• বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭  |   ২১ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

দ্বিতীয় বর্ষে ‘ক্লিন অ্যান্ড গ্রিন ক্যাম্পাস’

  মামুন সোহাগ

১৪ নভেম্বর ২০২০, ১৭:৫১
অধিকার

শিক্ষার্থীর সংখ্যার দিক দিয়ে দেশের বৃহত্তম কলেজ সরকারি তিতুমীর কলেজ। নানারকম সংগঠন ও একঝাঁক তরুণের সদিচ্ছায় গড়ে ওঠা ব্যতিক্রমী এক সংগঠনের নাম 'ক্লিন এন্ড গ্রিন ক্যাম্পাস'।

শুক্রবার (১৩ নভেম্বর) সংগঠনটির প্রথম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী। প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন করার কথা থাকলেও করোনার কারণে তা স্থগিত করা হয়েছে। পাশাপাশি আয়োজনের অর্থ ক্যান্সারে আক্রান্ত তিতুমীর কলেজের শিক্ষার্থী শম্পা সরকারের চিকিৎসা জন্য উপহার দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সংগঠনটি।

সংগঠনটির উদ্যোগে মাত্র এক বছরে বদলে যায় সরকারি তিতুমীর কলেজের চিত্র। ক্যাম্পাসের প্রধান ফটক দিয়ে ঢুকতেই রয়েছে অনেকগুলা বসার স্থান। আড্ডায় মুখরিত থাকা এসব জায়গাগুলোর ঠিক ওপরে ব্যানারিং করে লেখা বিভিন্ন সচেতনতামূলক বক্তব্য লেখা - 'আমার ক্যাম্পাস পরিষ্কার রাখার দায়িত্বও আমার, যত্রতত্র ময়লা ফেলবেন না, ময়লা ডাস্টবিনে ফেলুন, ময়লা ফেলুন' বিভিন্ন কথার ফুলঝুরিতে শিক্ষার্থীদের দৃষ্টি আকর্ষণের চেষ্টা করেছে ক্লিন এন্ড গ্রিন ক্যাম্পাস।

শিক্ষার্থীদের এই পরিচ্ছন্নতা অভিযানে উপদেষ্টা হিসেবে রয়েছেন রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক কামাল হায়দার।

করোনা মহামারির আগে পর্যন্ত তিতুমীর কলেজ ক্যাম্পাসে মোট ৫টি পরিচ্ছন্নতার অভিযান সম্পন্ন করেন ‘ক্লিন এন্ড গ্রিন ক্যাম্পাস তিতুমীর’। এছাড়াও ক্যাম্পাসের বিভিন্ন সচেতনতামূলক প্ল্যাকার্ড ও ডাস্টবিন স্থাপন করেন।

বিভিন্ন সময় সচেতনতা বৃদ্ধিতে প্ল্যাকার্ড নিয়ে এবং মাইকের মাধ্যমে সচেতনতার বার্তায় প্রচারণামূলক ক্যাম্পেইন এর মাধ্যমে কলেজের শিক্ষার্থীদের মাঝে সচেতনতা তৈরি করে যাচ্ছেন সংগঠনের সদস্যরা।

করোনার লম্বা ছুটিতে সকলেই ঘরবন্দি। ওই সময় সবাই চেষ্টা করেছে ক্যাম্পাসের ভেতরে প্রবেশ করে ছোট পরিসরে হলেও ময়লা সাফ করার।

ক্লিন অ্যান্ড গ্রিন ক্যাম্পাসের অন্যতম স্বেচ্ছাসেবক গণিত বিভাগের শিক্ষার্থী মো. মঈদুল ইসলাম বলেন, ‘আমরা পরিচ্ছন্ন ক্যাম্পাসের স্বপ্ন নিয়ে এগোচ্ছি, সব শিক্ষার্থীর মধ্যে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার বার্তা দিতেই আমাদের এই পরিবারের শুভযাত্রা। আমরা ক্যাম্পাসকে সর্বদা পরিচ্ছন্ন রাখবো ও সবুজায়ন করে গড়ে তুলবো।’

তিনি আরও বলেন,দ্বিতীয় বর্ষে পদার্পণ উপলক্ষে আমাদের ছোট পরিসরে আয়োজনের কথা ছিল। আমাদের একজন সহপাঠী শম্পা আপু, ক্যান্সারে আক্রান্ত তার চিকিৎসার জন্য আমাদের আয়োজনের অর্থ দিয়ে তার পাশে দাঁড়াবো বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমাদের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী হোক সহপাঠীর জীবন বাঁচানোর অংশীদার।

সংগঠনের সদস্য সাদিয়া সুলতানা বলেন, প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানাই তাদের, যাদের মধ্য দিয়ে ক্লিন অ্যান্ড গ্রিন ক্যাম্পাস নামক সংগঠন তিতুমীরের অংশ হয়ে দাঁড়িয়েছে। একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন একটি ক্যাম্পাসে প্রতিষ্ঠা ও তা চালিয়ে নেওয়া এতটা সহজ নয়, যতটা আমরা ভাবি। প্রয়োজন দক্ষ, পরিশ্রমী ও আত্মত্যাগী জনবল। আমরা ক্লিন অ্যান্ড গ্রিন ক্যাম্পাস সেটা সফলভাবে করতে পেরেছি।

আপনার ক্যাম্পাসের নানা ঘটনা, আয়োজন/ অসন্তোষ সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: +8801703790747, +8801721978664, 02-9110584 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড