• বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৫ মাঘ ১৪২৯  |   ২৬ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

বুটেক্সে আন্তর্জাতিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত

  বুটেক্স প্রতিনিধি

২২ জানুয়ারি ২০২৩, ১৪:১৮
বুটেক্সে আন্তর্জাতিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত

বাংলাদেশ টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বুটেক্স) প্রথমবারের মতো দুইদিন ব্যাপী আন্তর্জাতিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত ১৯ এবং ২০ জানুয়ারি টেক্সটাইল সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং শীর্ষক সম্মেলনটি অনুষ্ঠিত হয়।

দুইদিন ব্যাপী সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন- ভারতের ইন্ডিয়ান ইন্সটিটিউট অফ টেকনোলজির (আইআইটি) টেক্সটাইল এন্ড ফাইবার ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক ড. বিজয় কুমার বেহেড়া, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য ড. মিজানুর রহমান এবং বাংলাদেশ টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক আবুল কাশেম।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন- সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোজাফফর হোসেন, আইটিইটির টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং ডিভিশনের প্রেসিডেন্ট ইঞ্জিনিয়ার মাসুদুর রহমানসহ অনেকে।

সম্মেলনটির প্রথম দিনের কার্যক্রম শুরু হয় দুপুর ২টা থেকে। প্রথম দিনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, আমরা ২০৪১ সালে সমৃদ্ধ ও উন্নত বাংলাদেশ হব। এ জন্য টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয় যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে এগিয়ে যাবে। দেশের মূল জনসংখ্যার ৬৫ শতাংশ ইয়ং জেনারেশন, যারা নাকি কর্মক্ষম। কাজেই আমাদের পোশাক শিল্পের এই অগ্রযাত্রা যাত্রা কেউ বন্ধ করতে পারবে না।

এছাড়াও টেক্সটাইলে বিশেষায়িত বিসিএস ক্যাডার নিয়োগে সমর্থন জানান তিনি।

সম্মেলনের দ্বিতীয় দিন ২০ জানুয়ারি প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন শিক্ষামন্ত্রী দিপু মনি। এ সময় তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার মান উন্নয়নে বিশ্ববিদ্যালয়ে একাডেমিক মাস্টার প্ল্যান করার আহবান জানান।

তিনি বলেছেন, চলতি বছর থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হবে। দেশের অর্থনীতি ও আর্থ সামাজিক সেক্টরে টেক্সটাইল সেক্টরের ইতিবাচক দিকের কথা তুলে ধরে দেশের উচ্চশিক্ষা ও গবেষণাকে শক্তিশালী করে এর ব্যাবহারিক প্রয়োগের দিকে গুরুত্বারোপ করেন।

শিক্ষামন্ত্রী আরও বলেন, দেশের উন্নয়নে দক্ষ, যোগ্য গ্রাজুয়েট তৈরিতে উচ্চশিক্ষা ও গবেষণার গুরুত্ব অপরিসীম। একই সাথে সফটস্কিল, উপস্থাপন, সূক্ষ্ম চিন্তাশক্তি, প্রশ্ন করার মানসিকতা, সমস্যা চিহ্নিত ও সমাধান করার যোগ্যতা, দলগত কাজ করার প্রয়াসের উপর গুরুত্ব আরোপ করেন তিনি।

সম্মেলনের শেষভাগে শ্রেষ্ঠ গবেষণা পত্র উপস্থাপন প্রতিযোগিতার অংশগ্রহণকারীদের পুরষ্কার প্রদান করেন শিক্ষামন্ত্রী। সেরা গবেষণা পত্র উপস্থাপনের জন্য পুরস্কৃত হন টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং ম্যানেজমেন্ট বিভাগের লেকচারার মো. গোলাম সারোয়ার রায়হান।

উল্লেখ্য, সম্মেলনটিতে টেক্সটাইলের সর্বাধুনিক ও টেকসই প্রযুক্তিকে অগ্রাধিকার দেওয়া হয়েছে। সম্মেলনে অংশগ্রহণকারীরা ফাইবার সাইন্স, ম্যানেজমেন্ট, ফ্যাশন ডিজাইন, গ্রিন কেমিস্ট্রি, টেকনিক্যাল টেক্সটাইল, ইন্ডাস্ট্রিয়াল টেক্সটাইল, ইন্ডাস্ট্রি ৪.০ টেক্সটাইল, স্মার্ট টেক্সটাইল, ন্যানোটেকনোলজি ইন টেক্সটাইল, টেক্সটাইল অ্যান্ড এপারেল সাপ্লাই চেইন, এডভান্স অ্যান্ড ইমারজিং টেকনোলজি, সাস্টেইনঅ্যাবিলিটি অ্যান্ড সারকুলারিটি ইন টেক্সটাইলসহ বিশেষ বিষয়ে গবেষণাপত্র জমা দেওয়ার সুযোগ পান।

আপনার ক্যাম্পাসের নানা ঘটনা, আয়োজন/ অসন্তোষ সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড