• রোববার, ১৮ এপ্রিল ২০২১, ৫ বৈশাখ ১৪২৮  |   ৩৫ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

এসএসসির ফরম পূরণ : বাড়তি অর্থ নিলে শিক্ষা কার্যক্রম বন্ধ

  শিক্ষা ডেস্ক

০৮ এপ্রিল ২০২১, ১২:০৫
ঢাকা শিক্ষা বোর্ড
মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের লোগো। ছবি : সংগৃহীত

মহামারি করোনা ভাইরাসের কারণে সৃষ্ট পরিস্থিতির মাঝে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফরম পূরণে বাড়তি অর্থ না নিতে কড়া নির্দেশনা দিয়েছে সরকার। তবে অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানই এই নিয়ম মানছে না বলে অভিযোগ মিলছে। বিভিন্ন খাত দেখিয়ে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে অনেক বেশি টাকা বেশি আদায় করা হচ্ছে। এভাবে হাতিয়ে নেওয়া হচ্ছে লাখ লাখ টাকা। ফলে বিপাকে পড়েছেন করোনায় আয় কমে যাওয়া অভিভাবকরা।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, করোনা মহামারির কারণে অনেকেরই আয় কমেছে, ফের শুরু হয়েছে ‘লকডাউন’। এমতাবস্থায় ফরম পূরণের টাকা জোগাড় করতে তাদের হিমশিম খেতে হচ্ছে। এক বছর কোনো ক্লাস না হলেও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো বেতন আদায় করেছে। এ ক্ষেত্রে ডিসেম্বরের পর বেতন নেওয়া যাবে না বলে বোর্ডের নির্দেশনা থাকলেও তা মানছে না কর্তৃপক্ষ।

অভিভাবকদের দাবি, টাকা জোগাড় করতে তাদের ঋণ করে ফি দিতে হচ্ছে। অনেকে স্বর্ণালংকার বিক্রি করছেন, কেউবা গৃহপালিত পশু। এ ক্ষেত্রে বেশিরভাগ স্কুল, মাদরাসা অনুরোধ শুনছে না।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক রাজধানীর একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্র জানায়, তাদের কাছ থেকে কোচিং ফি-র নামে বাড়তি দুই হাজার টাকা করে নেওয়া হচ্ছে। তার বাবা স্কুলে গিয়ে দেখা করলেও টাকাও কম নেয়নি।

তবে এসব ব্যাপারে ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান ও আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক নেহাল আহমেদ গণমাধ্যমকে বলেন, ‘ফরম পূরণের ফি বাদে কোনো খাতেই টাকাও নেওয়া যাবে না। এ ব্যাপারে কোনো প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে অভিযোগ পেলে তদন্তসাপেক্ষে তাদের কার্যক্রম বন্ধ করে দেওয়া হবে। এরপর টাকা ফেরত দিলে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান পুনরায় কার্যক্রম চালাতে পারবে।’

আরও পড়ুন : সিকৃবির নতুন প্রক্টর ড. তাওহীদ

এবার সাড়ে ২০ লাখ পরীক্ষার্থী এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে। পরীক্ষার ফরম পূরণের সময় গত বুধবার (৭ এপ্রিল) শেষ হলেও আগামী ১৩ এপ্রিল পর্যন্ত বিলম্ব ফি-সহ ফরম পূরণ করার সুযোগ ছিল। তবে ‘লকডাউন’ চলায় শিক্ষা বোর্ডগুলো আবার সুযোগ দেবে। সে ক্ষেত্রে বিলম্ব ফি নেওয়া হবে না।

অধ্যাপক নেহাল আহমেদ বলেন, ফরম পূরণের সময় বাড়ানো হবে বিলম্ব ফি ছাড়াই। লকডাউনের পর চেয়ারম্যানদের বৈঠক আছে। এরপর নতুন সময়সূচি জানানো হবে। একই সময় বিলম্ব ফি নেওয়া যাবে না বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

ওডি/আইএইচএন

আপনার ক্যাম্পাসের নানা ঘটনা, আয়োজন/ অসন্তোষ সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড