• বৃহস্পতিবার, ১৭ জুন ২০২১, ৩ আষাঢ় ১৪২৮  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

সফলতার সোপান বেয়ে একাদশে জবি ক্যারিয়ার ক্লাব

  আফরিদা তাবাসসুম

০৭ জুন ২০২১, ১৬:৪৭
জবি ক্যারিয়ার ক্লাব
জবি ক্যারিয়ার ক্লাবের কয়েকজন তরুণ। ছবি : সংগৃহীত

একটা সময় ছিল যখন গৎবাঁধা পড়াশুনা শেষে অনেকটা সহজেই চাকরিক্ষেত্রে প্রবেশ করা সম্ভব হতো। অতিরিক্ত দক্ষতার অতটা চাহিদা ছিলনা। কিন্তু বর্তমানের দৃশ্যপট এর থেকে অনেকাংশেই ভিন্ন। যুগের সাথে যেমন প্রশস্ত হয়েছে তেমনি পরিবর্তিত হয়েছে চাকরিক্ষেত্রে গ্রহণযোগ্যতা পাবার শর্ত। বেড়েছে প্রতিযোগিতা। আর এ প্রতিযোগিতায় সফল হতে প্রয়োজন সঠিক পরিকল্পনা, দিকনির্দেশনা এবং যথাযথ প্রস্তুতি, যার পুরোটাই গ্রহণ করতে হয় বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াকালীনই।

এরই পরিপ্রেক্ষিতে, ২০১১ সালের পহেলা জুন কিছু স্বপ্নবিলাসী, উদ্যমী তরুণের হাত ধরে জন্ম হয়েছিল জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যারিয়ার ক্লাবের। শিক্ষার্থীদের পড়াশুনার পাশাপাশি কাঙ্ক্ষিত ক্যারিয়ার গঠনের পথে আরও কয়েক ধাপ এগিয়ে নেওয়ার লক্ষ্যে গঠিত ক্লাবটি গুঁটি গুঁটি পায়ে পূর্ণ করল ১০ বছর।

দীর্ঘ ১০ বছরের এই অগ্রযাত্রায়, জবি ক্যারিয়ার ক্লাবের ঝুলিতে জমা হয়েছে অসংখ্য সফলতা ও সমৃদ্ধি। এর পেছনে ছিল কিছু মানুষের নিষ্ঠা, কঠোর পরিশ্রম ও নিরলস প্রচেষ্টা। শুরুতে সংখ্যাটা কম হলেও, আজ বিশাল এক পরিবারে রূপান্তরিত হয়েছে ক্লাবটি। শুধু সংখ্যাতেই নয়, প্রতিভা, সৃজনশীলতা ও দক্ষতার দিক দিয়েও বৃদ্ধি ঘটেছে যা ক্লাবটিকে আজকের এই শক্তিশালী অবস্থানে আনতে সক্ষম হয়েছে। বিভিন্ন উল্লেখযোগ্য কার্যক্রম দ্বারা ক্রমেই জবি ক্যারিয়ার ক্লাব জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি অন্যতম ক্লাবে পরিণত হয়েছে।

শুরু থেকেই ক্লাবটির চিফ মোডারেটর ও মোডারেটর হিসেবে পরামর্শ দিয়ে সহায়তা করে আসছেন ব্যবস্থাপনা বিভাগের অধ্যাপক মো. মহিউদ্দিন ও সহকারী অধ্যাপক মো. শফিকুল ইসলাম। প্রতিষ্ঠালগ্নের শুরু থেকে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যারিয়ার ক্লাব শিক্ষার্থীদের ভালো কাজে উৎসাহ দিয়ে আসছে এবং দক্ষতা ও সৃজনশীলতা বৃদ্ধিতে কাজ করে যাচ্ছে ক্লাবটি। ক্যারিয়ার ভাবনা নিয়ে অসংখ্য সমস্যার সমাধানে জবি ক্যারিয়ার ক্লাব বিভিন্ন ধরনের ক্যারিয়ার-বিষয়ক কর্মশালা, প্রশিক্ষণ, সেমিনারের আয়োজন করে আসছে। এছাড়া একবিংশ শতাব্দীর এই ক্রমেই পরিবর্তনশীল অর্থনৈতিক ও প্রযুক্তিগত চাকরি বাজার ব্যবস্থার সঙ্গে তাল মিলিয়ে বিভিন্ন প্রকার সফট স্কিল ও কমিউনিকেশন স্কিল এর উন্নয়ন ও ক্রমবিকাশ ঘটাতে শিক্ষার্থীদের সাহায্য করছে জবি ক্যারিয়ার ক্লাব।

প্রেজেন্টেশন প্রোগ্রাম, পাবলিক স্পিকিং, লিডারশিপ ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রাম, আইডিয়া কম্পিটিশন, সিভি রাইটিং এবং শিল্পকারখানা পরিদর্শনসহ শিক্ষার্থীদের পরিচালনায় এ ক্লাব ক্যারিয়ার নির্দেশনা, ব্যবস্থাপনা প্রশিক্ষণ, ক্যারিয়ার ফেস্টিভ্যাল, দিনব্যাপী কম্পিউটার প্রশিক্ষণ, কুইজ প্রতিযোগিতা, উন্নত যোগাযোগ প্রশিক্ষণ, বিজনেস কেইস কম্পিটিশন, সার্টিফিকেশন কোর্সসহ বিভিন্ন ধরনের কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। বিভিন্ন মানুষের সাথে কাজ করার মাধ্যমে বাস্তব অভিজ্ঞতা ও দক্ষতা অর্জন করার সাথে, শিক্ষার্থীরা পেয়েছে প্রতিভা বিকাশের একটি মুক্তমঞ্চ। নেতৃত্ব চর্চা ও মনস্তাত্ত্বিক ও সার্বিক বিকাশ ঘটাতেও ক্লাবটি অবদান রাখে এক বিশাল অংশজুড়ে।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাসে ২০১৯ সালে প্রথমবারের মতো আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় বিজনেস কেইস কম্পিটিশন সফলভাবে আয়োজন করে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যারিয়ার ক্লাব। পরবর্তীতে বেশকিছু জাতীয় পর্যায়ের সেমিনার ও কম্পিটিশনও আয়োজন করেছে ক্লাবটি। করোনাকালীন পুরো সময়টা জুড়েও চালিয়ে গেছে অসংখ্য অনলাইন কার্যক্রম, আয়োজন করেছে ন্যাশনাল পর্যায়ে উল্লেখযোগ্য কিছু ওয়েবিনার।

এরই ধারাবাহিকতায়, এ বছর দশম বর্ষপূর্তি উপলক্ষে ক্যারিয়ার ক্লাব আয়োজন করে, ‘গাইড টু ফিউচার : সেলিব্রেশন অফ এ ডিকেড’ শীর্ষক ৩ দিনব্যাপী একটি কর্মশালা। তিনটি ভিন্ন ও মৌলিক বিষয়ের উপর আয়োজিত কর্মশালাটিতে সারাদেশের ৫২টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রায় ১ হাজার ১০০ শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে। কর্মশালাটিতে ৬ জন ট্রেইনার তাদের বাস্তব অভিজ্ঞতা তুলে ধরার পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের করপোরেট সেক্টর থেকে শুরু করে সরকারি চাকরি যে কোনো ক্ষেত্রে ক্যারিয়ার গঠনে কার্যদক্ষতা বৃদ্ধিতে করণীয় বিষয়গুলো তুলে ধরেন।

ক্লাবের প্রতিষ্ঠাকালীন সভাপতি হাফিজুর রহমান বলেন, ‘শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন দক্ষতার উন্নয়ন ও প্রসারের মাধ্যমে এই তরুণদের ভবিষ্যৎ নেতৃত্ব প্রদানে সক্ষম করে গড়ে তোলার লক্ষ্যেই মূলত আমরা জবি ক্যারিয়ার ক্লাবটি প্রতিষ্ঠা করেছি। সে লক্ষ্যের পথ ধরেই এগিয়ে চলছে ক্যারিয়ার ক্লাব।’

একইসাথে বর্তমান সভাপতি মো. জাহিদুল ইসলাম বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ে পা রাখার পরই একজন শিক্ষার্থীর সামনে উন্মোচিত হয় বিশাল এক জগত। এই জগতে হাজারও ক্যারিয়ার অপশনের ভিড়ে নিজের জন্য উপযুক্ত ক্যারিয়ারটি নির্ধারণ করাটা মুশকিল হয়ে পড়ে। আবার অনেক সময় তা নির্ধারণ করতে পারলেও সঠিক দিকনির্দেশনার অভাবে স্বপ্নের ক্যারিয়ারটি থেকে অনেকটা পিছিয়ে পড়তে হয়। ক্যারিয়ার ক্লাব শিক্ষার্থীদের সামনে ভবিষ্যৎ লক্ষ্য নির্ধারণসহ ক্যারিয়ার সম্পর্কিত একটি সুস্পষ্ট চিত্র তুলে ধরতে এবং বাস্তব অভিজ্ঞতার মাধ্যমে দক্ষ করে তুলতে সহায়ক।’

ছাত্রজীবনেই ক্যারিয়ার বিষয়ক সচেতনতা তৈরির মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের সহযোগিতার এই যে উদ্যোগ তা নিঃসন্দেহে একটি দক্ষ জাতি তৈরি করতে সক্ষম। সীমাবদ্ধতা থাকায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা যেখানে নির্দিষ্ট সিলেবাসেই বাহিরের স্কিলগুলো দিতে সক্ষম হয়ে উঠেন না, সেখানে অ্যাকাডেমিক পড়াশুনার পাশাপাশি ক্যারিয়ার দক্ষতাগুলোর সামঞ্জস্যতা বজায় রেখে ক্যারিয়ার ক্লাবের এই কার্যক্রমগুলো শিক্ষার্থীদের ক্যারিয়ার প্রতিযোগিতার দৌড়ে এগিয়ে নিয়ে যাবে বহুদূর। প্রগতির এই ধারা অব্যাহত রেখে, অগ্রনয়নের সারথি হয়ে আরও কয়েক দশকের পথ পাড়ি দিক জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যারিয়ার ক্লাব।

লেখক : এক্সিকিউটিভ, আইটি অ্যান্ড ক্রিয়েটিভ টিম, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যারিয়ার ক্লাব।

ওডি/আইএইচএন

আপনার ক্যাম্পাসের নানা ঘটনা, আয়োজন/ অসন্তোষ সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড