• মঙ্গলবার, ১১ মে ২০২১, ২৮ বৈশাখ ১৪২৮  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে জাবি শিক্ষার্থীর মৃত্যু

  জাবি প্রতিনিধি

১৩ এপ্রিল ২০২১, ১৩:৫৫
জাবি
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) সরকার ও রাজনীতি বিভাগের শিক্ষার্থী মেহেদি হাসান। ছবি : সংগৃহীত

হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মেহেদি হাসান নামে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) এক শিক্ষার্থী মৃত্যুবরণ করেছেন।

মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল) ভোর ৫টার দিকে মারা যান তিনি। মেহেদি বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪৮তম ব্যাচের সরকার ও রাজনীতি বিভাগের শিক্ষার্থী এবং বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর হলের আবাসিক ছাত্র ছিলেন।

মেহেদির গ্রামের বাড়ি যশোর জেলার ঝিকরগাছা থানার নাবারণ গ্রামে।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, মেহেদী হাসান করোনাকালীন এই সময়ে নিজ বাড়িতে অবস্থান করছিলেন। সোমবার (১২ এপ্রিল) রাতে তিনি পরিবারকে পেটে প্রচণ্ড ব্যথা অনুভবের কথা জানান। পরে ভোরে স্থানীয় হাসপাতালে নেওয়ার পথে বাইসাইকেল থেকে পড়ে গুরুতর আহত হয় মেহেদি। এ সময় সেখানেই হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তার মৃত্যু হয়।

এ দিকে, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) সরকার ও রাজনীতি বিভাগের ছাত্র মেহেদী হাসানের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দু:খ প্রকাশ করেছেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. ফারজানা ইসলাম।

এক শোকবার্তায় উপাচার্য বলেন, ‘মেহেদী হাসানের অকাল প্রয়াণ তার পরিবারের জন্য অপূরণীয় ক্ষতি। তার পরিবারের একটি উজ্জ্বল সম্ভাবনা শেষ হয়ে গেল। তার প্রয়াণে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষও শোকাহত।’

একই সময় উপাচার্য মেহেদী হাসানের শোক সন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

আরও পড়ুন : ভাস্কর্যে ভাস্বর ইবিতে বঙ্গবন্ধুর স্মৃতি

অন্যদিকে, সরকার ও রাজনীতি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. নাসরীন সুলতানা পৃথক এক শোকবার্তায় মেহেদী হাসানের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করে তার পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন।

ওডি/আইএইচএন

আপনার ক্যাম্পাসের নানা ঘটনা, আয়োজন/ অসন্তোষ সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড