• শুক্রবার, ০৬ আগস্ট ২০২১, ২২ শ্রাবণ ১৪২৮  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

করোনায় ঢাবি ছাত্রের মৃত্যু

  ঢাবি প্রতিনিধি

১৭ জুলাই ২০২১, ১২:৪৬
ঢাবি
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের ছাত্র সুমন হোসেন। ছবি : সংগৃহীত

বৈশ্বিক দুর্যোগ করোনা ভাইরাসের বিষাক্ত ছোবলে আক্রান্ত হয়ে সুমন হোসেন নামে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের এক শিক্ষার্থী মারা গেছেন।

শুক্রবার (১৬ জুলাই) সন্ধ্যা ৭টার দিকে যশোর সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের এক পোস্টে মোহাম্মদ তানভীর নামে সুমনের এক সহপাঠী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

শুক্রবার ওই শিক্ষার্থী ফেসবুক পোস্টে লেখেন, করোনা আক্রান্ত হয়ে সুমনের ফুসফুসে ৭০ শতাংশ ড্যামেজ হয়ে গেছে। তিনি আর নেই, আজ সন্ধ্যা ৬টা ৫৫ মিনিটে ইন্তেকাল করেছেন।

নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, মহামারির কারণে বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ থাকায় সুমন গ্রামের বাড়ি ঝিনাইদহে ছিলেন। কয়েকদিন আগে করোনার উপসর্গ নিয়ে তিনি হাসপাতালে ভর্তি হন। এরপর তার বিভাগের চেয়ারপার্সন খবর পেয়ে সুমনকে বাঁচাতে সহায়তার জন্য অর্থ সংগ্রহের চেষ্টা করেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নৃ-বিজ্ঞান বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র ছিলেন সুমন। মানবাধিকার বিষয়ে সচেতনতা বিষয়ক সংগঠন হিউম্যান রাইটস ভয়েস অ্যান্ড হিউম্যানিটির ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ সম্পাদকও ছিলেন তিনি।

দুই দিন আগে গত বুধবার (১৪ জুলাই) সংগঠনটির ফেসবুক পেজে সুমনের জন্য আর্থিক সাহায্যের আবেদন জানিয়ে এক স্ট্যাটাস দেওয়া হয়। তাতে উল্লেখ ছিল, সুমন হোসেন করোনায় আক্রান্ত হয়ে যশোর সদর হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। প্রথমে আইসিইউতে নেওয়ার পর অবস্থা আরও সংকটাপন্ন হওয়ায় এখন তাকে হাই ডিপেন্ডেন্সি ইউনিট (এইচডিইউ)-তে স্থানান্তর করা হয়েছে। তার ফুসফুসের ৭৫ শতাংশ ড্যামেজ হয়ে গেছে। এই পরিস্থিতিতে তার ফুসফুসের সংক্রমণ রোধে ব্যয়বহুল চিকিৎসা বা ওষুধ প্রদান করতে হচ্ছে ডাক্তারদের। যা সুমনের আর্থিকভাবে অসচ্ছল পরিবারের পক্ষে এই ব্যয় বহন করা সম্ভব নয়।

এতে আরও বলা হয়, ‘সুমনের চিকিৎসায় শুধু ওষুধ বাবদ প্রতিদিন ব্যয় হচ্ছে ৮-১০ হাজার টাকা। ব্যয়বহুল করোনার চিকিৎসা কতদিন চালাতে হবে তা নিশ্চিত নয়। তাই সুস্থ না হওয়া পর্যন্ত এই ব্যয় বহন করতে হবে পরিবারকে। অল্প কয়েকদিনে এরই মধ্যে ঋণ করে লক্ষাধিক টাকা খরচ করেছে সুমনের দরিদ্র পরিবারটি। কিন্তু এখন আর পেরে উঠছেন না এই বিশাল অঙ্কের টাকা ম্যানেজ করে মেধাবী এই শিক্ষার্থীর চিকিৎসা করাতে। তাই আসুন ছেলেটিকে বাঁচাতে সর্বোচ্চ সহযোগিতা করি।’

আর্থিক সাহায্য আবেদনের দুই দিন পর শুক্রবার সন্ধ্যায় মারা গেলেন সুমন।

এ দিকে, তার মৃত্যুতে বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারে নেমে এসেছে শোকের ছায়া। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে শোক প্রকাশ করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও তার সহপাঠীরা।

আরও পড়ুন : বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসে বাড়ি ফিরছে জবি শিক্ষার্থীরা

এ ব্যাপারে নৃ-বিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারপারসন ড. ফারজানা বেগম গণমাধ্যমকে বলেন, গত দুই দিন আগে সুমনের ছোট ভাই সুজনের সঙ্গে যোগাযোগ করে জানতে পারি সুমনের ফুসফুসের বেশিরভাগ অংশ আক্রান্ত হয়েছে। এরপর সুমনের বিভাগের এক বন্ধুর মাধ্যমে জানতে পারি, তার শারীরিক অবস্থার উন্নতি হয়েছে। কিন্তু, হঠাৎ শুক্রবার সন্ধ্যায় খবর পেলাম সুমন মারা গেছেন।

ওডি/আইএইচএন

আপনার ক্যাম্পাসের নানা ঘটনা, আয়োজন/ অসন্তোষ সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড