমিটি গঠন করা হয়। ৭ মার্চ কমিটি রেজিস্ট্রার বরাবর কমিটি প্রতিবেদন জমা দেয়।

প্রতিবেদনের পর্যবেক্ষণে উঠে এসেছে, বক্ষণ বা ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন অফিস, বিভাগ ও আবাসিক হলসমূহ তাদের নিজস্ব তদারকি ও আর্থিক ব্যবস্থাপনায় নিজ নিজ অফিসে সিসি ক্যামেরা স্থাপন ও পরিচালনা করে থাকে। বিশেষ অনুরোধে আইসিটি সেল তাদের প্রয়োজনীয় পরামর্শ দিয়ে থাকে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যান্য অফিসের ন্যায় দেশরত্ন শেখ হাসিনা হলে হল প্রশাসনের তত্ত্বাবধানে ৮ সিসিটিভি ক্যামেরা সংশ্লিষ্ট একটি ডি.ভি.আর. সিস্টেম স্থাপন করা আছে। কিন্তু দীর্ঘদিন যাবৎ সার্ভিসিং না করায় ডি.ভি.আর. সিস্টেমের মাদারবোর্ডের ব্যাটারি অকেজো হয়ে যায়।

ফলে কোনো কারণে বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হলে ডিভিয়ার সিস্টেমের ইন্টারনাল ঘড়িটির সময় রিসেট হয়ে যায়। ডিভিয়ার সিস্টেমে ভিডিয়োগুলো সময়ের বিপরীতে সংরক্ষিত থাকে। ফলে প্রতিবার বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হলে নতুন ভিডিয়োগুলো পূর্বের ভিডিয়োগুলোর উপর প্রতিষ্ঠাপিত হয়।

এ কারণে গত ১১ ও ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ তারিখ রাতে অত্র হলে সংঘটিত ঘটনার ভিডিয়ো ফুটেজ সরবরাহ করা যায়নি। যা নিতান্তই একটি কারিগরি ত্রুটি হিসেবে বিবেচনা করা যায়।

এ প্রতিবেদনে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন অফিসে স্থাপনকৃত সিসি ক্যামেরা সিস্টেম নিয়মিতভাবে রক্ষণাবেক্ষণ করা প্রয়োজন, সিসি ক্যামেরা স্থাপন ও রক্ষণাবেক্ষণের জন্য প্রয়োজনে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বরাদ্দ প্রদানের ব্যবস্থা করা যায়, অন-লাইন ইউপিএসের মাধ্যমে ক্যামেরা সিস্টেমের সার্বক্ষণিক বিদ্যুৎ সরবরাহ নিশ্চিত করা প্রয়োজন ও আউটডোর ক্যামেরাগুলোতে বৃষ্টি প্রতিরোধক ব্যবস্থা গ্রহণ করা প্রয়োজন বলে সুপারিশ করা হয়।

প্রসঙ্গত, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে গত ১১ ও ১২ ফেব্রুয়ারি দেশরত্ন শেখ হাসিনা হলে ফুলপরী নামের এক ছাত্রীকে নির্যাতনের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় মহামান্য সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট ডিভিশনের রিট পিটিশনের আলোকে সিসিটিভি ফুটেজ দিতে ব্যর্থ হয় হল প্রশাসন। যার পিটিশন নম্বর- ২১০৫/২০২৩

আপনার ক্যাম্পাসের নানা ঘটনা, আয়োজন/ অসন্তোষ সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড