• সোমবার, ৩০ মার্চ ২০২০, ১৬ চৈত্র ১৪২৬  |   ৩৫ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ইংরেজি পাঠদান কৌশলে সহজ হয়

  নিজস্ব প্রতিবেদক

০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ২২:৩৫
ফারজানা ববী
গাজীপুর সদর উপজেলা রিসোর্স সেন্টারের সহকারী ইন্সট্রাক্টর ফারজানা ববী। (ছবি : দৈনিক অধিকার)

গাজীপুর সদর উপজেলা রিসোর্স সেন্টারের সহকারী ইন্সট্রাক্টর ফারজানা ববী বলেছেন, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে অধিক শিক্ষার্থী একটি ক্লাস রুমে থাকে। এমন শ্রেণি কক্ষে ইংরেজি বিষয়ে পাঠদান খুব কঠিন একটি কাজ। তবে কৌশল প্রয়োগ করতে পারলে পরিচালনা খুব সহজ হয়।

কৌশল ব্যাখ্যা করতে গিয়ে তিনি বলেন, বড় ক্লাস বিভিন্ন দিক থেকে সমৃদ্ধ হয়। আবার অনেক ক্ষেত্রে শিক্ষকের জন্য সহজে পাঠ পরিচালনা করতেও সহায়তা করে থাকে। কারণ ক্লাসের প্রত্যেক শিক্ষার্থী স্বতন্ত্র বৈশিষ্ট্যের অধিকারী এবং ক্লাসে যত বেশি সংখ্যক শিক্ষার্থী থাকবে তত বেশি তাদের সুপ্ত প্রতিভাকে কাজে লাগানো যায় বলে মনে করেন তিনি।

তিনি বলেন, অনেক সময় বড় ক্লাস পরিচালনা করা অনেক শিক্ষকের কাছে হয়তো কঠিন হয়ে থাকে। সত্যিকার অর্থে এসব ক্লাস হয়ে থাকে খুবই মজার। এসব বড় ক্লাস পরিচালনা করা এবং প্রত্যেক শিক্ষার্থীর অংশগ্রহণের মাধ্যমে শ্রেণি পাঠ আরও সমৃদ্ধ করার কয়েকটি কৌশল রয়েছে বলে তিনি জানান।

তার মতে, যে শিক্ষার্থীরা সামনের সারিতে বসেছে অথবা যারা ইংরেজিতে ভালো শুধু তাদের নয় বরং পুরো ক্লাসের সব শিক্ষার্থীকে শেখাতে হবে। আবার ক্লাসের সব শিক্ষার্থীর সাথে যোগাযোগ করতে সমস্যা হয় সে জন্য শিক্ষার্থীদের বসার স্থান পরিবর্তনের পরামর্শ দেন। এ কাজ করতে পেছনের সারিতে বসা শিক্ষার্থীদের সামনে এবং সামনের শিক্ষার্থীদের পিছনে বসার ব্যবস্থা করাতে হবে। তাহলে ক্লাসের সবাই অন্তত সামনে বসার সুযোগ পাবে বলে তিনি মত দেন।

তিনি বলেন, প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে আলাদাভাবে তাদের জায়গা পরিবর্তন করে দিতে হবে। যেন তারা বিভিন্ন শিক্ষার্থীর সাথে কাজ করার সুযোগ পায়। এই টিপসটি বেশ গুরুত্বপূর্ণ। কারণ শিক্ষার্থীরা প্রত্যেকে আলাদা এবং কেউই একেবারে দুর্বল বা পুরোপুরি সবল নয়। প্রত্যেক শিক্ষার্থীই বিভিন্ন দিক থেকে দুর্বল বা সবল হতে পারে। ভিন্ন ভিন্ন সময়ে ভিন্ন ভিন্ন শিক্ষার্থীর সাথে কাজ করতে দেয়া হলে তারা বিভিন্ন জনের কাছ থেকে বিভিন্ন বিষয় শেখার সুযোগ পাবে এবং উৎসাহিত হবে।

সহকারী ইন্সট্রাক্টর ফারজানা ববী মনে করেন, শিক্ষার্থীরা যে কাজই করুক না কেন, তাদের কাজের ইতিবাচক মন্তব্য করতে হবে। ক্লাসের বিভিন্ন সময়ে খুব ভালো বলে তাদের উৎসাহিত করতে হবে। শিক্ষার্থীরা ভুল করলে কখনো রাগান্বিত হওয়া যাবে না। তাদের শুধু ভুলগুলো বুঝতে এবং তা শুধরে নিতে সাহায্য করতে হবে। ক্লাসরুমের পরিবেশ ভয় ভীতিকর নয় বরং প্রশান্তিময় ও উপভোগ্য রাখতে পারাটাই বড় কৌশল।

তিনি মনে করেন, ক্লাসে শিক্ষার্থীর সংখ্যা বেশি হলে তাদের আরও বেশি করে কথা বলার সুযোগ করে দিতে হবে। এক্ষেত্রে তাদের জোড়ায় কাজ ও দলীয় কাজের মাধ্যমে শ্রেণিতে কাজ করতে দিতে হবে। এতে মনিটরিং করা সহজ হবে। এ সময় হয়তো এমন কিছু বিষয় নজরে আসবে যা কিনা সামনে দাঁড়িয়ে ক্লাস নিলে দেখতে পাওয়া সম্ভব নয়। 

এই শিক্ষক বলেন, জুটিতে লেখার কাজ করা এবং জুটিতে নিজেদের কাজ যাচাই করে নেয়াকে উৎসাহিত করতে হবে। এতে শিক্ষার্থীরা দায়িত্ব নিতে শিখবে, স্বাধীনভাবে ও আত্মবিশ্বাসের সাথে কাজ করতে শেখে এবং শুধু শিক্ষকের ওপর তাদের নির্ভরতার পরিমাণও কমে আসে বলে মত দেন তিনি।

ফারজানা ববী বলেন, বড় ক্লাসের জন্য জোড়ায় কাজ এবং দলীয় কাজ বেশ গুরুত্বপূর্ণ, কারণ পঠনের মাধ্যমে বেশিরভাগ শিক্ষার্থীই কথা বলার সুযোগ পায়। ক্লাসের সব শিক্ষার্থীই যাতে কমপক্ষে একবার কথা বলার সুযোগ পায় তা নিশ্চিত করতে হবে, কোনো শিক্ষার্থী ক্লাসে ইংরেজিতে কথা না বলেই ক্লাস শেষ করছে কি না তার দিকে খেয়াল রাখতে হবে শিক্ষকদের।

আরও পড়ুন : উচ্চশিক্ষায় গবেষণার কোনো বিকল্প নাই : ইউজিসি চেয়ারম্যান

সহকারী ইন্সট্রাক্টর ফারজানা ববী আরও বলেন, শিক্ষার্থীদের মধ্যে দায়িত্ব বোধ এবং মনোবল বাড়াতে শিক্ষার্থীদেরও নির্দিষ্ট কিছু শ্রেণি বাক্যাংশের ব্যবহার শেখাতে হবে। এতে করে শিক্ষার্থীরা কিছু বুঝতে না পারলেও তা জানতে পারবে। তাদের কিছু কিছু শ্রেণি বাক্যাংশের সাথে পরিচিত করে তুলতে হবে এবং তা ব্যবহার করতে উৎসাহিত করতে হবে। এতে শিক্ষার্থীরা নিজেদের কথাগুলো বলতে উৎসাহিত হবে। লেসনে তাদের গুরুত্ব বুঝতে পারবে। তারা নিজেরা সক্রিয়ভাবে শিক্ষকের সাথে যোগাযোগ করবে এবং শিক্ষকের ওপর চাপ অনেক কমে আসবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।
ওডি/এএইচ

আপনার ক্যাম্পাসের নানা ঘটনা, আয়োজন/ অসন্তোষ সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড