• রোববার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৫ ফাল্গুন ১৪২৭  |   ২৪ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

‘শহীদ মিনারের জন্য বর্তমানে অর্থের অপচয় হচ্ছে’

  আশিকুর রহমান, গবি প্রতিনিধি

২২ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৯:৫৯
ছবি : সংগৃহীত

শহীদ মিনারের কারণে বর্তমানে অর্থের অপচয় হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন দেশের বিশিষ্ট নাট্য রচয়িতা এবং সাভারের গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের (গবি) রাজনীতি ও প্রশাসন বিভাগের চেয়ারম্যান ড. রাহমান চৌধুরী।

রবিবার (২১ ফেব্রুয়ারি) রাতে মহান শহীদ দিবস উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংবাদিক সংগঠন গবিসাস আয়োজিত ‘আন্তর্জাতিক যোগাযোগ স্থাপনে মাতৃভাষার ব্যবহার’ শীর্ষক ভার্চুয়াল সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ২১ তারিখের জন্য সরকারের বিশাল বাজেট হয়। অর্থ এবং ফুলের অপচয় হয়। আমি অপচয় বলছি, কারণ ফুল দেয়ার মাধ্যমেই আমরা দায়িত্ব শেষ মনে করি। বরকতরা ফুল চাননি, তারা বাংলা ভাষার প্রচলন চেয়েছেন। অথচ আজ আমরা বাইরে গেলে বিদেশি দূতাবাসের জন্য ইংরেজি শিখতে হয়। কিন্তু বাইরের দূতরা কি এখানে বাংলা শিখে আসেন?

গণ বিশ্ববিদ্যালয়ে শহীদ মিনার দরকার কি-না, এ সম্পর্কিত এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শহীদ মিনার থাকা বা না থাকা বড় বিষয় নয়। বরং যে লক্ষ্য নিয়ে ভাষা আন্দোলন হয়েছিল তা বাস্তবায়নই বেশি দরকার। শহীদ মিনারের চেয়ে সর্বস্তরে বাংলা ভাষার প্রচলন বেশি গুরুত্বপূর্ণ।

সভায় বক্তারা আরও বলেন, মাতৃভাষার বিসর্জন আমাদেরকে দাসত্বের দিকে ঠেলে দিচ্ছে। কিছু সুবিধাভোগী ভদ্রলোকের হীনমন্যতার কারণেই আমরা বাংলা ভাষাকে সংকুচিত করে রেখেছি। যাদের মনে গোলামির ভাব তারা কীভাবে বাহিরে স্বাধীন হবে! তারা পিছিয়ে থাকবে, এটাই স্বাভাবিক।

গবিসাসের সভাপতি মো. রোকনুজ্জামান মনির সঞ্চালনায় সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন ইংরেজি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের শিক্ষক আফরোজা সিদ্দিকা। বক্তারা বর্তমান সময়ে বাংলা ভাষার বিকৃতি, অবহেলিত রূপ নিয়ে আলোকপাত করেন এবং ভাষার মর্যাদা রক্ষায় সংশ্লিষ্টদের পদক্ষেপ গ্রহণের আহ্বান জানান। এ সময় আলোচ্য বিষয়ে শ্রোতাদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন তারা।

আপনার ক্যাম্পাসের নানা ঘটনা, আয়োজন/ অসন্তোষ সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড