• শনিবার, ৩১ জুলাই ২০২১, ১৬ শ্রাবণ ১৪২৮  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

৬ মাসের উপবৃত্তি পেল প্রাথমিক শিক্ষার্থীরা

  শিক্ষা ডেস্ক

১৭ জুলাই ২০২১, ১৩:৪৫
উপবৃত্তি
ইদের আগে ৬ মাসের উপবৃত্তি পেল প্রাথমিক শিক্ষার্থীরা। ফাইল ছবি

করোনার সংক্রমণ তাণ্ডবের মাঝে ২০২০ সালের জুলাই থেকে ডিসেম্বর - এই ছয় মাসের উপবৃত্তির টাকা পেয়েছে প্রাথমিকের ১ কোটি ৪০ লাখ শিক্ষার্থী। একই সাথে জামা-জুতা কেনার জন্য প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে কিটস অ্যালাউন্স বাবদ আরও এক হাজার টাকা দেওয়া হয়েছে। খুব শিগগিরই আরও তিন মাসের উপবৃত্তি অভিভাবকদের নগদ অ্যাকাউন্টে পৌঁছে যাবে বলে জানা গেছে।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, এই ছয় মাসের উপবৃত্তির টাকা একসাথে মায়েদের ‘নগদ’ অ্যাকাউন্টে পৌঁছে গেছে। প্রতি কিস্তি (তিন মাস অন্তর) উপবৃত্তি বিতরণ করতে প্রায় ৪৫০ কোটি টাকার প্রয়োজন হয়। ওই হিসেবে দুই কিস্তির (৬ মাস) ৯০০ কোটি টাকা বিতরণ করা হয়েছে।

এ দিকে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী, প্রাথমিকের সব শিক্ষার্থীকে জামা ও জুতা কেনার জন্য এককালীন এক হাজার করে টাকা দেওয়া হয়েছে। এই খাতে আরও ১ হাজার ১০০ কোটি টাকা বিতরণ করা হয়েছে। সব মিলিয়ে কঠোর বিধিনিষেধ ও ইদের আগে ১ কোটি ৪০ লাখ শিক্ষার্থীদের মধ্যে ২ হাজার কোটি টাকা বিতরণ করা হয়েছে। করোনার এ দুঃসময়ে এই অর্থও অনেক পরিবারে খানিকটা হলেও স্বস্তি দিয়েছে বলে জানিয়েছেন উপকারভোগীরা।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, নানা কারণে অনেক দিন আটকে ছিল সরকারের উপবৃত্তি বিতরণ কার্যক্রম। তবে গত বছর ডিসেম্বরে দ্রুততার সাথে দেড় কোটি শিক্ষার্থী আর তার পরিবারের তথ্য সম্বলিত ডেটাবেজ তৈরি করা হয়। সেটি ব্যবহার করেই গত মার্চ থেকে উপবৃত্তি পৌঁছে যেতে শুরু করে শিক্ষার্থীদের মায়েদের নগদ অ্যাকাউন্টে।

এরই ধারাবাহিকতায় একে একে ২০১৯-২০ অর্থ বছরের এপ্রিল-জুন প্রান্তিকসহ ২০২০-২১ অর্থ বছরের চারটি প্রান্তিকের উপবৃত্তি বিতরণ করা হয়। এরমধ্যে আবার শিক্ষার্থী প্রতি এক হাজার টাকা করে শিক্ষা উপকরণও বিতরণ করা হয়। নগদ-এর মাধ্যমে উপবৃত্তি বিতরণ করায় স্বচ্ছতা যেমন নিশ্চিত হয়েছে তেমনি সরকারের বিতরণ খরচ প্রায় ৭০ শতাংশ কমেছে।

আরও পড়ুন : বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসে বাড়ি ফিরছে জবি শিক্ষার্থীরা

এ ব্যাপারে প্রাথমিক শিক্ষার জন্য উপবৃত্তি প্রদান প্রকল্পের (তৃতীয় পর্যায়) পরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) মো. ইউসুফ আলী গণমাধ্যমকে বলেন, নানা জটিলতায় গত বছরের ৯ মাসের উপবৃত্তি বকেয়া হয়ে যায়। এরমধ্যে এপ্রিল, মে ও জুন মাসের দ্বিতীয় কিস্তির বকেয়া টাকা গত এপ্রিলে ছাড় হয়। বাকি ছয় মাসের টাকা বিতরণ করা শেষ। এর সাথে এককালীন এক হাজার টাকাও বিতরণ করা হয়েছে। ২০২১ সালে প্রথম কিস্তি (জানুয়ারি-মার্চ) মাসের টাকা বিতরণের প্রস্তুতির চলছে। খুব শিগগিরই এ টাকাও মায়েদের অ্যাকাউন্টে পৌঁছে যাবে।

তিনি বলেন, সরকারের একান্ত প্রচেষ্টায় করোনার মধ্যে মহামারি মধ্যে শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি বিতরণ করা হয়েছে। যা ঝরে পড়াসহ শিক্ষার মান রক্ষায় কার্যকর ভূমিকা রাখবে।

ওডি/আইএইচএন

আপনার ক্যাম্পাসের নানা ঘটনা, আয়োজন/ অসন্তোষ সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড